বড় খবর

হাসপাতালে মরণাপন্ন মেয়ে, খেলা ফেলে ছুটলেন আফ্রিদি

চলতি টুর্নামেন্টে খেলতে এসে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন আফগান পেসার নভীন উল হকের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে। মাঠেই মহম্মদ আমেরের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন নভীন।

মেয়ে অসুস্থ। হাসপাতালে ভর্তি। তাই তড়িঘড়ি লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ খেলার মাঝেই পাকিস্তানে ফিরে গেলেন শাহিদ আফ্রিদি। শ্রীলঙ্কা ছাড়ার আগে আফ্রিদি টুইটারে জানিয়েছিলেন, ব্যক্তিগত জরুরিকালীন প্রয়োজনে দেশে ফিরে যাচ্ছেন তিনি। কয়েক দিনের মধ্যেই ফিরে টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন তিনি।

কেন তিনি হঠাৎ দেশে ফিরে গেলেন, তা প্রথমে খোলসা করে জানাননি পাক সুপারস্টার। পরে লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডল থেকে কারণ জানানো হয়। একটি ছবি পোস্ট করা হয়। যেখানে দেখা যায়, আফ্রিদির কন্যা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। আর উদ্বিগ্ন হয়ে তাঁকে দেখছেন পাক তারকা। ছবির ক্যাপশনে লেখা হয়, “তোমরা কি জানো, কেন আফ্রিদি দেশে ফিরে গিয়েছে? ওঁর মেয়ে হাসপাতালে ভর্তি। দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।”

এর আগে আফ্রিদি ফ্লাইট মিস করে প্রথম ম্যাচে থাকতে পারেননি। তবে দ্বীপরাষ্ট্রে পৌঁছে আফ্রিদি গল দলের নেতৃত্বের দায়ভার তুলে নেন। যাইহোক, হঠাৎ দেশে ফিরে যাওয়ায়, আফ্রিদিকে ফের একবার অল্প সময়ের জন্য শ্রীলঙ্কায় পৌঁছে কোয়ারেন্টাইন পর্ব কাটাতে হবে। তবে ৩ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন কাটাতে হবে না তাঁকে। সেই সঙ্গে কোভিড পরীক্ষাও হবে তাঁর।

এর আগে চলতি টুর্নামেন্টে খেলতে এসে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন আফগান পেসার নভীন উল হকের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে। মাঠেই মহম্মদ আমেরের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন নভীন। পরে সৌজন্য সাক্ষাতের সময় আফ্রিদি একহাত নেন আফগান তারকাকে।

বিতর্কের ঝড় বয়ে গিয়েছিল মাঠেই আফগান ও পাক ক্রিকেটারদের এই দ্বৈরথ দেখে। পরে নিজের বক্তব্যের সমর্থনে আফ্রিদি টুইটারে লেখেন, “তরুণ পেসারের জন্য আমার বার্তা খুব স্পষ্ট ছিল- খেলাটা খেল, কিন্তু মাঠে গালিগালাজে জড়িয়ে পড়ো না। আফগানিস্তান দলেও আমার বন্ধুরা রয়েছে। ওদের সঙ্গে আমার বেশ আন্তরিক সম্পর্ক। নিজের সতীর্থ এবং প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের সম্মান জানানো খেলার স্পিরিটের জন্য ভাল।”

আফ্রিদির লম্বা আত্মপক্ষ সমর্থনকারী পোস্টের পর ফের একবার তোপ দাগলেন আফগান পেসার। সরাসরি জানিয়ে দিলেন, “আগে উপদেশ নিতে প্রস্তুত থাকো তারপর শ্রদ্ধা জানাতে শেখো। ক্রিকেট জেন্টলম্যান্স গেম। তবে কেউ যদি বলে তোরা সবাই আমাদের পায়ের তলায় চিরদিন থাকবি, তাহলে স শুধু আমাকে নয়, আমাদের সবাইকেই অপমান করে বসে। আগে সম্মান দা-ও। তারপর সম্মান পাওয়ার কথা ভাবো।”

Read the full article in ENGLISH

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Shahid afridi returns pakistan after daughter gets admitted to hospital

Next Story
মোদির কৃষি বিলের বিরুদ্ধে কেকেআরের শুভমান, প্রতিবাদ সমর্থন করেই বার্তা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com