scorecardresearch

বড় খবর

EPL, লা লিগা থেকে কোথায়, কতটা পিছিয়ে ISL! তুলনা জানলে গর্বিত হবেন ভারতীয়রা

আইএসএল দ্রুত ফুটবল বিশ্বে জনপ্রিয়তা অর্জন করছে। তবে প্ৰথমসারির লিগগুলো থেকে অনেকটাই পিছিয়ে আইএসএল।

আইএসএলের উদ্ভাবন ভারতীয় ফুটবলের মানচিত্রটাই বদলে দিয়েছে। দেশের ফুটবলে আরও প্রতিদ্বন্দিতা হাজির করেছে আইএসএল। আবির্ভাবের মরশুম থেকেই আইএসএলকে দেশের সেরা লিগের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে। আইলিগ হয়ে গিয়েছে দ্বিতীয় সারির।

২০১৩-য় আইলিগ শুরু হয় আট দলকে নিয়ে। এখন স সম্প্রসারণের পরে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১-এ। গত সিজনে হায়দরাবাদ চ্যাম্পিয়ন হয় ফাইনালে কেরালা ব্লাস্টার্সকে পেনাল্টি শ্যুট আউটে হারিয়ে।

আরও পড়ুন: ISL জিততে বাগানের বড় বাজি! ফেরান্দোর ফর্মেশনে এবার আগুন ছোটাবেন ২৩ বছরের এই তারকা

কয়েক বছর আগেই আইএসএল ওয়ার্ল্ড লিগ ফোরামে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। যে ফোরামে রয়েছে লা লিগা, বুন্দেশলিগা, ইপিএলের মত শীর্ষস্থানীয় ফুটবল লিগ। খেলার মানে না হলেও দর্শক উপস্থিতির বিচারে আইএসএল টেক্কা দিচ্ছে বিশ্বের তাবড় তাবড় লিগকে। ভবিষ্যতে ম্যাচ পিছু দর্শক উপস্থিতি আরও বাড়বে বলেই ধারণা আয়োজকদের।

বর্তমানে লিগের সময়সীমাও সম্প্রসারণ ঘটিয়ে পাঁচ মাসের উইন্ডোতে আয়োজিত হচ্ছে। নভেম্বরে লিগ শুরু হওয়ার পরে আইএসএল চলে মার্চ মাস পর্যন্ত। হোম এবং এওয়ে ফরম্যাটে লিগের ম্যাচ সংখ্যাও অনেক বেড়েছে।

এএফসির স্বীকৃত এই এই বিনোদনমূলক ফুটবল লিগ। ব্লেচার রিপোর্টের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশ্বের সেরা লিগগুলির মধ্যে বিচারে ২৬ নম্বরে রয়েছে আইএসএল। প্রসঙ্গত, বিশ্বের পাঁচ সেরা ফুটবল লিগ হল ইপিএল, লা লিগা, সিরি-এ, বুন্দেশলিগা এবং লিগা ওয়ান।

বর্তমানে আইএসএলের খেলার মান অনেক উন্নত হয়েছে। বিদেশের সেরা লিগের তারকাদেরও ঠিকানা হয়ে দাঁড়িয়েছে আইএসএল। বিনিয়োগের ক্ষেত্রও প্রসারিত হয়েছে। আইএসএল থেকে প্রত্যেক বছরেই লিস্টন কোলাসো, সাহাল আব্দুল সামাদ, আপুইয়ার মত প্ৰতিভারা উঠে আসছে। যাঁরা জাতীয় দলেও জায়গা করে নিয়েছেন সাম্প্রতিক কালে।

আরও পড়ুন: স্ত্রী-র ছবি পোস্ট করে ATKMB-কে কটাক্ষ! বেঙ্গালুরুতে চুক্তি করেই স্বমেজাজে রয় কৃষ্ণ

২০২০-এর তথ্য অনুযায়ী, সোশ্যাল মিডিয়ায় দর্শকদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে আইএসএল বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম ফুটবল লিগ। যে ক্রমবর্ধমান উন্নতির জন্যই বিখ্যাত সিটি ফুটবল গ্রুপ বিনিয়োগ করেছে আইএসএলে। যাঁর মালিক ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। মুম্বই সিটির অধিকাংশ শেয়ার বর্তমানে সিটি গ্রুপের হাতে।

টিম ফর্ম অনুযায়ী, এএফসির লিগ রাঙ্কিং অনুযায়ী আইএসএলের অবস্থান ৩২ নম্বরে। ভবিষ্যতে লিগের মান আরও বাড়ানোর প্রয়াস চালাচ্ছেন আয়োজকরা। কোনও সন্দেহ নেই এই ক্রমতালিকায় আইএসএল যে ভবিষ্যতে আরও উন্নতি করবে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Sports news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Where does isl stand in comparison ranking with epl la liga