বড় খবর

কৃতজ্ঞতায় গলা বুজে এল শেওয়াগের! সৌরভকে দিলেন হৃদয় উজাড় করা বার্তা

শেওয়াগের ৩০৯ এবং শচীনের ১৯৪-এর সৌজন্যে ভারত স্কোরবোর্ডে রানের পাহাড় গড়ে ৬৭৫/৫। জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৪০৭ রানে আউট হয়ে যায়।

১৭ বছর হয়ে গেল। ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সফল ইনিংস এসেছিল এই দিনেই। বীরেন্দ্র শেওয়াগের কাছে এই ইনিংস বরাবরই স্পেশ্যাল। কারণ এই দিনেই তিনি টেস্টে কেরিয়ারের প্রথম ত্রিশতরান হাঁকিয়েছিলেন। টেস্টে প্রথম ভারতীয় হিসাবে শেওয়াগই প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকান।

মুলতানে আকাশ চোপড়ার সঙ্গে ইনিংসের সূচনা করতে নেমে শেওয়াগ ৩৭৫ বলে ৩০৯ কর গিয়েছিলেন। টেস্টেও স্ট্রাইক রেট ছিল ৮২.৪০। ৫৩১ মিনিট ক্রিজে কাটিয়ে পাক বোলারদের তুলোধোনা করেছিলেন নজফগরের নবাব। ৩৯টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে এই রেকর্ড গড়েন।

আরো পড়ুন: ভুল ক্রিকেটাররা পেলেন ম্যাচ-সিরিজ সেরার পুরস্কার! ক্ষোভে গর্জে উঠলেন কোহলি

১৭ বছর আগের সেই রেকর্ড সেলিব্রেট করছেন শেওয়াগ। সেই কারণেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, “২৯ মার্চ আমার কাছে সবসময় স্পেশ্যাল দিন। টেস্টে প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে এই নজির গড়ার সৌভাগ্য হয়েছিল আমার। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মুলতানের মাটিতেই সেই কীর্তি গড়ায় ব্যাপারটাই আলাদা ছিল। প্রয়াত ডিন জোন্স ধারাভাষ্য দিচ্ছিলেন। কাকতালীয় ভাবে ঠিক চার বছর পরে এই দিনেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চেন্নাইয়ে ৩১৯ করি।”

শেওয়াগের এই পোস্ট মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যেই লাইকের সংখ্যা ১ মিলিয়ন পেরিয়ে যায়। এই পোস্ট নজরে পড়ে যায় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়েরও। যিনি পাক ট্যুরে সেই সময় ক্যাপ্টেন ছিলেন। সৌরভ শেওয়াগের সেই পোস্টেই কমেন্ট করেন, “বীরু, তোমার সঙ্গে খেলার সৌভাগ্য আমার হয়েছিল। এই ইনিংসটা আরো কত মন ভরিয়ে দেওয়া ইনিংস!”

প্রাক্তন ক্যাপ্টেনের কাছ থেকে এমন কমেন্ট পেয়ে নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি শেওয়াগ। মহারাজের কমেন্টেই নিচেই পাল্টা তিনি কমেন্ট করেন, “দাদা, তোমার নেতৃত্বে খেলার সৌভাগ্য হয়েছিল আমার। আমাকে সবসময় সাপোর্ট করার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। আন্তরিকভাবে তোমার সুস্থতা কামনা করি।”

সেই ঐতিহাসিক সিরিজের প্রথম দুই টেস্ট পিঠে ব্যথার জন্য খেলতে পারেননি সৌরভ। তাঁর অনুপস্থিতিতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রাহুল দ্রাবিড়। রাওয়ালপিন্ডিতে সিরিজ নির্ণায়ক টেস্টে নামেন সৌরভ।

শেওয়াগের ৩০৯ এবং শচীনের ১৯৪-এর সৌজন্যে ভারত স্কোরবোর্ডে রানের পাহাড় গড়ে ৬৭৫/৫। জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৪০৭ তোলে। এরপরে দ্বিতীয় ইনিংসে ফলোণ হজম করার পরে পাকিস্তান ২১৬ রানে অলআউট হয়ে যায়। ভারত ইনিংস এবং ৫২ রানে টেস্ট জিতে নেয়। শেওয়াগ পরের তিন ইনিংসে করে ৩৯, ৯০ এবং ০। ভারত ২-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জিতে ফিরেছিল।

ঠিক ৪ বছর পরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে শেওয়াগ ৩১৯ করেন চেন্নাই টেস্টে। ২০১৬ সালে দ্বিতীয় ভারতীয় হিসাবে টেস্টে ট্রিপল সেঞ্চুরির কীর্তি গড়েন করুণ নায়ার। শেওয়াগ ছাড়াও ব্রায়ান লারা, ক্রিস গেইল এবং ডন ব্র্যাডম্যানের জোড়া ট্রিপল সেঞ্চুরি করার নজির রয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Virender sehwag expresses his gratitude towards captain sourav ganguly for backing him up

Next Story
১ ওভারে ৬ ছক্কা! ব্যাটে আগুন ঝরিয়ে রেকর্ড বইয়ে উঠলেন তারকা অলরাউন্ডার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com