scorecardresearch

বড় খবর

আড়াই মাস প্রি-সিজন করার সৌভাগ্য হয়নি! অজুহাতের বন্যা বইয়ে গোয়া ম্যাচে নামছেন স্টিফেন

এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে বুধবার খেলতে নামছে ইস্টবেঙ্গল

আড়াই মাস প্রি-সিজন করার সৌভাগ্য হয়নি! অজুহাতের বন্যা বইয়ে গোয়া ম্যাচে নামছেন স্টিফেন

প্ৰথম ম্যাচেই হার হজম করেছে। কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে সেই হারের পর চার দিনের মধ্যেই নেমে পড়তে হচ্ছে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে। ঘরের মাঠে চলতি মরশুমে প্ৰথমবার।

তার আগে ইস্টবেঙ্গল বস স্টিফেন কনস্টানটাইন অনেকটাই খুল্লামখুল্লা। জানিয়ে দিলেন দলকে বাস্তববাদী হতে হবে। এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে নামার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে যা বললেন ব্রিটিশ কোচ, তার নির্যাস-

প্রসঙ্গ: দলের কন্ডিশন-
” দু-সপ্তাহে মোটেই দল গঠন করা সম্ভব নয়। আমাদের দলটা পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে চলছে। গত মরশুমে লাস্ট, তার আগের সিজনে শেষ থেকে দ্বিতীয় স্থানে ফিনিশ করেছিলাম আমরা। প্ৰথম ম্যাচে নিজেদের প্রতিভার ঝলক দেখাতে পেরেছি আমরা। এমন নয় যে মরশুম শেষে কোথায় থাকব, তা এখনই বলার সময় আসেনি। তবে যেভাবে শুরু করেছি, সেরকমভাবেই যে শেষ করব এমনটা নয়। দলের পরিবেশে ফুটবলাররা আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছে। ছয়জন বিদেশির সঙ্গে বেশ কিছু দেশীয় তারকা রয়েছে যাঁরা নিজেদের প্রমাণ করতে উদগ্রীব। আশা করি আমরা গোয়ার বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট আদায় করতে পারব।”

আরও পড়ুন: এই ৪ ভুলেই হার ইস্টবেঙ্গলের! না শোধরালে গোয়া ম্যাচেই ফের কপাল চাপড়াবেন কনস্টানটাইন!

“দুই, চার অথবা ছয়- কোনও পজিশন নিয়েই আমরা ভাবছি না। ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে চাই আমরা। দু-আড়াই মাস প্রি-সিজন করার মত সৌভাগ্য আমাদের হয়নি। মাত্র চার সপ্তাহ হাতে পেয়েছি আমরা। যদি কেউ এই চার সপ্তাহেই দলকে সেরা চার অথবা ছয়ে দেখতে চান, তাঁদের বাস্তবটা বুঝতে হবে। শেষ দুই মরশুম এমন পজিশনের ধারেকাছে আসেনি দল। তাই কী বদলেছে? নতুন দল, নতুন ফুটবলার, আমাদের স্রেফ একটু সময় প্ৰয়োজন। তবে আমরা প্রতি বিভাগে উন্নতি করতে পারি। প্রত্যেক ম্যাচেই আমরা উন্নতি করব, এটা কার্যত নিশ্চিত।”

আরও পড়ুন: যুবভারতীর অন্ধকারেও ঢাকল না বাগানের লজ্জা! হেরেই ISL শুরু ফেরান্দো ব্রিগেডের

“ইস্টবেঙ্গলের হৃত গর্ব পুনরুদ্ধার করার জন্য সর্বোচ্চ পর্যায়ে চেষ্টা করব। তবে এটা ৪-৫ সপ্তাহে হওয়া মুশকিল। এতে সময় প্রয়োজন। সকলের সহযোগিতা কাম্য। মরশুমে নিশ্চিত আমাদের জন্য খারাপ সময় অপেক্ষা করছে। টানা ১৯ ম্যাচ জিতে আইএসএল খেতাবও পারব না। এটা বুঝতে হবে। সমর্থকরা যদি একটু ধৈর্য্য ধরেন, তাহলে আমি প্রত্যাশিত ফলাফল এনে দিতে পারব। আমি দিনে ৪৮ ঘন্টাই কাজ করি। যদি আমরা ধৈর্য্য হারিয়ে ফেলি, কোনও জাদুর আশায় থাকি, তাহলে সমস্যা হবে।”

