LIVE Cricket Score. IND vs WI T20 Live Score: ক্য়ারিবিয়ানদের হোয়াইটওয়াশ করল ভারত

LIVE Cricket Score, India vs West Indies 3rd T20 Live Score Updates: ক্য়ারিবিয়ানদের হোয়াইটওয়াশ করল ভারত। ধাওয়ান-পন্থের ব্যাটে সিরিজিরে শেষ ম্য়াচ ছয় উইকেটে জিতল ইন্ডিয়া।

India vs West Indies 3rd T20 LIVE Cricket Score: জানুন ভারত-উইন্ডিজ ম্যাচের লাইভ স্কোর

LIVE Cricket Score. IND vs WI T20 Live Score: ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ৩-০ হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ করল ভারত। রবিবার চেন্নাইয়ে সিরিজের শেষ ম্যাচে ছ’উইকেটে জয়ী রোহিত শর্মা অ্যান্ড কোং। ম্যাচের শেষ বলে জয় ছিনিয়ে আনে ভারত।এদিন চিপক দেখল টি-২০ ম্যাচের উত্তেজনা কাকে বলে। শেষ ওভারের শেষ বল পর্যন্ত ঝুলে থাকল ম্যাচের ভাগ্য। যদিও শেষ হাসি হেসেছে রবি শাস্ত্রীর শিষ্য়রা। এখন হাসি মুখেই অস্ট্রেলিয়ার উড়ান ধরতে পারবে টিম ইন্ডিয়া।

এদিন টস হেরে বল করতে নামে ভারত। শুরুটা ভাল করেও শেষটায় রোহিতের মান রাখতে পারেননি বোলাররা। নিকোলাস পুরান আর ড্যারেন ব্র্যাভো রীতিমতো কাঁদিয়ে ছেড়ে দিয়েছিলেন রোহিতদের। চতুর্থ উইকেট পার্টনারশিপে তাঁরা তুলেছিলেন ৮৭ রান। এক সময়ে ১২.৫ ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে উইন্ডিজদের স্কোর ছিল ৯৪। সেখান থেকে তাঁরা স্কোরবোর্ডে ১৮২ তোলে। ২৫ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন পুরান আর ড্য়ারেন ব্র্যাভোর ব্যাট থেকে আসে ৩৭ বলে ৪৩। 

উইন্ডিজের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ভারত ৪৫ রানে দু’উইকেট হারিয়ে রীতিমতো চাপে পড়ে গিয়েছিল। রোহিত শর্মা (৬ বলে ৪) ও লোকেশ রাহুল (১০ বলে ১৭) দ্রুত ফিরে যাওয়ায় বড় ধাক্কা খেয়েছিল ভারত। সেখান থেকে ডিসাস্টার ম্যানেজমেন্টের কাজটা করেন শিখর ধাওয়ান ও ঋষভ পন্থ। তৃতীয় উইকেট পার্টনারশিপে তাঁরা ১৩০ রান যোগ করেন স্কোরবোর্ডে। কিন্তু ম্য়াচের ১৮.২ ওভারে পন্থ আউট হয়ে যান ৩৮ বলে ৫৮ করে। তখনই ম্যাচের মোড় অন্যদিকে ঘুরে যায়। এরমধ্যে আবার ধাওয়ান আউট হয়ে যান ১৯.৫ ওভারে। ৬২ বলে ৯২ রানের ইনিংস তাঁর থেমে যায় ম্য়াচের শেষ ওভারের শেষ বলে। ভারতের জেতার জন্য় এক বলে এক রান বাকি ছিল। নাটকীয় ম্য়াচে মণীশ পাণ্ডের ব্যাটে ভারত জয়ের রান তুলে নিতে সক্ষম হয়।

 

LIVE Cricket Score. India vs West Indies 3rd T20 Match Live Score Updates:

10.26pm: শেষ বলে জিতল ভারত। ছ’উইকেটে জয়ী টিম ইন্ডিয়া। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করল রোহিত অ্যান্ড কোং। 

10.23pm: ধাওয়ান আউট (৬২ বলে ৯২)। অ্যালেনের বলে পোলার্ডের হাতে ক্যাচ-আউট হয়ে গেলেন তিনি। ম্য়াচের মোড় ঘুরে গেল। ভারতের প্রয়োজন ১ বলে ১। ম্যাচ এখন টাই। 

