বড় খবর


বিরাট-মায়াঙ্কের পার্টনারশিপের রহস্য কী, ফাঁস করলেন তারকা

স্কোরবোর্ডে হাফসেঞ্চুরি ওঠার আগেই ফিরে গিয়েছিলেন লোকেশ রাহুল ও চেতেশ্বর পূজারা। সেখান থেকে অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে পার্টনারশিপে ম্যাচে দলকে ফেরান মায়াঙ্ক।

mayank agarwal
দুরন্ত হাফসেঞ্চুরি মায়াঙ্কের (বিসিসিআই টুইটার)

প্রথম দিনের শেষে ভারত ২৬৪/৫। প্রথম দিনের অবস্থান বিচারে ভারত যথেষ্ট ভাল পজিশনে, এমনটাই মনে করছেন ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। লোকেশ রাহুল ওপেনিংয়ে ব্যর্থ হলেও মায়াঙ্ক নিজের তৃতীয় হাফসেঞ্চুরি করে ফিরেছেন প্যাভিলিয়নে। খোঁচা দিয়ে বাউন্ডারির মাধ্যমেই মায়াঙ্কের আবার অর্ধশতরান প্রাপ্তি। সেই প্রসঙ্গে জাতীয় দলের তারকা ওপেনার বলে দিচ্ছেন, “পরিস্থিতি বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল। প্রথম সেশনে বল নড়াচড়া করছিল। কেমার রোচ আর জেসন হোল্ডার দারুণ লাইন লেংথ রেখে বোলিং করছিল। এমন কন্ডিশনে খেলা মোটেও সহজ নয়। বাতাসে ভালমতো আর্দ্রতা ছিল। সেখানেই বল মুভ করছিল।”

প্রথম সেশনে চ্যালেঞ্জিং কন্ডিশনেই ভারত জোড়া উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল। স্কোরবোর্ডে হাফসেঞ্চুরি ওঠার আগেই ফিরে গিয়েছিলেন লোকেশ রাহুল ও চেতেশ্বর পূজারা। সেখান থেকে অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে পার্টনারশিপে ম্যাচে দলকে ফেরান মায়াঙ্ক। তারপরেই তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে এসে বলছেন, “আমরা ভাল পজিশনে রয়েছি। বোলিংয়ের পক্ষে সহায়ক এমন পিচে ব্যাট করতে নেমে প্রথম দিন মাত্র পাঁচ উইকেট খোয়াতে হয়েছে। এতেই আমাদের দলের প্রচেষ্টা বোঝা যায়।”

আরও পড়ুন পূজারাকে ফিরিয়ে প্রথম টেস্ট উইকেট পেয়ে খুশি: কর্নওয়াল

ময়ঙ্ক বলছেন দল এখন দারুণ জায়গায় , প্রশংসা করলেন উইন্ডিজ বোলিংয়ের

এই প্রসঙ্গে মায়াঙ্কের মুখে প্রতিপক্ষ অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের প্রশংসা, “হোল্ডার দারুণ জায়গায় বলটা রাখছিল। লেংথ এবং সামান্য শর্ট অফ লেংথে ক্রমাগত বল ফেলে যাচ্ছিল। সবথেকে বড় কথা রান তোলার মতো কোনও লুজ বল প্রায় বেরোচ্ছিলই না ওর হাত থেকে।” এখানেই না থেমে মায়াঙ্কের সংযোজন, “ওকে রক্ষণাত্মক খেললেও চাপ রয়েই যাচ্ছিল। প্রথম ছয়-সাত ওভারের স্পেলে তিন-চার ওভার মেডেনই নিল। তাই একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে কার্যত বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল পরিস্থিতি।”

হোল্ডারের পাশাপাশি কর্ণওয়ালের কথাও তুলেছেন তিনি। দিনের ৯০ ওভারের মধ্যে ২৭ ওভার একাই করেছেন রাহখিম কর্ণওয়াল। সেই কথা জানিয়ে মায়াঙ্ক জানাচ্ছেন, “রাহখিম ধারাবাহিকভাবে ভাল বল করছিল। জায়গা তৈরি করে সেই এরিয়ায় ক্রমাগত বল রেখে যাচ্ছিল ও। ওর বোলিংয়ে রান তোলা মোটেই সহজ নয়।”

যে বিরাট-মায়াঙ্ক পার্টনারশিপ ভারতকে ম্যাচে ফেরাল, সেই জুটির কথা বলতে গিয়ে মায়াঙ্কের বক্তব্য, “আমরা ধীরে ধীরে সময় নিয়ে খেলছিলাম। নিজেদের মধ্যে একজনের বড় স্কোর তোলা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ছিল।”

Read the full article in ENGLISH

Web Title: Mayank agarwal reveals the secret behind successful partnership between him and virat kohli

Next Story
বেন স্টোকসকে নিজের ক্লাবে পেয়ে উচ্ছ্বসিত হ্য়ারি কেনBen Stokes becomes official Tottenham Hotspur fan
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com