বড় খবর

লকডাউন শিথিল হলেও, স্মার্টফোন ডেলিভারি করা যাবে না

নতুন নির্দেশিকা প্রসঙ্গে রিয়েলমির মুখপাত্র একটি বিবৃতিতে বলেন, ২০ এপ্রিলের পর ই-কমার্স এর উপর যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা অর্থহীন।

২০ এপ্রিলের পর নতুন লঞ্চ হওয়া ফোন কেনার কথা পরিকল্পনা থাকলে তা এক্ষুনি বাতিল করুন। রবিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়ে নতুন গাইডলাইন জারি করেছে। সেই গাইডলাইন মোতাবিক, ২০ তারিখের পর ই-কমার্স পরিষেবা শুরু করলেও স্মার্টফোন ডেলিভারি করবে না। ২০ তারিখের পর শুধুমাত্র অত্যাবশকীয় পণ্য পরিষেবা দেওয়া যাবে। এই সময়ে অপ্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এদিকে, ৩ মে লকডাউন ওঠার পর রিয়েলমি এবং শাওমি দুই সংস্থাই, পরের সপ্তাহে ভারতে নতুন স্মার্টফোন বাজারে আনার পরিকল্পনা করছিল।

শুধু স্মার্টফোন প্রস্তুতকারীরা নয়, ফ্লিপকার্টের মতো ই-কমার্স সংস্থা নতুন স্মার্টফোন অর্ডার নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। আসলে, ফ্লিপকার্ট ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছিল ২০ এপ্রিল থেকে স্মার্টফোন অর্ডার নেওয়া শুরু করবে।

গত সপ্তাহে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জারি করা নির্দেশিকা অনুসারে, ২০ এপ্রিল থেকে ই-কমার্স সংস্থাগুলি কোভিড-১৯ এর হটস্পটের আওতায় পড়ে না এমন অঞ্চলে গ্রাহকদের কাছে স্মার্টফোন এবং অন্যান্য ইলেকট্রনিক পণ্য সরবরাহের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তবে, ১৫ ই এপ্রিল, সরকার নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে, যেখানে উল্লেখ আছে ফ্লিপকার্ট, অ্যামাজন এবং স্ন্যাপডিলের মতো ই-কমার্স সংস্থাগুলিকে পণ্য সরবরাহের অনুমতি দেওয়া হল।

ফ্লিপকার্ট এবং অ্যামাজন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের জারি করা নতুন নির্দেশিকা নিয়ে তাদের কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। এক বিবৃতিতে শাওমি ইন্ডিয়ার এমডি, মনু জৈন বলেছেন: “আমরা স্থগিত রাখছি। আমরা অবশ্যই সরকারের নির্দেশিকা অনুসরণ করব। ”

নতুন নির্দেশিকা প্রসঙ্গে রিয়েলমির মুখপাত্র একটি বিবৃতিতে বলেন, ২০ এপ্রিলের পর ই-কমার্স এর উপর যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা অর্থহীন।

 

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and Technology news here. You can also read all the Technology news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: No smartphone deliveries from tomorrow as mha revises e commerce order

Next Story
বড় পদক্ষেপ ফেসবুকের, খুঁজে বের করা হল করোনা সংক্রান্ত ৪০ কোটি ভুল পোস্ট
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com