10.18pm: শেষ ওভারে ভারতের দরকার আর পাঁচ রান।

10.13pm: কিমো পলের বলে বোল্ড হয়ে গেলেন পন্থ। ৩৮ বলে ৫৮ রানে থামলেন তিনি। ভারতের দরকার ১০ বলে সাত রান। ক্রিজে এলেন মণীশ পাণ্ডে।

10.10pm: ১২ বলে ভারতের প্রয়োজন আর আটটি রান। হাতে আট উইকেট। 

10.00pm: ধাওয়ানের পর এবার পন্থের হাফ-সেঞ্চুরি। জীবনের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-২০ অর্ধ-শতরানের স্বাদ পেলেন তিনি। ধাওয়ান-পন্থকে থামানোর কোনও রাস্তা খুঁজে পাচ্ছে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ। একটা ঘোরের মধ্যে রয়েছেন তাঁরা। যেখানে বল দেখা আর মারা ছাড়া কোনও কিছুই নেই। ১৬ ওভার শেষে ভারত দুই উইকেট হারিয়ে ১৫৩। জয়ের দোরগোড়ায় প্রায় চলেই এসেছে ভারত। অসাধারণ ব্যাটিং করছেন পন্থ-ধাওয়ান। অভিজ্ঞতা আর তারুণ্যের মেলবন্ধনে ভারতের জয় সময়ের অপেক্ষা।

9.46pm: আজ ধাওয়ানের ব্যাটে স্বপ্ন দেখছে ভারত। শুরু থেকেই অসাধারণ ছন্দে তিনি। করে ফেলেলেন কেরিয়ারের অষ্টম আন্তর্জাতিক টি-২০ সেঞ্চুরি। বলাই যায় গব্বর ইজ অন ফায়ার। এদিন ৩৬ বলে অর্ধ-শতরান করেছেন দিল্লির মারকুটে ওপেনার। বাঁ-হাত যেন আজ কথা বলছে তাঁর। পন্থও ভাল সঙ্গ দিচ্ছেন ধাওয়ানকে। এই জুটি ক্রিজে থেকে গেলে ভারতের জয় বেশি দূরে নেই। ১৩ ওভার শেষে ভারতের স্কোর দুই উইকেট হারিয়ে ১২০।

9.37pm: ১১ ওভার শেষে ভারতের স্কোরবোর্ডে ৯৪। ক্রিজে ধাওয়ান (৪৫) ও পন্থ (২৫)। দু’জনেই দুরন্ত ব্যাটিং করছেন। টি-২০ ক্রিকেটের মজা উপভোগ করছে চিপক। পন্থের হাতেই ভারতের ইনিংসে প্রথম ছয় এসেছে। ধাওয়ান-পন্থ দু’জনেই বাউন্ডারি লাইনে বল পাঠানোর প্রতিযোগিতায় নেমেছেন। ক্যারিবিয়ান বোলারদের মাথায় চড়ে বসছেন তাঁরা। এইভাবে চলতে থাকলে ভারতের জয় আশা করাই যায়।

9.25pm: জোড়া উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলে এখন ভারতকে জয়ের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। রোহিত-রাহুল আউটের পর দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজটা এখন ধাওয়ান আর ঋষভ পন্থের। দু’জনের খেলা দেখেই মনে হচ্ছে যে দ্রুত উইকেট দিয়ে আসবেন না তাঁরা। ন’ওভার শেষে দুই উইকেট হারিয়ে ভারতের ঝুলিতে ৬৯ রান। ধাওয়ান ৩৩ রানে ও পন্থ ১৩ রানে ব্যাট করছেন। অনেকটা পথ যেতে হবে তাঁদের। সময় কিন্তু বাঁধা তাঁদের সামনে।

9.12pm: লোকেশ রাহুল আউট! থমাসের বলে দীনেশ রামদিনের হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন রাহুল। ১০ বল খেলে ১৭ রানে ফিরলেন তিনি। রীতিমতো ভাল ব্যাট করছিলেন তিনি। কিন্তু মাথা ঠান্ডা না রেখে দিয়ে ফেললেন খোঁচা। জোড়া উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে ভারত। ম্যাচের রাশ ক্য়ারিবিয়ানদের হাতে। এখন ধাওয়ানের দায়িত্ব আরও অনেকটাই বাড়ল। আপাতত তাঁর সঙ্গী ঋষভ পন্থ। ভারত ৫.২ ওভারে দু’উইকেট হারিয়ে ৪৫ তুলল।

