রোজগার হারানোর অনিশ্চিয়তায় ভুগছেন টিকটক কর্মীরা, কী বলছেন সিইও?

“প্রতিদিনের কয়েক মিলিয়ন ব্যবহারকারীকে আনন্দ এবং অনুপ্রেরণা দেয়। পাশাপাশি টিকটক প্রতিদিন একটি অনন্য এবং গণতান্ত্রিক পরিবেশে সরবরাহ করে”।

By:
Edited By: Arunima Karmakar Kolkata  Updated: July 1, 2020, 09:19:26 PM

নিষেধাজ্ঞার দু-দিন পরে, টিকটকের সিইও কেভিন মায়ার ভারতে ভিডিও-শেয়ারিং সোশাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে কর্মীদের জন্য একটি বার্তা শেয়ার করেছেন। যেখানে এই পরিস্থিতিকে “দুর্ভাগ্যজনক চ্যালেঞ্জ” হিসাবে ব্যাখ্যা করেছেন। আশ্বাস দিয়েছেন, কেন এমনটা হল, সেই উদ্বেগের সমাধান করবেন।

মায়ার আরও বলেছেন, “আমাদের প্ল্যাটফর্ম ভারতে একটি দুর্ভাগ্যজনক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে, আমরা আমাদের মিশনে সংকল্পবদ্ধ ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। অংশীদারদের সঙ্গে পর্যালোচনা করছি। টিকটক ভারতীয় আইনের অধীনে সমস্ত তথ্যের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষার প্রয়োজনীয়তা মেনে চলছিল এবং আগামীদিনে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তার উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়ার বিষয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছি।

ভারতে টিকটকের ২০০ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে। এই প্ল্যাটফর্মের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ৫৯ টি অন্যান্য চিনা অ্যাপ্লিকেশনে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ভারতে গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল স্টোর থেকে টিকটককে অপসারণের পরে মায়ার বলেছেন, “প্রতিদিনের কয়েক মিলিয়ন ব্যবহারকারীকে আনন্দ এবং অনুপ্রেরণা দেয়। পাশাপাশি টিকটক প্রতিদিন একটি অনন্য এবং গণতান্ত্রিক পরিবেশে সরবরাহ করে”।

মায়ার ভারতীয় ২,০০০ কর্মচারীকে আশ্বাস দিয়ে বলেন, “আমাদের কর্মীরাই আমাদের সবথেকে বড় শক্তি। তাই তাঁদের ভাল রাখা আমাদের প্রধান কর্তব্য। তাঁদের বলতে চাই, তাঁদের সুযোগ ও ফের আগের পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য ১০০ শতাংশ চেষ্টা করছি আমরা।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Technology News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Tiktok ceo calls ban an unfortunate challenge says working to address concerns

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
বিহারী তাস
X