scorecardresearch

বড় খবর

IPL 2019: আজ কোটলায় হতাশ হতে পারেন ফ্যানেরা, কিন্তু কেন?

আর কয়েক ঘণ্টা পরেই দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় মুখোমুখি কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং ঘরের টিম দিল্লি ক্যাপিটালস। দীনেশ কার্তিক বনাম শ্রেয়স আয়ার। কিন্তু আজ মাঠে আসা দর্শকদের হতাশ করতে পারে কোটলার পিচ।

IPL 2019: আজ কোটলায় হতাশ হতে পারেন ফ্যানেরা, কিন্তু কেন?
IPL 2019: আজ কোটলায় হতাশ হতে পারেন ফ্যানেরা, কিন্তু কেন? (ছবি-টুইটার)

আর কয়েক ঘণ্টা পরেই দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় মুখোমুখি কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং ঘরের টিম দিল্লি ক্যাপিটালস। দীনেশ কার্তিক বনাম শ্রেয়াস আয়ার। কিন্তু আজ মাঠে আসা দর্শকদের হতাশ করতে পারে কোটলার পিচ। এমনটাই ইঙ্গিত ক্রিস মরিসের। দক্ষিণ আফ্রিকার এই মার্কি প্লেয়ার এদিনই প্রথম শ্রেয়সদের হয়ে আইপিএল টুয়েলভে নামছেন।

মরিস বলছেন শেষ এক বছরে কোটলার পিচ অনেক মন্থর হয়ে গিয়েছে। ফলে ব্যাটে বড় রানের প্রত্যাশা সেভাবে নেই। তিনি জানিয়েছেন, “আমার মনে হয় শেষ এক বছরে এই মাঠে সবচেয়ে বড় পরিবর্তন একটাই। মাঠ বেশ কিছুটা মন্থর হয়ে গিয়েছে। অতীতে উইকেট অনেক দ্রুত ছিল। কিন্তু এখন বল ঘুরছে আর থামছে।” প্রাক ম্যাচ সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই মত তাঁর।

আরও পড়ুন: IPL 2019: ‘এটা আইপিএল, ক্লাব ক্রিকেট নয়’, বললেন বিরাট

বিসিসিআই ফ্র্যাঞ্চাইজিদের আগেই নির্দেশ দিয়েছিল যে, আইপিএলে স্পোর্টিং উইকেট করার জন্য়। কিন্তু কোটলার পিচ প্রশ্ন তুলেছে। মরিসের মতো কোটলার পিচ দেখে কিছুটা হতবাক কেকেআরের স্টার ব্যাটসম্যান রবিন উথাপ্পা। তিনি জানালেন,”পিচটা অন্যরকমই লাগল। দিল্লিতে সাধারণত এররম উইকেট দেখি না।”

উথাপ্পা এখানেই থামেননি। তিনি আইপিএলের পিচ কীরকম হওয়া উচিত সে বিষয়েও মন্তব্য করেছেন। তিনি জানালেন, ” দর্শকরা টি-২০ ক্রিকেট দেখতে আসেন বিনোদনের জন্য়। তাঁদের পক্ষে সুখকর অভিজ্ঞতা হবে না। কিন্তু ক্রিকেটারদের কাছে এরকম উইকেটে খেলা অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক।  বৃহত্তর স্বার্থের কথা ভেবে বলব, ব্যালেন্স থাকা উচিত একটা। মন্থর উইকেট ঠিক আছে। টার্ন থাকা প্রয়োজন। চেন্নাইয়ের মাঠ টি-২০ ক্রিকেটের আদর্শ নয়। আশা করি ভবিষ্য়তে আমরা টি-২০ সহায়ক উইকেট পাব।”

যদিও ইতিমধ্যেই সব টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। হাউসফুল হবে বলেই প্রত্যাশা। ঋষভ পন্থ আর আন্দ্র রাসেল ঝড়ের জন্যই দর্শকরা আসবেন। কিন্তু প্রশ্ন একটাই আদৌ কি তাঁরা আইপিএলের মজাটা পাবেন? উত্তর দেবে সময়। গত ম্যাচে কোটলায় দিল্লি প্রথমে ব্যাট করে চেন্নাইকে ১৪৮ রানের টার্গেট দিয়েছিল। অবশ্যই লো-স্কোরিং ম্যাচ ছিল সেটা। জবাবে ছ’উইকেটে জিতে যায় সিএসকে।

Read full stories in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sluggish feroz shah kotla not good news for viewers players88404