scorecardresearch

বড় খবর

সৌরভ হয়ত CAB প্রেসিডেন্ট নন! হঠাৎ প্লট ট্যুইস্টে বেনজির জল্পনায় বাংলার ক্রিকেট

সৌরভের ক্রিকেটীয় ভবিষ্যৎ ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে, কোথায় যাবেন তিনি

সৌরভ হয়ত CAB প্রেসিডেন্ট নন! হঠাৎ প্লট ট্যুইস্টে বেনজির জল্পনায় বাংলার ক্রিকেট

তাঁর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা এখন গোটা দেশ জুড়ে। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় টি২০ বিশ্বকাপের পরেই ট্রেন্ডিং। বোর্ড সভাপতি হিসেবে তাঁর অপসারণ, সৌরভকে বোর্ডের তরফে আইসিসিতে যেতে বাধাদান, ভারতীয় ক্রিকেটে বিতর্কের দাবানল জ্বালিয়ে দিয়েছে। রাজনীতি মিলে মিশে একাকার হয়ে গিয়েছে। বিজেপির বিরুদ্ধে একযোগে আক্রমণ শানিয়েছে সমস্ত বিরোধী দল। এর মধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে প্রকাশ্যে আবেদন করায় বিষয়টি অন্য মাত্রা পেয়েছে।

তবে এর মধ্যেই সৌরভের পরবর্তী গন্তব্য হিসাবে উঠে এসেছিল সিএবির মসনদ। সৌরভ নিজেই স্বীকার করেছিলেন নির্বাচনে জিতে সিএবি সভাপতি হতে চান। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সিএবি-র নির্বাচনের বিষয়ে মুখ খুলেছিলেন। ঘটনা হল, সিএবির অন্দরমহলের খবর, বিরোধী পক্ষ এবার মনোনয়ন জমা না-ও দিতে পারে। শনিবারই সম্ভবত সিএবিতে সভাপতি পদে মনোনয়ন জমা দেবেন। তবে তাঁর কোনও বিরোধী থাকছে না নির্বাচনে।

আরও পড়ুন: সৌরভকে নিয়ে এখনও দাবানল ভারতীয় ক্রিকেট! অবশেষে মহারাজকে নিয়ে মুখ খুললেন নতুন প্রেসিডেন্ট বিনি

ইলেকশন না হলে সিলেকশন হলেও কি সৌরভ সিএবির প্রেসিডেন্ট হিসেবে গদিতে বসবেন, সেই প্রশ্নই এখন ঘোরাফেরা করছে বঙ্গ ক্রিকেটের অন্দরমহলে। তিনি প্রকাশ্যে নির্বাচনের কথা বলায়, নির্বাচন ছাড়াই সিএবি সভাপতি হিসেবে সমালোচনার মুখোমুখি হতে পারেন তিনি।

ইলেকশন না হয়ে যদি সিলেকশন হয়, সেক্ষেত্রে সৌরভ সভাপতি না-ও হতে পারেন। নির্বাচন না হওয়ার সম্ভবনা প্রবল। বরং দুই পক্ষের মিলিজুলি প্যানেল গড়া হতে পারে সিএবি প্রশাসনে। সেরকম পরিস্থিতির উদ্ভব হলে, স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম ভেসে উঠছে সিএবির প্রেসিডেন্ট হিসেবে। এর আগে সিএবি প্রশাসনেই ছিলেন সৌরভের দাদা। সচিব হিসেবে বেশ কিছুদিন দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসেবে নাম ভাসছে বিশ্ব মজুমদারের। সৌরভের নিজেরও এই বিষয়ে আপত্তি থাকার কথা নয়।

আরও পড়ুন: সৌরভের বিদায়ের দিনেই বোর্ডে ঠাঁই বাংলার তারকা প্রশাসকের! দেওয়া হল বিরাট দায়িত্ব

সিএবির শেষ কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন নরেশ ওঝা। তিনি কোষাধ্যক্ষ হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন। এমনটাই খবর। বর্তমান কমিটির কোষাধ্যক্ষ দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম-ও রয়েছে এই পদের জন্য দৌড়ে। সম্ভাব্য সচিব হতে পারেন প্রবীর চক্রবর্তী। যুগ্ম সচিব হিসেবে দায়িত্ব চালিয়ে যেতে পারেন দেবব্রত দাস।

সবমিলিয়ে সৌরভের প্রশাসনিক ভবিষ্যৎ কেমন হতে চলেছে, তা ঠিক হয়ে যাবে আগামী সপ্তাহেই। সেদিকেই আপাতত তাকিয়ে ক্রিকেট মহল।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sourav ganguly may opt not to be cab president after bcci exit