বড় খবর

Google Photos: জেনে নিন সেরা পাঁচ আকর্ষণীয় ফিচার

ফটো এবং ভিডিও ব্যাক আপ টুল হিসাবে Google Photos একটি দারুন আকর্ষণীয় অ্যাপ।

ফটো এবং ভিডিও ব্যাক আপ টুল হিসাবে Google Photos একটি দারুন আকর্ষণীয় অ্যাপ।

ফটো এবং ভিডিও ব্যাক আপ টুল হিসাবে Google Photos একটি দারুন আকর্ষণীয় অ্যাপ। স্মার্টফোন, ল্যাপটপ বা ট্যাবলেট যাই হোক না কেন, যেকোনও ডিভাইস থেকে সহজেই সমস্ত মিডিয়া অ্যাক্সেস করা যায়। অ্যাপের ওয়েব ভার্সন ব্যবহার করে সব ফিচার দ্রুত অ্যাক্সেস করা যায় কারণ সেগুলোর কিছু অ্যাপের মোবাইল ভার্সনে উপলদ্ধ থাকে না। প্ল্যাটফর্মে আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করবে Google Photos’র এমন পাঁচটি বৈশিষ্ট্যের উপর একটি দ্রুত নজর দেওয়া যাক।

ফটো বা ভিডিও এডিট করা-

Google Photos-এর একটি দারুণ ফিচার ফটো বা ভিডিও এডিট করা। এই ফিচার কেবল ওয়েবে আগে উপলদ্ধ থাকলেও এখন তা মোবাইল ভার্সনেও উপলব্ধ।এই ফিচারের মাধ্যমে ইউজাররা অ্যাপের মধ্যে সরাসরি সময় এবং তারিখ এডিট করতে পারেন। যদি আপনি মনে করেন যে আপনার ডিভাইসে ভুলভাবে একটি তারিখ বা সময় উল্লেখ করা আছে, তাহলে আপনি Google Photos অ্যাপে গিয়ে এটি পরিবর্তন করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হল, ফটো বা ভিডিওতে সোয়াইপ করার পর আপনি ডানদিকের কোনে একটি ‘edit’ অপশন দেখতে পাবেন। এর মাধ্যমে আপনি সহজেই সময় এবং তারিখ এডিট করতে পারবেন। এটি করার সময় আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যে আপনি  Google Photos-এর লেটেস্ট ভার্সন ডাউনলোড করেছেন।

কোলাজ বা মুভি তৈরি করুন-

Google Photos-এর অন্যতম এক আকর্ষণীয় ফিচার। এই অ্যাপ ব্যবহারকারীদের তাদের ছবি ব্যবহার করে মুভি বা কোলাজ তৈরি করতে দেয়। আপনি মোবাইল সংস্করণের লাইব্রেরি বিভাগে এই বৈশিষ্ট্যটি পাবেন। এখানে, আপনাকে ‘Utilities’ অপশনে আলতো প্রেস করতে হবে। তারপরে শেষ পর্যন্ত নীচে স্ক্রল করতে হবে। আপনি এখন একটি মুভি এবং কোলাজ বিকল্প দেখতে পাবেন। এছাড়াও আপনি Google-এর সাহায্যে মুভি বা ফটো কোলাজ তৈরি করতে পারেন। Google আপনাকে গান অ্যাড করা সুযোগ দেবে। যদি আপনি মুভি বা গুগল ফটো ব্যবহার করে আপনার তৈরি করা কোন কোলাজ ডিলিট করে দেন, তাহলে অ্যাপটি মুভি তৈরিতে ব্যবহার করা কোনো আসল ছবি ডিলিট করবে না।

সম্প্রতি মুছে ফেলা ছবি বা ভিডিও পুনরুদ্ধার করুন-

আপনি যদি সম্প্রতি Google Photos-তে আপনার ছবি বা ভিডিও মুছে দেন, তাহলে আপনি সেগুলিকে ট্র্যাশ বিভাগ থেকে পুনরুদ্ধার করতে পারেন। এটির জন্য আপনাকে কেবল মোবাইলে অ্যাপটি খুলতে হবে এবং লাইব্রেরি বিভাগে যেতে হবে, যেখানে আপনি একটি ট্র্যাশ বিভাগ দেখতে পাবেন। শুধু যে ক্লিক করুন এবং আপনি আপনার সব মুছে ফেলা অ্যাক্সেস করতে পারবেন। যদি মুছে ফেলা ছবি বা ভিডিও ট্র্যাশে না থাকে, তাহলে আপনি এটি পুনরুদ্ধার করতে পারবেন না। এটি লক্ষ করা উচিত যে যদি আপনি ৬০ দিনেরও বেশি আগে মিডিয়াটিকে ট্র্যাশে স্থানান্তরিত করেন বা আপনার ট্র্যাশ থেকে স্থায়ীভাবে মুছে ফেলেন বা প্রথমে ব্যাক আপ না করে আপনার ডিভাইসের গ্যালারি অ্যাপ থেকে স্থায়ীভাবে মুছে ফেলেন, তাহলে আপনি এটি পুনরুদ্ধার করতে পারবেন না।

স্পেস বাড়ানো-

Google Photos-তে রয়েছে একটি স্টোরেজ ম্যানেজমেন্ট টুল, যেটি ব্যবহার করে স্টোরেজ স্পেস দ্রুত খালি করা যায়।এই টুল ব্যবহার করে আপনি সহজেই আপনার অপ্রয়োজনীয় ফটো এবং ভিডিও মুছে ফেলতে পারবেন এবং অনেক বেশি স্পেস বা জায়গা খালি পাবেন। কীভাবে আপনি এই টুল ব্যবহার করবেন দেখা নিন। অ্যাকাউন্ট সেটিংস> ব্যাক আপ এবং সিঙ্ক সেটিংস>ম্যানেজ স্টোরেজ এই পদ্ধতি অনুসরণ করে সহজেই আপনি আপনার ফোনের স্পেস বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

আর্কাইভে ফটো স্থানান্তর-

এমন কিছু সময় আছে যখন আপনি চান না যে কেউ অ্যাপে কিছু ব্যাক্তিগত ছবি দেখুক এর জন্য আপনি সেই ছবি অথবা ভিডিওগুলিকে আর্কাইভে স্থানান্তর করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে নীচের পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

লাইব্রেরি> ইউটিলিটি> ফটো আর্কাইভ। একবার আপনি এটিতে ট্যাপ করলে, আপনি আপনার সকল ফোট এবং ভিডিও আর্কাইভে আড়াল করে রাখতে পারবেন যা আপনি কাউকে দেখাতে চান না।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Technology news here. You can also read all the Technology news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Technology google photos five hidden trickes

Next Story
Facebook বিভ্রাটে পোয়াবারো! একদিনে সর্বোচ্চ নতুন ইউজারের রেকর্ড গড়ল Telegram
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com