scorecardresearch

বড় খবর

মোবাইলে কোভিড ১৯ কলার টিউন বন্ধের নির্দেশ, সংক্রমণ কমতেই এমন সিদ্ধান্ত, জানাল টেলিকম বিভাগ

মোবাইলে কোভিড-১৯ প্রাক-কল ঘোষণা এবং কলার টিউনগুলি বন্ধ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কী গণপরিবহনেও এই ধরণের ঘোষণা বন্ধ করা হবে? যদিও সে ব্যাপারে কোন উত্তর মেলে নি।

দুবছর ধরে বেজে চলা করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সাবধান বাণীর অবসান ঘটতে চলেছে মোবাইলের কলার টিউনে।

দুবছর ধরে বেজে চলা করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সাবধান বাণীর অবসান ঘটতে চলেছে মোবাইলের কলার টিউনে। কোভিড ১৯ এর মোকাবিলা করতে সরকারের তরফে সকল টেলিকম সংস্থাকে বাধ্যতামূলক করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সাবধান বাণী সেট করতে হয়েছিল ভোক্তাদের কলার টিউনে। অনেকের কাছেই এটা একটা বিরক্তিকর সেই সঙ্গে একঘেয়েমি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। অবশেষে সংক্রমণ কমার সঙ্গে সঙ্গে বিধি নিষেধ উঠে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এই ভাইরাস সম্পর্কিত সাবধান বাণীরও অবসান ঘটতে চলেছে।

টেলিকমিউনিকেশন বিভাগ সকল টেলিকম অপারেটরকে এই মর্মে এক নির্দেশ দিয়েছেন সেখানে বলা হয়েছে এই করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত সাবধানতা কলার টিউন দ্রুত সরিয়ে ফেলতে হবে। সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, DoT ভারতের সমস্ত টেলিকম অপারেটরকে সমস্ত কোভিড-১৯ প্রাক-কল ঘোষণা এবং কলার টিউনগুলি বন্ধ করতে বলেছে। টেলিকম বিভাগ কোভিড -১৯ কলার টিউন বার্তাটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কারণ প্রাক-কল ঘোষণাগুলি নেটওয়ার্ককে কয়েক মিনিটের জন্য কল বিলম্বিত করছে।

টেলিকম বিভাগ টেলিকম অপারেটরদের কোভিড -১৯ ঘোষণাগুলি বন্ধ করতে বলার আগে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কাছে অনুমতি চেয়েছিল। এই বিষয়ে, অবিলম্বে কলার টিউনগুলি প্রত্যাহারের জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অনুমোদন পাওয়ার পরেই দ্রুত টেলিকম অপারেটরগুলি কোভিড-১৯ প্রাক-কল ঘোষণা এবং কলার টিউনগুলি বন্ধ করতে চলেছে।

২০২০ সালে,জারী করা এক নির্দেশিকায় Vodafone, Reliance Jio এবং অন্যান্য টেলিকম অপারেটরদের কোভিড ১৯ কলার টিউন চালু করার এক নির্দেশ দেওয়া হয়। তার পর থেকে প্রায় দু বছর একাধিক বার পরিবর্তন হয়েছে এই কলার টিউনে কিন্তু কোভিড ১৯ এর সতর্কতার মাধ্যম হিসাবে এই জাতীয় কলার টিউন এর আগে কখনও বন্ধ করা হয়নি।

কোভিড-১৯ কলার টিউনটি আগে মানুষের কাশি এবং হাঁচির শব্দ দিয়ে শুরু করা হয়েছিল, তারপরে কোভিড থেকে নিরাপদ থাকার জন্য সতর্কতা অবলম্বন করার আবেদন জানিয়ে জারী রাখা হয় এই কলার টিউন। সর্দি কাশির শব্দের পরেই যে রেকর্ডিংটি বাজানো হয়েছিল তা মানুষ কীভাবে নিজেদের রক্ষা করতে হবে এবং তাদের করোনাভাইরাস সংস্পর্শে আসা থেকে রক্ষা করার জন্য কী কী ব্যবস্থা নেওয়া উচিত সে সম্পর্কে শিক্ষিত করার উদ্দেশ্যে কলার টুইন বাজানো হত।

যদিও সরকারের দাবি ছিল অনেকের টিভি বা ইন্টারনেটে অ্যাক্সেস নেই তাদের মারাত্মক করোনা ভাইরাসটির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করতে এই জাতীয় কলার টিউন বিশেষ ভূমিকা নিয়েছিল। মোবাইলে কোভিড-১৯ প্রাক-কল ঘোষণা এবং কলার টিউনগুলি বন্ধ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কী গণপরিবহনেও এই ধরণের ঘোষণা বন্ধ করা হবে? যদিও সে ব্যাপারে কোন উত্তর মেলে নি। 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Technology news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Relief for jio airtel vi usersdot orders to remove all covid 19 caller tunes covid 19caller tunes announcements bengali news