বড় খবর

ঘাড় ধরে টিভি চ্যানেল থেকে বিতাড়িত! ভয়াবহ অপমানে কুঁকড়ে গেলেন শোয়েব, দেখুন ভিডিও

টিভি চ্যানেলে থেকে সরাসরি বের করে দেওয়া হল শোয়েব আখতারকে। টিভি সঞ্চালিকা শোয়েবকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন।

বড়সড় বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন শোয়েব আখতার। সঞ্চালক সরাসরি শোয়েবকে টিভি চ্যানেলের শো থেকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিলেন। পিটিভি-র ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবেও কাজ করছিলেন শোয়েব। বিতর্কের পরে পদত্যাগ করে টিভি চ্যানেলের সেট ছাড়েন তারকা।

পরে শোয়েব আখতার জানিয়ে দেন, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের দুরন্ত জয়ের পরে টিভি চ্যানেলের সেটে তাঁর সঙ্গে তীব্র দুর্ব্যবহার করেন সঞ্চালক। তারপরেই জাতীয় দলের হয়ে ৪৬ টেস্ট এবং ১৬৩ ওয়ানডে ম্যাচ খেলা শোয়েব মাইক্রোফোন খুলে সেট ছেড়ে বেরিয়ে যান। এরপরে সঞ্চালক নৌমান নিয়াজ শোয়েবকে পুনরায় কল করার চেষ্টা করেননি। যথারীতি শোয়েবের অনুপস্থতিতে শো চালিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে হরভজন-আমেরের টুইটযুদ্ধ! পাক তারকার ফিক্সিং কাণ্ড খুঁচিয়ে দিলেন টার্বুনেটর

শোয়েব-কাণ্ড সেই চ্যানেলের ক্রিকেট শো-য়ে হাজির থাকা স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস, ডেভিড গাওয়ার, রশিদ লতিফ, আকিব জাভেদ এমনকি পাকিস্তান মহিলা দলের ক্যাপ্টেন সানা মিরদেরও যথেষ্ট নাড়িয়ে দিয়ে যায়।

শোয়েব অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের সমবেদনা পেয়েছেন। নেটিজেনদের দাবি, নৌমান নিয়াজ সরাসরি শোয়েবের কাছে ক্ষমা চেয়ে ঝামেলা মিটিয়ে নিক। উল্লেখ্য, ক্রিকেট মহলে ইতিহাসবিদ হিসাবে আলাদা পরিচিতি রয়েছে নৌমান নিয়াজের। পিটিভি-র স্পোর্টস বিভাগেরও প্রধান তিনি।

শোয়েবের সঙ্গে নৌমান নিয়াজের তর্কাতর্কি এবং শেষ পর্যন্ত তারকা ক্রিকেটারের পদত্যাগের ভিডিও ক্লিপ আপাতত ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। নিজের অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য শোয়েব শেষ পর্যন্ত টুইটারে পুরো বিষয়টি খোলসা করেন।

“সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ক্লিপ শেয়ার করা হচ্ছে। তাই আমার বিষয়টি স্পষ্ট করা উচিত। নোমান আমাকে আপত্তিকর, রূঢ়ভাবে চ্যানেল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এটা যথেষ্ট বিব্রতকর। বিশেষ করে সেটে যখন স্যার ভিভ রিচার্ডস, ডেভিড গাওয়ারের মত কিংবদন্তিদের সঙ্গেই উপস্থিত ছিলেন আমার সমসময়ের তারকারা এবং লাখো লাখো সমর্থক তা দেখছেন।”

এমনটা লিখে অন্য টুইটে শোয়েব আবার লেখেন, “সকলকে বিব্রত হওয়ার থেকে বাঁচানোর জন্যই নোমানকে বলি, স্রেফ ওঁর সঙ্গে মজা করেছিলাম। সেই সময় ওঁর-ও উচিত ছিল পাল্টা ক্ষমা চেয়ে নিয়ে শো চালিয়ে নিয়ে যাওয়া। সেটা উনি করতে অস্বীকার করার পরে, আমার কাছে অন্য কোনও অপশন ছিল না।”

সমস্যার সূত্রপাত, সঞ্চালকের জিজ্ঞাসা করা একাধিক প্রশ্নের ক্ষেত্রে মতামত না দিয়েই শোয়েব শো-এ হ্যারিস রউফের খুল্লামখুল্লা প্রশংসায় মগ্ন ছিলেন তারকা। পিএসএলের লাহোর কালান্ডার্স কীভাবে হ্যারিস রউফকে বড় মঞ্চের জন্য প্রস্তুত করেছে, তা নিয়েই টানা বলে চলেছিলেন শোয়েব। সেই সময় নৌমান বারবার থামাতে চাইলেও শোয়েব কার্যত পাত্তাই দেননি সঞ্চালককে।

তারপরেই ক্ষিপ্ত হয়ে নৌমান জানিয়ে দেন, সঞ্চালকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে সীমা লঙ্ঘন করেছেন শোয়েব। তিনি যেন শো ছেড়ে চলে যান। টিভি চ্যানেলের বিজ্ঞাপনী বিরতির পর আরও নাটকের অবতারণা ঘটে। সেই সময় শোয়েব পাল্টা দাবি করতে থাকেন, নৌমান যেন ক্ষমা চেয়ে বিষয়টি মিটিয়ে নেন। কিছুক্ষণ পরেই শোয়েব বাকি সহ বিশ্লেষকদের জানিয়ে দেন তিনি পদত্যাগ করছেন। “ক্ষমাপ্রার্থনা করে জানাতে চাই, আমি পিটিভি স্পোর্টস থেকে এখনই পদত্যাগ করছি। কারণ গোটা দেশের সামনে আমাকে তীব্রভাবে অপমানিত হতে হয়েছে।” বলে টিভি সেট ছাড়েন স্পিডস্টার।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Shoaib akhtar leaves channel midway after host asked him to leave video

Next Story
নিজের শহরেই মোমের মূর্তি হয়ে যাচ্ছেন কোহলি
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com