9.08pm: পাঁচ ওভার শেষে ভারতের স্কোর এক উইকেট হারিয়ে ৪৩। উইন্ডিজ শুরুতেই বড় শিকার করেছে। দ্বিতীয় ওভারেই তারা রোহিত শর্মার উইকেট তুলে নিয়েছেন। কিন্তু আজ দুরন্ত ছন্দে আছেন শিখর ধাওয়ান। ভাল টাচে লোকেশ রাহুলও। ধাওয়ান ২৩ রানে ও রাহুল ১৭ রানে ব্যাট করছেন। রোহিতের উইকেট হারানোর ধাক্কা কাটাতে ভারতকে ভাল সাহায্য করছেন তাঁরা।

8.54pm: রোহিত আউট! চিপকে ‘পিন ড্রপ সাইলেন্স’। আজ তাঁকেই সবচেয়ে বেশি দরকার ছিল দলের। অথচ রোহিত ফিরে গেলেন চার রান করে। মিড উইকেটে ব্রাথওয়েটের হাতে ক্যাচ আউট হয়ে গেলেন তিনি। ভারতের কাজটা কঠিন হয়ে গেলও আরও এক ধাপ। ক্রিজে ধাওয়ানের সঙ্গে লোকেশ রাহুল। ভারত এক উইকেট হারিয়ে ১৩, ২.২ ওভার শেষে।

8.52pm: ১৮২ রানের টার্গেট নিঃসন্দেহে টি-২০-তে রীতিমতো চ্যালেঞ্জিং। ভারতের দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান আর রোহিত শর্মার জন্য কাজটা সহজ নয়। কিন্তু সম্প্রতি এই দু’জন রয়েছেন দুরন্ত ফর্মে। চিপকেও ধারাবাহিকতা দেখাতে হবে তাঁদের। রোহিত-ধাওয়ানের সামনে এখন ক্যারিবিয়ান বোলারদের শাসন করা ছাড়া কোনও রাস্তা নেই। প্রথম ওভারে রোহিতের স্কোয়ার লেগে চার বুঝিয়ে দিয়েছে যে, তিনি ছেড়ে কথা বলবেন না। এক ওভার শেষে ভারত পাঁচ।

8.40pm: ভারতকে জেতার জন্য় ১৮২ রানের টার্গেট দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সৌজন্যে নিকোলাস পুরান ও ড্যারেন ব্র্যাভোর দুরন্ত ব্যাটিং। চতুর্থ উইকেট পার্টনারশিপে তাঁরা তুললেন ৮৭ রান। পুরান (২৫ বলে ৫৩) আর ব্র্যাভোর (৩৭ বলে ৪৩) ব্যাটে ভর করে ব্রাথওয়েটের মুখে হাসি ফুটল।

8.26pm: হাতে আর এক ওভার উইন্ডিজদের সামনে। ব্র্যাভো-পুরান ছিঁড়ে খাচ্ছেন ভারতীয় বোলারদের। স্কোরবোর্ডে ১৫০ পার করে গিয়েছে আগেই। ভারতীয় বোলিং কার্যত দিশাহীন দেখাচ্ছে তাঁদের সামনে। রোহিতের কপালে চওড়া ভাঁজ দৃশ্যমান।

8.12pm: ১৬ ওভার শেষে উইন্ডিজের স্কোর তিন উইকেট হারিয়ে ১৩২। নিকোলাস পুরান ও ড্যারেন ব্র্যাভো রয়েছেন ক্রিজে। কোনও বোলারকেই রেয়াত করছেন না তাঁরা। আর শেষ কয়েক’টা ওভারের পুরো ফায়দা তুলতে চাইছেন তাঁরা। সুযোগ পেলেই চার-ছয় হাঁকাচ্ছেন। ভুবনেশ্বর-পাণ্ডিয়ারা দিশা পাচ্ছেন না।

8.01pm: ফিরে দেখা! ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার বলে অবধারিত ছয় পাচ্ছিলেন শে হোপ। কিন্তু শিখর ধাওয়ানের অনবদ্য ফিল্ডিংয়ে পাঁচ রান বাঁচে ভারতের। বিসিসিআই-ও টুইট করে সেই ফিল্ডিংয়ের ভিডিও পোস্ট করল। ১৪ ওভার শেষে উইন্ডিজ তিন উইকেট হারিয়ে ১০১।