আরও পড়ুন: লিস্টনরা কি কোচের প্ল্যান ফলো করছেন না! বিষ্ফোরক গুঞ্জনে এবার মুখ খুললেন ফেরান্দো

প্রসঙ্গ: ইস্টবেঙ্গলে কোচিং-
“বন্ধু সুভাষ ভৌমিক আমাকে বলতেন, একদিন তুমি ইস্টবেঙ্গলে কোচিং করাতে এসো। উনি যদি থাকতেন, তাহলে ভাল হত। ভারতীয় দলকে কোচিং করানোর থেকে ইস্টবেঙ্গলে কোচ হওয়া কম সম্মানের নয়। এটা দারুণ বিষয়।”

প্রসঙ্গ: পর্যাপ্ত প্রস্তুতির অভাব-
“ডুরান্ড কাপ যখন শুরু হয়েছিল, তখন আমাদের কাছে মাত্র ১৮ জন ফুটবলার ছিল। ডুরান্ড কাপ জেতার জন্য আমরা অংশ নিইনি। অনেকটা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার ধাঁচে অংশ নিই আমরা। জানতাম মুম্বই সিটি এফসি প্রবল শক্তিশালী দল। নিজেদের সেরা তারকাদের ওঁরা খেলেছিল। সেই বিষয়টি আমাদের মোটিভেট করেছিল। তবে এটা আইএসএল। ডুরান্ড নয়। আইএসএল-এ নামার আগে ফ্রেন্ডলি ম্যাচেও আমরা ভালো খেলেছি। তবে প্রতিপক্ষ তো আইএসএল-এর দলগুলোর মত এরকম ছিল না। যে দলই এবার কেরালার মাঠে ওঁদের মুখোমুখি হবে, কড়া প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়বে। ওঁরা একদম সেটলড একটা দল। আর আমরা ছিলাম নতুন। তাই অনেকটা নার্ভাস ছিলাম আমরা। মরশুম গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে আমরা উন্নতি করতে পারব।”

আরও পড়ুন: দেবাশিস দত্তের বাড়ি ঘেরাও কেন! মোহনবাগান সমর্থকদের তুলোধোনা করলেন কুনাল ঘোষ

গত চার সপ্তাহ ধরে আমরা একসঙ্গে অনুশীলন করেছি। গত দু-বছর একই দল ধরে রাখা কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে প্ৰথম ৭০ মিনিট মনে হয়েছিল আমরা ঠিকঠাক রয়েছি। অন্য দল হলে ৪-৫ গোল হজম করে ফেলত। তবে আমরা মোটেই সেরকম টিম নই। তুহিন দাস এবং নুঙ্গা প্ৰথমবার আইএসএল খেলছে।”

প্রসঙ্গ: কেরালা ব্লাস্টার্স ম্যাচ-
“কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে আমাদের ভুল গুলো হয়েছিল ব্যক্তিগত পর্যায়ে। প্রশ্ন হল, আমরা এটা সমাধান করতে পারব কিনা! গোটা সপ্তাহ ধরে এই নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। মার্কিংয়ে আমাদের আরও সতর্ক থাকতে হবে। আমাদের দৃষ্টিকোন থেকে গোল হজম করতে মোটেই ভালো লাগেনি। এরজন্য আমাদের বেতন দেওয়া হচ্ছে না।”

প্রসঙ্গ: বুধবারের প্রতিপক্ষ এফসি গোয়া-
“এফসি গোয়ার সম্পর্কে খুব বেশি তথ্য নেই। তবে হোম হোক বা এওয়ে- আমরা মাঠে নামব তিন পয়েন্টের লক্ষ্যেই। ওঁদের নতুন কোচ এসেছে যিনি প্রভাব ফেলতে চাইবেন। তবে দলের অধিকাংশ তারকারাই পুরোনো। প্রতিপক্ষ যেমনই হোক, তাঁকে অশ্রদ্ধা করা উচিত নয়। মাঠে জিতে জবাব দিতে হয়।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl 2022 east bengal coach stephen constantine assures improvement against fc goa