বড় খবর

বিস্ময় গোলেও এল না জয়, ড্র করে আইএসএল শুরু লাল-হলুদের

ইস্টবেঙ্গল প্রত্যেক বিদেশিই এবার অচেনা। তবে ড্যানিয়েল চিমাকে নিয়ে সমর্থকদের মধ্যে উৎসাহ ছিল তুঙ্গে।

ইস্টবেঙ্গল: ১ (ফ্রানজো পিৎসে)
জামশেদপুর: ১ (পিটার হার্টলে)

বিস্ময় গোলেও শেষরক্ষা হল না। মানোলো দিয়াজের ইস্টবেঙ্গল আইএসএল অভিযান শুরু করল জামশেদপুরের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে। ডার্বির আগে এক পয়েন্টেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে ইস্টবেঙ্গলকে। ১৭ মিনিটে দুরন্ত ব্যাকভলিতে গোল করে লাল হলুদকে এগিয়ে দিয়েছিলেন পিৎসে। বিরতির আগেই সেই গোলশোধ করে দেয় জামশেদপুর এফসি। দ্বিতীয়ার্ধে কোনও দলই আর গোল করতে পারেনি।

গত মরশুমে আইএসএলের সমস্ত দলকে হারালেও ইস্টবেঙ্গলের কাছে হোঁচট খেয়েছিল জামশেদপুর। এবারেও সেই চিত্রনাট্য বদলাল না। কোচ মানোলো দিয়াজের হাতে কার্যত অপরীক্ষিত দলকেও হারাতে পারল না আওয়েন কয়েলের জামশেদপুর।

আরও পড়ুন: ডার্বিতে খেলার জন্য মুখিয়ে! কেরালা ম্যাচে জোড়া গোলের পরেই হুঙ্কার বৌমাসের

মহম্মদ রফিককে লেফট ব্যাক হিসাবে খেলাচ্ছেন স্প্যানিশ কোচ। তবে প্ৰথমার্ধের কাউন্টার এটাক নির্ভর খেলায় বারবার উপভোগ্য হয়ে উঠল পেরোসেভিচের সঙ্গে জামশেদপুরের পিটার হার্টলের লড়াই। ডান প্রান্ত থেকে বারবার জামশেদপুর রক্ষণকে বেগ দিচ্ছিলেন পেরোসেভিচ।

আক্রমণ-প্রতি আক্রমণ নির্ভর খেলাতেই ইস্টবেঙ্গলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ক্রোট তারকা ফ্রানজো পিৎসে। কর্ণার থেকে তোলা বল প্ৰথমে টিপি রেহনেশ বাঁচিয়েও দিয়েছিলেন। তবে পেরোসেভিচের বাড়ানো বলে দর্শনীয় বাইসাইকেল কিকে মাতিয়ে দেন পিৎসে। সেই বল জামশেদপুর ডিফেন্ডার ভালকিসের মাথায় লেগে প্রতিহত হয়ে গোলে ঢুকে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধের একদম শেষ দিকে সমতা ফেরান জামশেদপুরের পিটার হার্টলে। এক্ষেত্রেও গোল আসে কর্ণার থেকে। কর্ণার থেকে ভাসানো বল মাথা ছুঁইয়ে গোলে রাখেন হার্টলে।

বিরতির পর লাল হলুদ কোচ জোড়া বদল ঘটান। হামতে এবং চিমাকে তুলে নামান জ্যাকিচাঁদ সিং এবং আমিরকে। দুজনে নামার পরে বেশ সপ্রতিভ হয় ইস্টবেঙ্গলের আক্রমণ।

ম্যাচের সারাক্ষণই জামশেদপুর চাপ রেখে গেলেও পিৎসে, মার্সেলারা ভরসা জুগিয়ে গেলেন। দুই সেন্টার ব্যাক নজর কাড়লেও রাইট ব্যাক পজিশনে হীরা মন্ডলকে শ্লথ গতির লেগেছে। বেশ কয়েকবার জামশেদপুরে ফুটবলারদের কাছে বলের পজেশন হারালেন।

ম্যাচের শেষ লগ্নে দূরপাল্লার শটে প্রায় অবিশ্বাস্য গোল করে দিয়েছিলেন জ্যাকিচাঁদ সিং। তেকাঠি ছেড়ে অনেকটা এগিয়ে এসেছিলেন জামশেদপুরের গোলকিপার রেহনেশ। মাঝমাঠ থেকেই শট নেন জ্যাকিচাঁদ। তবে বল পোস্টের সামান্য উপর দিয়ে উড়ে যায়। ইস্টবেঙ্গলের একটি গোল এদিন অফসাইডের কারণে বাতিল হয়।

ইস্টবেঙ্গল: অরিন্দম ভট্টাচার্য, মহম্মদ রফিক, হীরা মন্ডল, ফ্রাঞ্জ পিৎসে, টমিস্লাভ মার্সেলা, লালরিনলিয়ানা হামতে, সৌরভ দাস, ওহাহেংবাম আঙ্গুসানা (অমরজিৎ সিং কিয়াম), বিকাশ জাইরু, পেরোসেভিচ, ড্যানিয়েল চিমা (আমির ডেরভিসেভিচ, জ্যাকিচাঁদ সিং)

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Isl 2021 sc east bengal vs jamshedpur fc match report

Next Story
একহাতে অবিশ্বাস্য ক্যাচ! ইডেনের হৃদয় ভেঙে এভাবেই আউট রোহিত, দেখুন ভিডিও
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com