7.53pm: বোল্ড হয়ে গেলেন দীনেশ রামদিন! ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে উইকেট ছিটকে গেল রামদিনের। ১৫ বলে ১৫ রান করেছিলেন তিনি। ভারত আবারও একটা পার্টনারশিপ ভাঙতে সক্ষম হল। ব্র্যাভোর সঙ্গে ক্রিজে প্রায় জমেই যাচ্ছিলেন রামদিন। ১২.৫ ওভারে উইন্ডিজ তিন উইকেট হারিয়ে ৯৪। একটা সময় ম্য়াচের রাশ ক্যারিবিয়ানদের হাতে চলে যাচ্ছিল। কিন্তু সেটা হতে দিলেন না রোহিত। বোলার পরিবর্তনেই উইকেট পেলেন তিনি।

7.48pm:  আজ চেন্নাইয়ের হলিডে ডেস্টিনেশন চিপক। কথা বলছে ছবি

Chennai Stadium
উপচে পড়ছে চিপক (ছবি জনার্দন কৌশিক)

7.41pm: ফের চাহাল, এবার ফেরালেন হেটমায়ারকে। ২১ বলে ২৬ করে আউট হয়ে গেলেন দ্বিতীয় ওপেনার। আজ কুলদীপ যাদবের পরিবর্তে স্পিনিং বিভাগের গুরুদায়িত্ব চাহালের কাঁধেই। সেই কাজে তিনি রীতিমতো সফল। জোড়া উইকেট তুলে প্রাথমিক ধাক্কাটা ভালই দিলেন তিনি। প্রথমে হোপ, এবার হেটমায়ার। হেটমায়ার কাট মারতে গিয়ে ডিপ ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার হাতে ক্য়াচ আউট হয়ে গেলেন তিনি। ন’ওভার শেষে উইন্ডিজ ২ উইকেট হারিয়ে ৬৭।

7.26pm: শে হোপ আউট! এই পার্টনারশিপটাই ভাঙার দরকার ছিল ভারতের। হোপ-হেটমায়ারের যুগলবন্দিতে ছ’ওভারেই স্কোরবোর্ডে উঠে গিয়েছিল ৫০। কাজের কাজটা করলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। ডিপ মিড উইকেটে ওয়াশিংটন সুন্দরের হাতে ক্য়াচ আউট হয়ে গেলেন হোপ। ২২ বলে ২৪ রান করেছিলেন ক্য়ারিবিয়ান শিবিরের মারকুটে ব্যাটসম্য়ান। চারটি চার ও একটি ছয় মেরেছিলেন তিনি। উইন্ডিজ ৬.১ ওভারের শেষে এক উইকেট হারিয়ে ৫১। ক্রিজে এলেন ব্র্যাভো।

7.17pm:হেটমায়ার আর হোপ শুরুটা খারাপ করলেন না। খালিল আহমেদ আর ওয়াশিংটন সুন্দর কোনও ছাপ ফেলতে পারলেন না এখনও। দুই ক্যারিবিয়ান ওপেনারের সৌজন্য পাঁচটা চার দেখে ফেলল চিপক। চার ওভার শেষে উইন্ডিজের স্কোর ২৯। বুমরার অভাব ভালমতোই আজ টের পাবেন রোহিত। বুমরার বিষাক্ত স্লোয়ার আর ইয়র্কারগুলোই ব্যাটসম্যানদের নাস্তানাবুদ করে দেয়।

7.06pm: প্রথম ওভারই খালিল আহমেদকে তুলে দিয়েছিলেন রোহিত শর্মা। রীতিমতো লাইন-লেন্থে বল রাখলেন তিনি। একটি মাত্র রান খরচ করলেন খালিল। ক্য়ারিবিয়ান ওপেনিংয়ে সেই চেনা জুটি শে হোপ আর শিমরন হেটমায়ার। প্রথম ওভারে কোনও অঘটন ঘটেনি। দেখেই খেললেন দুই উইন্ডিজ ব্যাটসম্য়ান।

6.56pm: অস্ট্রেলিয়া উড়ে যাওয়ার আগে এটাই ভারতের শেষ ম্যাচ। টিম স্পিরিটের ছবিই বিসিসিআই টুইট করল। দেশের মাটিতে এবছরের মতো ভারতের এটাই শেষ খেলা। আজ জিততে পারলে আলাদা একটা তৃপ্তি নিয়েই ক্যাঙ্গারুর দেশের উড়ান ধরে পারবে টিম ইন্ডিয়া।

6.43pm: ধোনিহীন চিপকে ধোনির সমর্থকের দেখা মিলল

Dhoni
মাঠের বাইরে ধোনির সমর্থক (ছবি জনার্দন কৌশিক)

