বড় খবর


বাড়ির ব্রডব্যান্ড কানেশনের ‘লাইসেন্স ফি’ হ্রাসের ভাবনা চিন্তায় কেন্দ্র

চাকরি ক্ষেত্রে যে হারে ডিজিটাল ব্যবহার বাড়ছে তা থেকে প্রাপ্ত রাজস্ব যে লাভের মুখ দেখাতে পারে তার আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

বাড়ির ব্রডব্যান্ড কানেশনের লাইসেন্স ফি হ্রাস করার প্রস্তাব নিয়ে ভাবনাচিন্তায় ভারত সরকার। যা আগামী দিনে এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম ইন্টারনেট ব্যবহৃত দেশে, ইন্টারনেটের ব্যবহার আরও বাড়িয়ে দিতে পারে।

প্রস্তাবিত পরিকল্পনার আওতায় ফিক্সডলাইন ব্রডব্যান্ড পরিষেবা প্রদানের জন্য পরিবার থেকে উপার্জিত তথাকথিত স্থায়ী মোট আয়ের লাইসেন্স ফি বছরে ১ টাকা (০.০১ সেন্ট) কমানো হবে। বলা হয়েছে, স্থায়ী-লাইন ব্রডব্যান্ড পরিষেবাদির জন্য আনুমানিক লাইসেন্স ফি যা মোট আয়ের ৮% হারে গণনা করা হয। বছরে প্রায় ৮.৮০ বিলিয়ন টাকা।

অধিবেশনের আগে প্রস্তাবিত অনুমোদনের উপর মতামত জানাতে বলা হয়েছে বিভিন্ন মহলের মন্ত্রীদের।

যদি প্রয়োগ করা হয়, তাহলে কম খরচে মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও ইনফোকম লিমিটেডকে গত বছরে চালু করা ব্রডব্যান্ড পরিষেবাকে ত্বরান্বিত করবে। জিও লাইফ টাইম গ্রাহকদের জন্য বিনামূল্যে টেলিভিশন এবং সেট-টপ বক্সের সঙ্গে প্রিমিয়াম স্ট্রিমিং পরিষেবা সরবরাহ করতে পারবে। পাশাপাশি, ভারতী এয়ারটেল লিমিটেড এবং ভোডাফোন আইডিয়ার মতো সংস্থাও একইভাবে কমখরচে রিচার্জ প্যাক আনতে পারবে।

তবে এই প্রস্তাবে অনেকের মতে, বড় কর্পোরেশন এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলি সহ বাণিজ্যিক ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে কোবো পরিবর্তন হবে না। আবার অনেকে জানিয়েছে পাঁচ বছরে রাজস্বের দশ শতাংশ বৃদ্ধি ধরে রাখতে সরকার ৫৯.২৭ বিলিয়ন লোকসান করবে। কিন্তু চাকরি ক্ষেত্রে যে হারে ডিজিটাল ব্যবহার বাড়ছে তা থেকে প্রাপ্ত রাজস্ব যে লাভের মুখ দেখাতে পারে তার আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

Read the full story in English

Web Title: India considers license fee cut for household broadband service

Next Story
ভারতে তৈরি হচ্ছে আইফোন, দাম হবে পকেট-ফ্রেন্ডলি
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com