বড় খবর

বৃহস্পতি-শনির ‘মহাসংযোগ’ আজ, কীভাবে দেখা যাবে?

প্রায় ১ ঘণ্টা ধরে এই মহাজাগতিক দৃশ্য দেখা যাবে। এই সুযোগ সহজে পাওয়া যায় না। ২১ ডিসেম্বর রাত সবচেয়ে দীর্ঘ হওয়ায় সন্ধ্যের আকাশেই দেখা যাবে দুই গ্রহকে।

ছবিসূত্র- সোশাল মিডিয়া

জীবনে এমন দৃশ্য দেখার সুযোগ আর নাও মিলতে পারে। ২১ ডিসেম্বর, ২০২০ অর্থাৎ আজ সেই সুযোগ থাকছে আপনার কাছে। পৃথিবী সাক্ষী হতে চলেছে মহাজাগতিক এক বিরল ঘটনার। আজ সন্ধ্যেবেলায় এক জায়গায় আসতে চলেছে বৃহস্পতি এবং শনি গ্রহ। যাকে ‘মহাসংযোগ’ (Jupiter-Saturn great conjunction) বলা হচ্ছে। ১৬২৩ সালের ১৬ জুলাই শেষ বার এদের একসঙ্গে দেখা যায়।

ওয়াশিংটনে ন্যাশনাল এয়ারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (NASA)-এর তরফে হেনরি থ্রুফ বলেন, “এই ধরনের মহাসংযোগ বছরের যে কোনও সময় হতে পারে। কবে হবে তা নির্ভর করে কক্ষপথে কোন অবস্থানে আছে গ্রহ।” যদিও অনেক জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মত এই ঘটনা বিরলতম। দুই গ্রহই নিজেদের কক্ষপথে ঘুরতে ঘুরতেই এই অবস্থানে আসবে।

বৃহস্পতি এবং শনি এই দুই গ্রহের মাধ্যাকর্ষণ শক্তি অত্যন্ত বেশি। দুটি গ্রহ আজ পরস্পরের সবচেয়ে কাছে আসছে। দুটি গ্রহই অত্যন্ত ধীর গতিতে ঘোরে। এরপরে সম্ভবত, এই মহাজাগতিক সংযোগ দেখা যাবে ২০৮০ সালে। নাসার তরফে জানান হয়েছে এই মহাজাগতিক ঘটনা খালি চোখেই দেখা যাবে। তবে চাইলে টেলিস্কোপও ব্যবহার করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে দুই গ্রহের অবস্থানের পাশাপাশি বৃহস্পতির চার উপগ্রহকেও দেখা যাবে।

দক্ষিণ-পশ্চিম আকাশে প্রায় ১ ঘণ্টা ধরে এই মহাজাগতিক দৃশ্য দেখা যাবে। এই সুযোগ সহজে পাওয়া যায় না। ২১ ডিসেম্বর রাত সবচেয়ে দীর্ঘ হওয়ায় সন্ধ্যের আকাশেই দেখা যাবে দুই গ্রহকে। ভারতে শনি ও বৃহস্পতিবার মহামিলন দেখা যাবে সন্ধে সাড়ে ৬টা থেকে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত। খালি চোখে হয়ত একটি জ্যোতিষ্ক এমনটাই মনে হবে। তবে টেলিস্কপ দিয়ে দেখলে বোঝা যাবে দুই গ্রহকে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Jupiter saturn great conjuction once in a lifetime celestial event

Next Story
Google-এ সার্চ এবার আরও সহজ, আঞ্চলিক ভাষার সুবিধা যোগ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com