6.40pm: টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যারিবিয়ান ক্যাপ্টেন ব্রাথওয়েট। তাঁর মতে আগে ব্যাট করে রান ডিফেন্ড করাটাই ঠিক হবে। উইকেট পরে স্লো হয়ে যেতে পারে বলেই যুক্তি দিয়েছেন তিনি। গত ম্যাচের দলই ধরে রেখেছে উইন্ডিজ। রোহিত বললেন, তিনি জিতলে বল করতেনই আগে। কুলদীপ যাদব ও যসপ্রীত বুমরার বদলে যুজবেন্দ্র চাহাল ও ওয়াশিংটন সুন্দর এসেছেন দলে। রোহিতের মুখে এদিন অম্বতি রায়ডু ও খালিল আহমেদের প্রশংসাও শোনা গেল।

6.31pm: টস হেরে বল করবে ভারত। পিচ দেখে সুনীল গাভাস্কর জানিয়েছিলেন, তাঁর খেলা অন্য়তম দ্রুত ও বাউন্সি পিচ এটা। কিন্তু এখন অবস্থা আর আগের মতো নেই। পিচে অনেক ফাটল রয়েছে। অড বল স্কিড করতে পারে বলেই তাঁর মত। শিশির খুব একটা বড় ফ্যাক্টর হবে না বলেই জানালেন প্রাক্তন কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান।

6.20pm: আজ ক্রুনাল পাণ্ডিয়াকে ব্যাটিং অর্ডারে ওপরের দিকে আনার কথা ভাবতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট। হার্দিক পাণ্ডিয়ার দাদা অত্যন্ত কার্যকরী একজন অলরাউন্ডার। কেদার যাদবের বিকল্প হতে পারেন তিনি। কারণ কেদারের চোট-আঘাতেই জর্জরিত হয়ে পড়েন অধিকাংশ সময়। ফলে তাঁর ব্যাক-আপ হতে পারে ক্রুনাল। আসন্ন বিশ্বকাপের কথা ভেবে ভারত অনেক কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষাও করে নিতে পারে এদিন।

6.10pm:অন্যদিকে আজ ভারত অধিনায়ক রোহিতের প্রয়োজন ৬৯ রান। তাহলেই তিনি মার্টিন গাপটিলকে টপকে আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক হয়ে যাবেন। রোহিতের ব্যাট থেকে এসেছে ২২০৩ রান। কিউয়ি ব্যাটসম্যান গাপটিলের রয়েছে ২২৭১ রান। সম্প্রতি ক্য়ারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে একের পর রেকর্ড ভেঙেছেন টিম ইন্ডিয়ার হিটম্যান। বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম ফর্ম্যাটে দেশের জার্সিতে চারটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি কোহলিকে টপকে দেশের জার্সিতে সবচেয়ে বেশি রান করা টি-২০ ব্যাটসম্যানও হয়ে গিয়েছেন মুম্বইকর।  

6.00pm: ছুটির দিনে চেন্নাইয়ের কাছে বড় পাওনা আজকের ম্যাচ। সেখানকার ক্রিকেট ফ্যানেদের হতাশ হতে হয়েছিল চলতি আইপিএল-এ। দু’বছর পর নির্বাসন কাটিয়ে চেন্নাই সুপার কিংস ফিরেছিল আইপিএল-এ। কিন্ত কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচের পরেই সেখানে আর একটি ম্যাচও খেলা হয়নি। কাবেরী আন্দোলনের জেরে ধোনিদের ঘরবদল হয়েছিল। চেন্নাইয়ের হোমগ্রাউন্ড হয়ে গিয়েছিল পুণের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়াম। সেখানেই ছ’টি হোম ম্যাচ খেলেছিল হলুদ জার্সিধারীরা। ফের একবার চিপকে ক্রিকেট ম্যাচ। সৌজন্য়ে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চিপেক আজ দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ হচ্ছে। ১৪ মাস পর কোনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ এটা। ফলে হাউসফুল আশাই করা যায়।

Chennai
চেন্নাইয়ের ঘরের মাঠ চিপক স্টেডিয়াম (ছবি টুইটার)

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Live cricket score ind vs wi t20 live score

Next Story
ICC cricket world cup 2019 complete schedule: দেখে নিন ক্রিকেট বিশ্বকাপের সম্পূর্ণ সূচিWorld-Cup
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com