scorecardresearch

তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘বিস্ফোরণ’ ঘটেছে! বাগানে সই করে প্ৰথমবার মুখ খুললেন হ্যামিল

ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে বাগান সমর্থকদের সঙ্গে আলাপচারিতা সারলেন অজি সুপারস্টার। জানালেন নিজের এএফসি পরিকল্পনার কথা।

এএফসি কাপে এটিকে মোহনবাগানের সাফল্য নিয়ে বেশ আশাবাদী সবুজ মেরুনের নতুন রিক্রুট ব্রেন্ডন হ্যামিল। ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে জানিয়ে দিলেন, সংঘবদ্ধভাবে যদি তাঁরা পারফর্ম করতে পারেন, তাহলে এএফসি কাপে সফল না হওয়ার কোনও কারণ নেই। ২৯ বছরের তারকা ডিফেন্ডার দু বছরের চুক্তিতে বাগান শিবিরে যোগ দিয়েছেন জুনে।

এএফসি কাপে এটিকে মোহনবাগান ইন্টার জোনাল প্লে অফ সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে। যোগ্যতা অর্জনকারী পর্বের পর গ্রুপ পর্বেও দুরন্ত পারফরম্যান্স মেলে ধরেছেন মেরিনার্সরা। এএফসি কাপ এবং আইএসএলের দিকে নজর রেখেই এবার রক্ষণ সংগঠন মজবুত করার দিকে নজর দিয়েছেন হুয়ান ফেরান্দো। সেই কারণেই তিরি, কার্ল ম্যাকহিউ থাকলেও ফ্লোরেন্তিন পোগবা এবং ব্রেন্ডন হ্যামিলকে সই করিয়েছে বাগান বাহিনী।

আরও পড়ুন: রয় কৃষ্ণের সঙ্গেই গোল্ডেন বুট পাওয়ার লড়াইয়ে ছিলেন! বিখ্যাত ব্রাজিলীয় এবার বাছলেন ISL ঠিকানা

সেপ্টেম্বরে এএফসি কাপ অভিযানে যাতে সমস্ত অস্ত্র সমেত মাঠে নামতে পারেন, তা এখন থেকেই নিশ্চিত করতে চাইছে এটিকে মোহনবাগান।

এমনিতে হ্যামিলের এর আগে এএফসি কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে ২০১৪-য় সিডনি ওয়ান্ডারার্সের হয়ে। মহাদেশীয় স্তরে সাফল্য পাওয়ার জন্য কী দরকার, তা ভালোই জানেন অজি সেন্টারব্যাক।

এটিকে মোহনবাগানের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডল থেকে হ্যামিল জানিয়ে দিলেন, “ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। যে কোনও ধরনের সাফল্যের অন্যতম শর্ত হল স্মার্টভাবে কঠোর পরিশ্রম করা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার জন্য কী রকম পর্যায়ের প্রস্তুতি লাগে, সেটা আমরা সকলেই জানি। তাই প্রস্তুতির ব্লুপ্রিন্ট মোটামুটি জানা রয়েছে আমার।”

“তবে দিনের শেষে এটা নব্বই মিনিটের যুদ্ধে এগারো বনাম এগারো। যদি আমরা একসঙ্গে সঠিকভাবে অনুশীলন সারতে পারি, তাহলে এএফসিতে সফল না হওয়ার কোনও কারণ তো দেখছি না।”

আরও পড়ুন: ISL খেলতে ভারতে আমনার দেশের সুপারস্টার! তারকাকে টপকে গোল করাই হয়ে গেল চ্যালেঞ্জ

শুধু এএফসি কাপ-ই নয়, ব্রেন্ডন হ্যামিলের পাখির চোখে রয়েছে আইএসএলও। যুবভারতীতে মেরিনার্স সমর্থকদের সামনে খেলতে মুখিয়ে রয়েছেন হ্যামিল। তারকা সেন্টারব্যাক জানিয়ে দিয়েছেন, “এখনই যা অভিজ্ঞতা হয়েছে, তাতে অপেক্ষার আর তর সইছে না। মেরিনার্স সমর্থকরা ভীষণই প্যাশনেট। আমার সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট তো প্রত্যেক দিন অজস্র মেসেজ, কমেন্টের বিস্ফোরণ ঘটছে। ওঁদের ওই প্যাশনটা অনুভব করতে পারছি।”

সমর্থকদের বার্তা দিয়ে হ্যামিলের আরও সংযোজন, “ক্লাবের একনিষ্ঠ সমর্থকদের সামনে খেলার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভালোবাসার উষ্ণতা পেয়ে এখন থেকেই উত্তেজিত। এখনই যদি এই অবস্থা হয়, তাহলে মাঠে আমরা নেমে গোল করে সমর্থকদের আনন্দ এনে দেওয়ার পর কী হবে!”

আরও পড়ুন: ATKMB-র পোগবা নন, এই তারকাই এবার ISL-এর সেরা সই! প্রোফাইল জানলে চমকে উঠবেন

এটিকে মোহনবাগান রক্ষণে স্থিরতা দেওয়ার জন্য হ্যামিলই আপাতত এটিকে মেরিনার্সদের সেরা বাজি। গত দুই মরশুমে লিগ উইনার্স শিল্ড এবং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দোরগোড়ায় পৌঁছেও কার্যোদ্ধার হয়নি। আইএসএল ২০২২/২৩-এ সবুজ মেরুন জার্সিতে কতটা ফুল ফোটাতে পারেন অস্ট্রেলীয়, সেটাই আপাতত দেখার।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl brendan hamill on atk mohun bagans afc cup campaign