ধোনির বদলে নেতা হতে চেয়েছিলেন যুবরাজ! বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি এবার তারকার

যুবরাজ নেতৃত্ব না পেলেও ধোনির নেতৃত্বে নিজের সেরাটা উজাড় করে দিয়েছিলেন। ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে ভারতই চ্যাম্পিয়ন হয়।

২০০৭ সালে টি২০ বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়াকে চ্যাম্পিয়ন করার পরেই কার্যত নির্ধারিত হয়ে যায়, নেতৃত্বের ব্যাটন কার হাতে উঠবে। মেগা সেই টুর্নামেন্টে অধিনায়কত্বের সাফল্য কার্যত ভবিষ্যতের নেতাদের টেমপ্লেট হয়ে দাঁড়ায়। সেই সময় বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর যুবরাজকে নয়, টিম ম্যানেজমেন্ট ক্যাপ্টেন হিসাবে বেছে নিয়েছিল। তারপর বাকিটা ইতিহাস। তবে রাহুল দ্রাবিড়ের পর অধিনায়কত্ব করতে চেয়েছিলেন যুবরাজ সিং। এমনটাই জানালেন তিনি সম্প্রতি।

২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে আয়োজিত বিশ্বকাপ ভারতের কাছে অশনিসঙ্কেত বয়ে এনেছিল। গ্রুপ পর্বের বাধাই অতিক্রম করতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। তারপরেই সৌরভ, শচীন, দ্রাবিড়ের মত সিনিয়র ক্রিকেটাররা সেই বছরেই আয়োজিত টি২০ বিশ্বকাপ থেকে নিজেদের সরিয়ে নেন। আর নেতৃত্বের দায়িত্ব দেওয়া হয় নবাগত ধোনিকে।

আরো পড়ুন: মেসির মতই ‘হেরো’ কোহলি! টেস্ট ফাইনালের আগেই রামিজের মন্তব্যে ঝড়

টালমাটাল সময়েই যুবরাজ চেয়েছিলেন তাঁকে নেতা বানানো হোক। এক পডকাস্টে অতীতের সেই ঘটনা স্মরণ করতে গিয়ে যুবি জানিয়েছেন, “সেই সময় ভারত ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে শোচনীয় পারফর্ম করে। সেই সময় ভারতীয় ক্রিকেটে কার্যত টালমাটাল পরিস্থিতির তৈরি হয়। বিশ্বকাপের পরেই দুমাসের ইংল্যান্ড সফর ছিল। দক্ষিণ আফ্রিকা, আয়ারল্যান্ডেও একমাস ব্যাপী সফর নির্ধারিত ছিল। এর মধ্যে টি২০ বিশ্বকাপে খেলার অর্থ টানা চার মাস পরিবার বিহীন হয়ে কাটাতে হবে। সেই কারণেই সিনিয়র ক্রিকেটাররা টি২০ বিশ্বকাপ থেকে সরে দাঁড়ান। আসলে কেউ সেই সময় সেই বিশ্বকাপকে সিরিয়াসলি নেয়নি। তারপরেই ঘোষণা করা হয়, মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ক্যাপ্টেন করা হবে।”

যুবরাজ নেতৃত্ব না পেলেও ধোনির নেতৃত্বে নিজের সেরাটা উজাড় করে দিয়েছিলেন। ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে ভারতই চ্যাম্পিয়ন হয়। ব্যক্তিগত উচ্চাকাঙ্ক্ষা দূরে সরিয়ে রেখেই যুবরাজ দলগতভাবে পারফর্ম করতে উদ্যোগী হন। নেতৃত্বে তাঁকে না আনা হলেও ধোনির সঙ্গে সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়েনি যুবির। ধোনির সঙ্গে বন্ধুত্বের পিচে দুরন্ত পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন তিনি। নিজে নেতা হয়ে চেয়েছিলেন। তবে অধিনায়কত্ব না পেলেও তিনি যে যে কোনো ক্রিকেটারের নেতৃত্বে খেলতে প্রস্তুত ছিলেন, সেটা স্বীকার করে নিয়েছেন যুবরাজ।

“টিমম্যান হিসাবে যে-ই নেতা হোক না কেন, তাঁকে সমর্থন করাটা দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে। রাহুল হোক বা সৌরভ বা ভবিষ্যতের জন্য যাঁকেই বাছা হোক না কেন দিনের শেষে টিম ম্যান হওয়াটাই শেষ কথা। আমার ক্ষেত্রে ঠিক সেটাই হয়েছিল।”

ধোনি দায়িত্ব নেওয়ার পর টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে ধোনি-যুবরাজ একের পর এক অবিস্মরণীয় পার্টনারশিপ উপহার দিয়েছেন দলকে। সেই টি২০ বিশ্বকাপেই যুবরাজ যখন স্টুয়ার্ট ব্রডকে এক ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকান, তখন নন স্ট্রাইকিং এন্ডে ছিলেন ধোনিই!

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Sports news here. You can also read all the Sports news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Yuvraj singh wanted to be captain after rahul dravid but got snubbed as ms dhoni was chosen by management

Next Story
মারণ ক্যানসারের সঙ্গে লড়াইয়ে হার, অকালেই প্রয়াত হলেন সোনাজয়ী বক্সার Dingko SinghDingko Singh, Boxer, Liver Cancer
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com