scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

সরে যান গোয়েঙ্কা! পুজোর মধ্যেই ‘নতুন অস্ত্রে’ বিদ্রোহ শুরু মোহনবাগানে

এটিকে মোহনবাগান কর্ণধার সঞ্জীব গোয়েঙ্কার বিরুদ্ধে বাগান সমর্থকদের হ্যাশট্যাগ এবার ট্রেন্ডিংয়ে।

সরে যান গোয়েঙ্কা! পুজোর মধ্যেই ‘নতুন অস্ত্রে’ বিদ্রোহ শুরু মোহনবাগানে

দিন পেরিয়েছে। মাস গড়িয়েছে। বছর এগিয়ে গিয়েছে। তবে সমর্থকদের দাবি আর পূরণ হয়নি। মোহনবাগানের নামের পাশ থেকে মুছে যায়নি ‘এটিকে’ শব্দবন্ধনী। তাই গনগনে সমর্থকরা নতুন করে নতুন মোড়কে বিদ্রোহের স্ফুলিঙ্গ জ্বালিয়ে দিলেন পুজোর মধ্যেই।

‘রিমুভ এটিকে’, ‘ব্রেক দ্য মার্জার’ হ্যাশট্যাগ বহাল তবিয়তেই রয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার সেই তালিকায় নতুন প্রতিবাদের হ্যাশট্যাগ হিসাবে জুড়ে গেল ‘গোয়েঙ্কা আউট’ শব্দবন্ধনীও।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা অন্য দলের বাতিল! ISL শুরুর আগেই বিষ্ফোরক কোচ কনস্টানটাইন

আইএসএল-এ খেলতে নামার আগেই পুজোয় হয়ত মুছে যাবে ‘এটিকে’, এমনই প্রত্যাশা ছিল সবুজ মেরুন সমর্থকদের। ক্লাব কর্তারা বিভিন্ন সময়ে জানিয়েছেন, সঞ্জীব গোয়েঙ্কার সঙ্গে তাঁরা আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে আইএসএল-এর সূচি ঘোষণার সময়েই কার্যত স্পষ্ট হয়ে যায়, এই মরশুমেও মোহনবাগানের নামের সঙ্গে লেজুর হিসাবে জুড়ে থাকবে ‘এটিকে’ শব্দ।

এই পুজোতেই শেষমেশ সমস্ত অপেক্ষার বাঁধ ভেঙেছে। সমর্থকরা পুজোর উদ্দীপনার মধ্যেই নতুন অস্ত্র ‘গোয়েঙ্কা আউট’ হ্যাশট্যাগ নিয়ে নেমে পড়েছেন পুরোনো যুদ্ধে। সমর্থকদের দাবি, বারবার অনুরোধ করা হলেও কার্যত কোনও কর্ণপাত করছেন না সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। মোহনবাগানের মত ঐতিহ্যবাহী ক্লাবের ভাবমূর্তিই এতে কালিমালিপ্ত হচ্ছে। সমর্থকদের ভাবাবেগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলার জন্য তাই অবিলম্বে সরে দাঁড়ান সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। টুইটারে আছড়ে পড়ছে ‘গোয়েঙ্কা আউট’ হ্যাশট্যাগ ওয়ালা একের পর এক টুইট।

প্রসঙ্গত, মোহনবাগানে যেখানে মার্জার ইস্যুতে কোনও সুরাহাই মিলছে না। ইস্টবেঙ্গলে আবার অন্য চিত্র। ইস্টবেঙ্গলের ঐতিহ্যকর সম্মান জানিয়েই বিনিয়োগকারী ইমামি কর্তৃপক্ষ ঠিক করেছে ইস্টবেঙ্গল নিজের নামেই খেলবে আইএসএল। আগেই সেই ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছিল। আইএসএল শুরুর আগে গত সপ্তাহেই আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ইমামি ইস্টবেঙ্গল’ নাম বদলে গিয়েছে ‘ইস্টবেঙ্গল এফসি’-তে।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলের নতুন জার্সিতে ‘আপত্তিকর’ লোগো, ক্ষোভে ফেটে পড়ল লাল-হলুদ জনতা

ষষ্ঠীর দিনেই এমন উপহার পেয়ে ইমামি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন লাল-হলুদ সমর্থকরা। তবে পড়শি ক্লাবে পুরোনো সমস্যা জিইয়ে রইল। এই যুদ্ধের শেষ কোথায়, সময়ই হয়ত বলবে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl 2022 atk mohun bagan fans angry at sanjiv goenka for not respecting the legacy