scorecardresearch

বড় খবর

শেষ মুহূর্তের গোলে মানরক্ষা মেরিনার্সদের! ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

টুর্নামেন্টের প্ৰথম ম্যাচেই দুই দল মুখোমুখি হয়েছিল। সেই ম্যাচে মেরিনার্সরা তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে।

এটিকে মোহনবাগান: ২ (ডেভিড উইলিয়ামস, জনি কাউকো)
কেরালা ব্লাস্টার্স: ২ (আদ্রিয়ান লুনা-২)

জিতলেই হায়দরাবাদকে ছাড়িয়ে লিগ শীর্ষে ওঠার সুযোগ ছিল এটিকে মোহনবাগানের সামনে। তবে কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে ২-২ এ ড্র করে এক পয়েন্টের প্রাপ্তি ঘটল মেরিনার্সদের। ম্যাচের প্ৰথম ৮ মিনিটের মধ্যেই দুই দল গোল করে উত্তেজক লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিয়েছিল। সেই উত্তেজনাই বজায় থাকল গোটা ম্যাচে। দুই অর্ধে মেরিনার্সদের হয়ে গোল ডেভিড উইলিয়ামস এবং জনি কাউকোর।

৭ মিনিটেই আদ্রিয়ান লুনা দুরন্ত ফ্রিকিক থেকে গোল করে কেরালাকে এগিয়ে দিয়েছিলেন। কার্ল ম্যাকহিউ ফাউল করে বসেছিলেন আব্দুল সাহালকে। সেই ফ্রিকিক থেকেই বিস্ময় গোলে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন লুনা।

তবে সেই গোলের বাঁশির আওয়াজ মিলিয়ে যাওয়ার আগেই পাল্টা প্রতি আক্রমণে গোল করে সমতা ফিরিয়ে দেন ডেভিড উইলিয়ামস। থ্রু বল ধরে ডান প্রান্ত দিয়ে ওভার ল্যাপ করে প্রতি আক্রমণ করে বসেন প্রীতম কোটাল। আর প্রীতমের লো ক্রস ধরে ১-১ করে যান ডেভিড উইলিয়ামস।

আরও পড়ুন: বাস্তেনের আগেই ০ ডিগ্রিতে গোল ছিল সুরজিতের! আক্ষেপ-হতাশায় বিষণ্ণ সাব্বির

প্ৰথম থেকেই দুই দল আক্রমণাত্মক খেলার রিংটোন সেট করে দিয়েছিল। দুই দল কাউকেই এক ইঞ্চি জায়গা ছাড়তে প্রস্তুত ছিল না। তবে প্ৰথমার্ধের দ্বিতীয় লগ্নে দুই দল-ই খেলার গতি কমিয়ে মাঝমাঠ দখলের ঝাঁপিয়ে পড়ে। বিরতির পর খেলা ১-১ গোলে অমীমাংসিত ছিল।

দ্বিতীয়ার্ধে দুই দল-ই শারীরিক ফুটবল শুরু করে দেয়।।আদ্রিয়ান লুনা-হুগো বৌমাস যেমন ফিজিক্যাল ফুটবলে একে অন্যকে টেক্কা দিতে চাইলেন, তেমন পুইটিয়া আবার হলুদ কার্ড দেখলেন জনি কাউকোর টিশার্ট ধরে।

৬১ মিনিটে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল এটিকে মোহনবাগান। জনি কাউকোর পাস ধরে মনবীর গোল করার সুযোগ পেলেও তা সদ্ব্যবহার করতে পারেননি। সরাসরি গোলকিপারের হাতে বল জমা করে দেন। আর এই গোল মিস করার তিন মিনিটের মধ্যেই ৬৪ মিনিটে কেরালার হয়ে দ্বিতীয় গোল করে যান সেই লুনা।

কর্ণার থেকে উড়ে আসা বল ফিস্ট করে প্রতিহত করেন অমরিন্দর। তবে তা পুইটিয়ার সামনে পড়ে যায়। তিনি আবার চিপ করে বল তুলে দেন বাঁ দিকে থাকা লুনার কাছে। বুক দিয়ে বল রিসিভ করে গোল করতে ভুল করেননি তিনি।

আরও পড়ুন: কৃশানুর সেই ছেঁড়া কার্টিলেজ এখনও রেখেছেন সঙ্গে, প্রেমদিবসে নস্ট্যালজিক স্ত্রী পনি

এরপরে শেষদিকে কিয়ান নাসিরিকে নামিয়ে অলআউট আক্রমণ শানিয়েছিল ফেরান্দোর দল। তবে সমতাসূচক গোল আসছিল না। তবে দ্বিতীয়ার্ধের এক্সট্রা টাইমে লুনার সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে লাল কার্ড দেখেন প্রবীর দাস। ১০ জনে হয়ে যাওয়া এটিকে মোহনবাগান ম্যাচে সমতা ফেরান একদম শেষ মিনিটে। ৯৭ মিনিটে জনি কাউকো দুর্ধর্ষ গোল করে এক পয়েন্ট ছিনিয়ে আনেন।

টানা তিন ম্যাচ জিতে এটিকে মোহনবাগান আগেই শেষ চারের জায়গা পাকা করে নিয়েছিল। কেরালাকে হারলেই এককভাবে শীর্ষে পৌঁছে যেত সবুজ মেরুন বাহিনী। আপাতত কেরালা ম্যাচে ড্র-য়ের পরে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে এটিকে। রাতেই হায়দরাবাদ আবার খেলছে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে। হায়দরাবাদ এই ম্যাচ জিতলে মেরিনার্সদের পয়েন্টে ছাপিয়ে যাবে। ২৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় চতুর্থ স্থানে রইল কেরালা।

এটিকে মোহনবাগান: অমরিন্দর সিং, সন্দেশ জিংঘান, তিরি, শুভাশিস বোস, প্রীতম কোটাল, কার্ল ম্যাকহিউ, লেনি রদ্রিগেজ, জনি কাউকো, লিস্টন কোলাসো, মনবীর সিং, ডেভিড উইলিয়ামস

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl 2022 atk mohun bagans joni kaukos last minute equalizer saves mariners against kerala blasters