ইস্টবেঙ্গলকে ‘না’ বলে বেঙ্গালুরুতেই কেন সই! রবিবারই মুখ খুলে আসল কারণ জানালেন সন্দেশ

বেঙ্গালুরু এফসিতে কেন সই করলেন একাধিক ক্লাবের প্রস্তাব থাকা সত্ত্বেও। তা নিয়েই এবার মুখ খুললেন সন্দেশ ঝিংগান।

ইস্টবেঙ্গলকে ‘না’ বলে বেঙ্গালুরুতেই কেন সই! রবিবারই মুখ খুলে আসল কারণ জানালেন সন্দেশ

ইস্টবেঙ্গলকে শেষ মুহূর্তে বাজিমাত করল বেঙ্গালুরু এফসি। স্টিফেন কনস্টানটাইন টিম ইন্ডিয়ায় নিজের পুরোনো ছাত্রকে পাওয়ার জন্য টিম ম্যানেজমেন্টকে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছিলেন। তবে শেষরক্ষা হল না। রবিবারই বড়সড় ঘোষণায় বেঙ্গালুরু এফসি জানিয়ে দিয়েছে, সন্দেশ ঝিংগান আগামী মরশুমে ব্লুজ-দের জার্সি গায়ে চাপাবেন।

ইস্টবেঙ্গল তো বটেই একাধিক বিদেশি ক্লাবেরও প্রস্তাব ত্যাগ করে কেন বেঙ্গালুরুতেই? সন্দেশ রবিবার সই পর্ব সমাপ্ত করে টাইমস অফ ইন্ডিয়া-কে বলে দিয়েছেন, “এটিকে মোহনবাগান ছাড়ার পরে পরিবারের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটাই। সেখানেই পরবর্তী গন্তব্য নিয়ে ভাবনা চিন্তা করি। তারপরেই সুনীল (ছেত্রী) পাজির সঙ্গে কথা হয়। বেঙ্গালুরুর ডিএনএ সম্পর্কে ভালোই ওয়াকিবহাল আমি। ভারতীয় ফুটবলে আবির্ভাবের পর থেকেই বেঙ্গালুরু শীর্ষস্থানীয় ক্লাব।”

আরও পড়ুন: ডগলাস, ক্রিশ্চিয়ানোর মতই ইস্টবেঙ্গলে সুপারস্টার হবেন এই ব্রাজিলীয়! আশায় বুক বাঁধছে লাল-হলুদ জনতা

“ওঁরা এই সিজনে ট্রফি জয়ের জন্য কতটা উদগ্রীব সেটা জানি। স্রেফ ফুটবলেই নয়, অন্যান্য খেলাতেও জেএসডব্লিউ গ্রুপ প্রশংসনীয় কাজ করে চলেছে। এই পরিবারের ডিএনএ সম্পর্কে ভালোই জানি। সবসময় হৃদয়ের ডাকে সাড়া দিয়েছি। সেই হৃদয়ই চাইছিল বেঙ্গালুরুতে যোগ দিতে।”

বেঙ্গালুরুতে অবশ্য এবারই প্ৰথম নয়। এর আগেও টিম ব্লুজ-দের জার্সিতে খেলেছেন তিনি। ২০১৭-য় কেরালা ব্লাস্টার্স থেকে লোনে খেলতে এসেছিলেন। এবার অবশ্য পাকাপাকি চুক্তি করে খেলবেন ক্রান্তিবীরা স্টেডিয়ামে। ঘটনাচক্রে, মোহনবাগানের বিরুদ্ধে সেবার এএফসি কাপে বেঙ্গালুরুর হয়ে অভিষেক ঘটিয়েছিলেন সন্দেশ। ফেডারেশন কাপে মোহনবাগানকে হারিয়ে সেবার চ্যাম্পিয়নও হয় বেঙ্গালুরু এফসি। সেটাই সন্দেশ ঝিংগানের প্ৰথম খেতাব ভারতীয় ফুটবলে।

বেঙ্গালুরুর হয়ে খেলার পুরোনো সমস্ত স্মৃতি বেশ টাটকা সন্দেশের। পুরোনো প্রসঙ্গ উঠতেই সন্দেশ টাইমস অফ ইন্ডিয়া-কে বলেছেন, “বেঙ্গালুরুতে সই করার পিছনে পুরোনো ঘটনাও সমানভাবে দায়ী। লোনে এসে এখানে বেশ কিছু দারুণ স্মৃতি অর্জন করেছিলাম। সেই দলের অনেকেই এখনও খেলছে বেঙ্গালুরুর হয়ে। দারুণ সময় কেটেছিল। দুর্ধর্ষ কিছু ফলাফল এনেছিলাম আমরা দলের জন্য। কোচি, ফতোরদা, যুবভারতীর মত দুরন্ত স্টেডিয়ামে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ক্রান্তিবীরার সঙ্গেও দুর্ধর্ষ কিছু স্মৃতি জড়িয়ে। জাতীয় দলের হয়ে কেরিয়ারের শুরুর দিকে এখানে অনেক ম্যাচ খেলেছিলাম। মনে হয় এখানে খেলার সময়েই প্ৰথমবার ভাইকিং ক্ল্যাপের মুখোমুখি হই। সবমিলিয়ে, ক্রান্তিবীরার সঙ্গে আমার কানেকশন বরাবরই স্পেশ্যাল।”

আরও পড়ুন: ব্রিটিশ স্ট্রাইকারকে ছিনিয়ে ইস্টবেঙ্গলকে ঝটকা লিগ শিল্ড জয়ীদের! হাতছাড়া আর্সেনালের তারকা

২০২০-তে সন্দেশ এটিকে মোহনবাগানে যোগ দেওয়ার পর ব্যাপক হাইপ তৈরি হয়েছিল দীর্ঘদেহী স্টপারকে ঘিরে। গত মরশুমে লোনে ক্রোয়েশিয়ার এইচএনকে সিবেনিকে যোগ দিয়েছিলেন তারকা। তবে চোট-আঘাতে পুরো মরশুমই খারাপ কেটেছে সন্দেশের।

আইএসএলের দ্বিতীয় পর্বে এটিকে মোহনবাগানে ফিরে এসেছিলেন তারকা। তবে সেই সময় কোচ পরিবর্তন হয়ে গিয়েছে বাগান শিবিরে। হাবাস সরে গিয়ে দায়িত্বে আসেন ফেরান্দো। বাগানের নতুন স্প্যানিশ কোচ ডিপ ডিফেন্স থেকে বল প্লে চালু করতে চান। তবে সন্দেশ বল-প্লেয়ার না হওয়ায় এই ফর্মেশনে ফিট করতে পারেননি নিজেকে।

শেষমেষ সন্দেশের ঠিকানা হল বেঙ্গালুরু এফসি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Isl transfer sandesh jhingan reveals reason why he decides to join bengaluru fc instead of east bengal after leaving atkmb

Next Story
ইস্টবেঙ্গলের হাতছাড়া সন্দেশ! ভারতেই নতুন ক্লাব পেয়ে গেলেন বাগান-ছাড়া তারকা