বড় খবর

সাবধান! সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করলেই ৫ বছরের জেল, নয়া আইন রাজ্যের

এই আইনকে হাতিয়ার করে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগাম টানতে চাইছে রাজ্য সরকার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল, আক্রমণাত্মক পোস্টের জেরে সমস্যার শেষ নেই। কিন্তু এসব থেকে এবার নেটিজেনদের সতর্ক করতে কড়া আইন আলন কেরালার পিনারাই বিজয়ন সরকার। সোশ্যাল মিডিয়ায় হুমকি, আক্রমণাত্মক পোস্ট করলেই এবার সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের জন্য জেল না হলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। দুটোও হতে পারে একসঙ্গে। এই আইনে সম্মতিও দিয়েছেন রাজ্যপাল আরিফ মহম্মদ খান। এই আইনকে হাতিয়ার করে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগাম টানতে চাইছে রাজ্য সরকার।

শনিবার রাজভবনের তরফে অর্ডিন্যান্সে স্বাক্ষরের বিষয়ে নিশ্চিত করা হয়েছে। কেরালা পুলিশের আইনে এই নয়া ধারা ১১৮ (এ) অন্তর্ভুক্তি করা হয়েছে। কোনও মানুষকে সোশ্যাল মিডিয়ায় হুমকি দিলে, আক্রমণ করলেই পাঁচ বছরের জন্য জেল হতে পারে। এতে আবার অনেকেই বাক স্বাধীনতায় রাজ্য সরকার হস্তক্ষেপ করছে বলে মনে করছেন। পুলিশের হাতেও শক্তিশালী আইন আসায় তারা যে কোনও মানুষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে। অনেকেই মনে করছে, বাছাই করা কিছু মানুষকে টার্গেট করতেই এই আইন পাশ করেছে কেরালার বামফ্রন্ট সরকার।

কিন্তু সমালোচকরা যাই অভিযোগ তুলুন, তা মানতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। তাঁর মতে, রাজ্যে যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ বেড়ে গিয়েছে তা বন্ধ করতেই এই আইন। এদিকে, কেরালার আইনজীবী অনুপ কুমারণ এই আইনের বিরুদ্ধে কেরালা হাইকোর্টে আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, সরকার বলছে এই আইন মানুষের অধিকার রক্ষা করবে। কিন্তু বাস্তবে নয়া আইনের সাহায্যে সরকার সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে চাইছে। এর আগে ১১৮ (ডি) ধারা সুপ্রিম কোর্ট অসাংবিধানিক আখ্যা দিয়ে বাতিল করে দিয়েছিল। ওই আইনে কেরালা পুলিশ মৌলিক অধিকার এবং বাক স্বাধীনতা হরণের চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Technology news here. You can also read all the Technology news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Five year jail term for offensive post by kerala govt

Next Story
জিমেল পাসওয়ার্ড কীভাবে বদলাবেন? জেনে নিনGmail password Change Steps, জিমেল
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com