জিতলে চাকরি থাকবে, হারলে ছাঁটাই করে দেবে: স্টিভ কোপেল

কোচ বদল করতে এটিকে দ্বিতীয়বার ভাবে না। লোপেজ হাবাস থেকে হোসে মোলিহা হয়ে টেডি শেরিংহ্য়াম। গতবার রবি কিন ও অ্যাশলে ওয়েস্টউডের জুটিকেও পরখ করে দেখে নিয়েছে এটিকে। এবার ব্যাটন কোপেলের হাতে।

By: Kolkata  September 23, 2018, 2:44:49 PM

ইন্ডিয়ান সুপার লিগে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন দল অ্যাটলেটিকো দে কলকাতা। কিন্তু গতবার তাদের পারফরম্যান্স ছিল অত্যন্ত হতশ্রী। ১৮ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট পেয়ে ন নম্বরে শেষ করেছিল এটিকে। আইএসএল ফাইভের দায়িত্বে এসেছেন স্টিভ কোপেল। ক্রিস্টাল প্যালেস, ম্যাঞ্চেস্টার সিটির দায়িত্ব সামলানো কোপেল ২০১৬-তে কেরল ব্লাস্টার্সকে রানার্স করিয়েছিলেন।

কোচ বদল করতে এটিকে দ্বিতীয়বার ভাবে না। লোপেজ হাবাস থেকে হোসে মোলিহা হয়ে টেডি শেরিংহ্য়াম। গতবার রবি কিন ও অ্যাশলে ওয়েস্টউডের জুটিকেও পরখ করে দেখে নিয়েছে এটিকে। এবার ব্যাটন কোপেলের হাতে। আপাতত দু’বছরের জন্যই তাঁর সঙ্গে চুক্তি হয়েছে বলে খবর। কোপেল কিন্তু এটা জেনেই এই চ্যালেঞ্জটা নিয়েছেন যে, তাঁর চাকরির কোনও স্থায়ীত্ব নেই এখানে। হারলেই ছাঁটাই হতে হবে তাঁকে। এই নিয়ে কোনও চাপে নেই তিনি। ষাটোর্ধ্ব ব্রিটিশ কোচ বলেই দিলেন, “এটিকে-র কোচ হওয়াটা একেবারেই বাড়তি চাপের নয়। জিততে পারলেই আমার চাকরি থাকবে। হারলেই ছাঁটাই হতে হবে। আমি সই করার আগেই বিষয়টা জানি। সুতরাং চ্যালেঞ্জটা নিয়েই কাজটা করছি। একটা দুর্দান্ত মরসুম কাটানোর জন্য যা যা প্রয়োজন, আমি করব।” কলকাতায় আইএসএল মিডিয়া ডে-তে একেবারে অকপট কোপেল। তিনি আরও বললেন, “আমার কোচিং কেরিয়ারে কখনও বেশি কিছু নিয়ে ভাবি না। সবসময় পরের ম্যাচেই আমার ফোকাস থাকে। অবশ্যই চাই কোনও ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্ক দীর্ঘমেয়াদি হোক। কিন্তু এসব নিয়ে ভাবি না। কারণ এটা আমার হাতে থাকে না।

Coaches ISL নর্থ ইস্টের কোচ এলকো স্যাটোরি ও জামশেদপুরের কোচ সিজার ফেরান্দোর কাঁধে হাত দিয়ে কোপেল

আরও পড়ুন: এবার এটিকে-তে কারা খেলছেন? কী বললেন নতুন কোচ কোপেল!

কোপেল জানিয়েছেন যে, আইএসএল থেকে এখনও পর্যন্ত একটাই শিক্ষা নিয়েছেন তিনি। ধারাবাহিকতা আর মানসিক স্থিরতার সঙ্গেই শৃঙ্খলাবদ্ধ হয়েই এগোতে হয়। ছ’মাস ব্যপী আইএসএল নিয়ে কোপেল বললেন যে, এই ফর্ম্যাটটা তাঁর কাছে কখনও ধীর আবার কখনও খুব গতিময় বলে মনে হচ্ছে। নভেম্বূরে ২০ দিন অন্তর একটা করে খেলার ব্যাপারটাও মাথায় রেখেছেন তিনি। তবে সবটাই নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন। কোপেলের মতে গতবারের কোয়ালিফাই করে যাওয়া সব টিমই এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দাবিদার। তাঁর সংযোজন, “চেন্নাই গতবারের চ্যাম্পিয়ন। ওরা দলটাকে ধরে রেখেছে। এটা পজিটিভ দিক। অন্যদিকে বেঙ্গালুরু ও গোয়াও পসেসনের দিক থেকে এগিয়ে। পুণেতেও বেশ কিছু ভাল খেলোয়াড় আছে। কিন্তু আমাদের কাছে এগুলো কোনওটাই সমস্য়ার নয়। এটিকে একেবারে নতুন করে তৈরি হয়েছে। আশা করব লিগ তালিকায় প্রথম দিকে থাকতে।”

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Sports News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Steve coppell of atk not bothered about his job

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
আবহাওয়ার খবর
X