scorecardresearch

বড় খবর

এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী সুপারস্টার এবার ফেরান্দোর বাগানে! একাই মাতাবেন ISL

মেলবোর্ন ভিকট্রি দলের হয়ে শেষ মরশুমে এ লিগে খেলেছেন। এবার তাঁকে কলকাতায় দেখা যেতে পারে সবুজ মেরুন জার্সিতে।

এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী সুপারস্টার এবার ফেরান্দোর বাগানে! একাই মাতাবেন ISL

অস্ট্রেলিয়ার ফুটবল সার্কিটে ভীষণই চেনা নাম। টমি পোপভিচের ওয়েস্টার্ন সিডনি ওয়ান্ডারার্স দলের হয়ে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন। সেবারেই প্ৰথম অস্ট্রেলীয় কোনও ক্লাব এই টুর্নামেন্টে জেতার নজির গড়েছিল।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এবার এ-লিগের সেই নামি ডিফেন্ডার ব্রেন্ডন হ্যামিলকে সবুজ মেরুন জার্সিতে খেলতে দেখা যাবে। যিনি গত বছরই মেলবোর্ন ভিকট্রি দলকে এ লিগে রানার্স করতে সাহায্য করেছেন। ২৯ বছরের তারকা এ লিগে দেড়শোর বেশি ম্যাচ খেলেছেন। শেষ মরশুমে মেলবোর্ন ভিকট্রির হয়ে খেলার আগে মেলবোর্ন হার্ট, ওয়েস্টার্ন সিডনি ওয়ান্ডারার্স এবং ওয়েস্টার্ন ইউনাইটেডে খেলেছেন।

আরও পড়ুন: হাবাসের ISL চ্যাম্পিয়ন সবুজ মেরুন ছাত্র বেঙ্গালুরুতে! রিয়েল মাদ্রিদের তারকা এবার সুনীলের সতীর্থ

এ লিগে কনিষ্ঠতম তারকা হিসাবে আত্মপ্রকাশের নজির গড়েছিলেন মেলবোর্ন হার্ট দলের হয়ে খেলে মাত্র ১৭ বছর বয়সে। কোরিয়ান লিগের সিওনগম এফসির হয়েও খেলেছেন।

২০০৯/১০-এ অস্ট্রেলিয়ার ইনস্টিটিউট অফ স্পোর্টস থেকে উত্থান। যুব এ লিগ খেলে। সেই বছরেই কেভিন ম্যাসকটের জন্য প্রীতি ম্যাচের বাছাই একাদশে নির্বাচিত হয়েছিলেন মেলবোর্ন ভিকট্রি দলের হয়ে খেলার জন্য।

আরও পড়ুন: সবুজ মেরুন ছাড়লেন ইউরোপা লিগের কোচ! কলকাতার পর নতুন গন্তব্য মেক্সিকো

সূত্রের খবর, এটিকে মোহনবাগান সম্ভবত রিলিজ করার পথে হাঁটবে না তিরিকে। এএফসি কাপের যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্বে চোট পাওয়ার পরে তারকা ডিফেন্ডারের ফিরতে ফিরতে জানুয়ারি পেরিয়ে যাবে। তবে স্প্যানিশ তারকাকে পাওয়ার আশা এখনই ছাড়ছে না এটিকে মোহনবাগান শিবির। কোচ ফেরান্দো নিজেও তিরির রিকভারিতে সন্তুষ্ট।

তবে তিরি দলে না ফেরা পর্যন্ত অজি ডিফেন্ডারকে এশিয়ান কোটায় সই করে রাখা হতে পারে। সামনেই এএফসি কাপের মূলপর্বের ম্যাচ। সেখানে হ্যামিলকে রেখে দল গড়তে পারেন ফেরান্দো।

সবুজ মেরুনে দুই বছরের চুক্তিতে সই করে ব্রেন্ডন হ্যামিল বৃহস্পতিবার ক্লাবের প্রেস রিলিজে বলে দিলেন, “ভারতীয় ফুটবল সম্পর্কে যা তথ্য জেনেছি তাতে এই ক্লাবের ফুটবল ঐতিহ্য বিশাল। সবুজ মেরুন জার্সির ঐতিহ্য ও পরম্পরা ভারতীয় ফুটবলকে সমৃদ্ধ করেছে। ভারতে এই সুপ্রসিদ্ধ ক্লাবকে সাফল্য এনে দেওয়ার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। শুনেছি কলকাতা ফুটবলের শহর। এই ক্লাবের কোটি কোটি সমর্থক। মেরিনার্সদের আনন্দ এবং খুশি করাই আমাদের লক্ষ্য।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl transfer a league melbourne victory centre back brendan hamill likely to be roped in by atk mohun bagan