scorecardresearch

মহিলাদের ‘আপত্তিকর’ ছবি মুছে দেবে মেটা

যারা তাদের অন্তরঙ্গ ছবিগুলি তাদের সম্মতি ছাড়াই অনলাইনে শেয়ার করা নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা প্ল্যাটফর্মে একটি অভিযোগ জমা দিতে পারেন।

জেনে নিন লাইভ চ্যাট ফিচার সম্পর্কে

সামাজিক মাধ্যমে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে এবং এটিকে একটি নিরাপদ পরিবেশে পরিণত করার জন্য, মেটা (আগে Facebook নামে পরিচিত) প্রতিশোধ পর্ন বন্ধ করতে সাহায্য করার জন্য একটি নতুন প্ল্যাটফর্ম চালু করেছে।

সারা বিশ্ব থেকে ৫০ টিরও বেশি বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে, Meta StopNCII.org প্রতিষ্ঠা করেছে যা একটি প্ল্যাটফর্ম যা মহিলাদের প্রতিশোধমূলক পর্ণের অভিযোগ জমা দেওয়ার এবং তাদের নিরাপত্তা ও ন্যায়বিচারের জন্য দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ দেবে।

‘প্রতিশোধ পর্ন’ নামেও পরিচিত অন্তরঙ্গ ছবিগুলির অ-সম্মতিমূলক শেয়ারিং (এনসিআইআই) সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই সমস্যা মোকাবেলা করার জন্য, মেটা ইউকে রিভেঞ্জ পর্ণ হেল্পলাইন এবং সারা বিশ্ব থেকে আরও ৫০টি সংস্থার সঙ্গে হাত মিলিয়েছে।

এর মাধ্যমে, যারা তাদের অন্তরঙ্গ ছবিগুলি তাদের সম্মতি ছাড়াই অনলাইনে শেয়ার করা নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা প্ল্যাটফর্মে একটি অভিযোগ জমা দিতে পারেন। যদি কারও মনে হয় যে তাঁর নিজের অথবা তাঁর পরিচিত কারও আপত্তিকর, অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, তাহলে সংশ্লিষ্ট ছবি অথবা ভিডিওটি এই সাইটে আপলোড করতে পারবেন। এই ছবি আপলোড করার সঙ্গে সঙ্গে একটি পিন জেনারেট হবে। অভিযোগকারীর ডিজিটাল সিগনেচারও সংগ্রহ করা হবে। এরপর একটি ডকেট তৈরি হবে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে কোথায় কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে তা ট্র্যাক করা যাবে ওই ডকেট ও পিন নম্বর দিয়ে। মেটার দাবি, অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজ শুরু করবে এই মাধ্যম এবং ইন্টারনেট থেকে সেই সব ছবি-ভিডিও মুছে দেওয়া শুরু হবে। সংস্থার মতে, প্রায় ৯০ শতাংশ অভিযোগই এর মাধ্যমে নিরসন করা সম্ভব। এর পাশাপাশি মহিলাদের অভিযোগ শোনা ও নিরসনের জন্য আলাদা করে একটি হাব তৈরি করা হয়েছে। হিন্দি সহ ভারতের ১১টি ভাষায় এই পরিষেবা চালু করা হয়েছে।

এই প্ল্যাটফর্মটি শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য (১৮ বছরের বেশি বয়সী)। ১৮ বছরের কম বয়সীদের জন্য, মেটা তাদের ন্যাশনাল সেন্টার ফর মিসিং অ্যান্ড এক্সপ্লয়েটেড চিলড্রেন (এনসিএমইসি) এর মতো সংস্থাগুলিকে এই কাজের যাবতীয় দায়িত্ব দিয়েছে।

মেটা জানিয়েছে, “StopNCII.org একটি যুগান্তকারী পরিবর্তনকে প্রতিনিধিত্ব করে, এর মাধ্যমে অন্তরঙ্গ ছবি অথবা ভিডিও অপব্যবহারের দ্বারা প্রভাবিত ব্যক্তিরা নিজেদের রক্ষা করতে পারেন৷ এই টুলের সামনে আসায় তাদের গোপনীয়তার সঙ্গে আপোস না করে এই ধরণের কাজকে নিয়ন্ত্রণে রাখার মাধ্যমে সামাজিক মাধ্যমে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে এবং এটিকে একটি নিরাপদ পরিবেশে পরিণত করার লক্ষে মেটা এক যুগান্তকারী পরিবর্তন আনতে চলেছে”।  

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Technology news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Technology meta bulids tools to stop the spread of revenge porn