scorecardresearch

বড় খবর

শেওয়াগের মত স্বাধীনতাই পাননি! অভিমানে, আক্ষেপে টিম ম্যানেজমেন্টকে তুলোধোনা মুরলি বিজয়ের

ভারতীয় ক্রিকেটে একের পর এক বিস্ফোরণ ঘটিয়েই চলেছেন মুরলি বিজয়

শেওয়াগের মত স্বাধীনতাই পাননি! অভিমানে, আক্ষেপে টিম ম্যানেজমেন্টকে তুলোধোনা মুরলি বিজয়ের

২০১৪-য় ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজের সর্বোচ্চ রান স্কোরার হয়েছিলেন। মুরলি বিজয় বর্তমানে অনেকটাই পিছিয়ে গিয়েছেন। একসময়ের ওপেনিং পার্টনার বীরেন্দ্র শেওয়াগের সঙ্গে নিজের তুলনা করে এবার বিস্ফোরণ ঘটালেন।

৩৮ বছরের তারকা ব্যাটসম্যান স্পোর্টসস্টার-এ বলেছেন, “সত্যি কথা বলতে সচেতনভাবে বীরেন্দ্র শেওয়াগ যেরকম স্বাধীনতা পেয়েছেন জাতীয় দলে, সেরকমটা আমি কখনও পাইনি। আমাকে যদি ওরকমভাবে ব্যাকিং করা হত, খোলামেলা কথা বলতে পারতাম, আমিও চেষ্টা করতে পারতাম।”

আরও পড়ুন: নবান্নে ফের দিদির সাক্ষাতে দাদা! সৌরভের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে তুঙ্গে জল্পনা

“সত্যি কথা বলতে, দলের সমর্থন ভালো কেরিয়ারের অন্যতম ফ্যাক্টর। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দলের হয়ে পারফরম্যান্সের অনেকটাই নির্ভর করে দলের সকলের সমর্থনের ওপর। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট উচ্চপর্যায়ের টুর্নামেন্ট। প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকে। বিভিন্নভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার খুব বেশি সুযোগ পাওয়া যায় না।”

শেওয়াগের মত গ্রেট তারকার ওপেনিং পার্টনার হিসাবে খেলার অভিজ্ঞতাও জানিয়েছেন তিনি। বলেছেন, “শেওয়াগ যখন থাকত, নিজের সহজাত প্রবৃত্তি, খেলার ধরণ নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে দাঁড়াত। তবে ও যেভাবে স্বাধীনতা পেয়ে ব্যাটিং করে যেত, সেটা দেখা রোমহর্ষক অভিজ্ঞতা।”

“একমাত্র ও-ই ওরকম ব্যাট করতে পারত। আমার কখনও মনে হয়নি ওঁর মত অন্য কেউ ব্যাট করতে পারে। ও জাতীয় দলের হয়ে যা করেছে, সেটা অবিশ্বাস্য। সামনে থেকে দেখে মনে হয়েছে, ও সকলের থেকে আলাদা। ওঁর সঙ্গে মোলাকাত হওয়ায় আমি ধন্য। ওঁর ক্রিকেটীয় দর্শন বেশ পরিষ্কার- বল দেখো এবং হিট করো। ১৪০-১৪৫ কিমির বল ফেস করার সময়ে গান গাইত। এমন একটা জিনিস প্রত্যক্ষ করতাম, যা সাধারণ নয়।”

আরও পড়ুন: আম্বানির কাছে মেয়েদের IPL বিক্রি করল BCCI! কোটি কোটি টাকার হদিশ দিলেন জয় শাহ

২০১৮-য় শেষবার জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন মুরলি বিজয়। দেশের হয়ে ৬১ টি টেস্ট, ১৭ টি ওয়ানডে এবং ৯টি টি২০ খেলেছেন। তিন ফরম্যাটে রানসংখ্যা যথাক্রমে ৩৯৮২, ৩৩৯ এবং ১৬৯ রান। ২০১৮-য় শেষবার জাতীয় দলের হয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচে খেলেছেন মুরলি।

টেস্টে ১২টি শতরানের পাশাপাশি ১৫টি হাফসেঞ্চুরিও রয়েছে তারকার। প্ৰথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৩৫ ম্যাচে ৯২০৫ রান করেছেন ২৫টি সেঞ্চুরি, ৩৮টি হাফসেঞ্চুরি সমেত। আইপিএলেও আর দেখা যায় না তাঁকে। কেবলমাত্র তামিলনাড়ুর হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে এবং টিএনপিএল-এ অংশ নেন তারকা।

Read the full article in ENGLISH

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Murali vijay laments for not getting backing from team management as virender sehwag