বড় খবর

ISL-এ ফের করোনার হানা, টুর্নামেন্টের ভবিষ্যৎ নিয়েই উঠে গেল প্রশ্ন

আইএসএলে ফের করোনার থাবা। এবার আক্রান্ত দলের তালিকায় নাম লেখাল ওড়িশা এফসি ফুটবলার।

ওড়িশা এফসি ম্যাচের পরেই করোনায় স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল এটিকে মোহনবাগান শিবির। এবার সেই ওড়িশা এফসির এক ফুটবলার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এমনটাই খবর। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট ফুটবলারের বেশ কিছুদিন ধরেই কাশি হচ্ছিল। সোমবার তাঁকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়। তারপরেই আরটিপিসিআর টেস্টে পজিটিভ ধরা পড়েন সেই ফুটবলার।

রাপিড এন্টিজেন টেস্টে বাকিরা যদিও নেগেটিভ ধরা পড়েছেন। তবে সকলেরই পুনরায় আরটিপিসিআর টেস্ট করা হয়েছে। এর আগে এটিকে মোহনবাগান এবং এফসি গোয়ায় হানা দিয়েছিল করোনা। তৃতীয় আক্রান্ত দল হিসেবে এই তালিকায় নাম লেখাল ওড়িশা এফসি।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়ে লিগ শীর্ষে জামশেদপুর, স্বদেশী ব্রিগেডে হল না শেষরক্ষা

বুধবারই ভাস্কোর তিলক ময়দান স্টেডিয়ামে কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে ম্যাচ রয়েছে এফসি গোয়ার। আরটিপিসিআর টেস্টের পরেও স্টেডিয়ামে রওনা দেওয়ার আগে আর এক প্রস্থ রাপিড এন্টিজেন টেস্ট করা হবে। এই দুই রিপোর্টের ওপরেই নির্ভর করছে ম্যাচের ভাগ্য।

শেষ আপডেট অনুযায়ী যদিও জানা যাচ্ছে, বাকি ফুটবলারের টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়ায় নির্ধারিত সূচি মেনেই হবে কেরালা-ওড়িশা ম্যাচ।

এমন ঘটনার পরে আর কতদিন টুর্নামেন্ট চালিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে, তা নিয়েও উঠে যাচ্ছে প্রশ্ন। টাইমস অফ ইন্ডিয়া-কে এক সূত্র জানিয়েছেন, “সমস্ত সম্ভবনা আপাতত খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে রয়েছে। এটিকে মোহনবাগানে যখন করোনার সন্ধান পাওয়া গেল, তখন সমস্ত দলকেই হার্ড কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এফসি গোয়া শিবিরেও যখন করোনার অনুপ্রবেশ ঘটেছে, সন্দেহ করা হয়েছিল, সেই সময়েও গোয়াকে চার দিন ও অনুশীলন করা থেকে বিরত রাখা হয়েছিল।”

এদিকে, টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইএসএল ডিরেক্টর মার্টিন বেইন নাকি সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজিকে জানিয়ে দিয়েছেন, একাধিকবার সূচি বদলানো সম্ভব নয়।

বলে দেওয়া হয়েছে, নির্দিষ্ট কোনও ম্যাচের জন্য যদি ১৫জনের স্কোয়াড না তৈরি করা সম্ভব হয়, তাহলে লিগের তরফে নতুন করে সূচি পরিবর্তন করা হবে। আর তা সম্ভব না হলে, অন্য দলকে ৩-০ ব্যবধানে জয়ী ঘোষণা করা হবে।

আইএসএলের একাধিক শিবিরে করোনা হানায় আপাতত লিগের ভবিষ্যৎ বড়সড় সঙ্কটে পড়ে গেল। কেরালা ব্লাস্টার্সের কোচ ইভান ভুকোম্যানোভিচ আগেই আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, শীঘ্রই অন্যান্য ক্যাম্প থেকেও করোনা হানার খবর আসতে পারে।

লিগে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে প্রতি ১২ ঘন্টা অন্তর কোভিড টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অনুশীলনের সময় তো বটেই বেঞ্চে বসে থাকলেও এন৯৫ মাস্ক ব্যবহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Isl 2021 odisha fc footballer reportedly tests positive ahead of kerala blasters clash

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com