scorecardresearch

বড় খবর

উপযুক্ত পাত্র চাই, কিন্তু স্কুল শিক্ষক নয়, বিয়ের বিজ্ঞাপনেও নিয়োগ দুর্নীতির ছায়া

জানা গিয়েছে বছর ৩২ এর ওই তরুণী সরকারি চাকরি করেন। কর্মসূত্রে থাকেন ধুপগুড়িতে।

উপযুক্ত পাত্র চাই, কিন্তু স্কুল শিক্ষক নয়, বিয়ের বিজ্ঞাপনেও নিয়োগ দুর্নীতির ছায়া
বিয়ের বিজ্ঞাপন থেকেও বাদ 'স্কুল শিক্ষক'!

স্কুল শিক্ষকের চাকরি বিতর্কে শোরগোল রাজ্য রাজনীতি। ইতিমধ্যেই হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরি গিয়েছে ২৬৯ জন প্রাথমিক পড়ুয়াদের। সেই সঙ্গে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারির মেয়ে অঙ্কিতার চাকরিও গিয়েছে। এসএসসি-টেট দুর্নীতি নিয়ে উত্তাল রাজ্য। এর মাঝেই এক আজব বিজ্ঞাপন ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়।

ধুপগুড়িতে পেশায় সরকারি চাকরিজীবী নিজের বিয়ের বিজ্ঞাপনে বাদ দিয়েছেন স্কুল শিক্ষকদের। এই মর্মে তিনি তার প্রদত্ত বিজ্ঞাপনে উল্লেখও করেছেন স্কুল শিক্ষক ব্যতীত উপযুক্ত পাত্র যোগাযোগ করুন। এই বিজ্ঞাপন ভাইরাল হয়েছে। আর তা ভাইরাল হতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

সেই নজরকাড়া বিজ্ঞাপন

জানা গিয়েছে বছর ৩২ এর ওই তরুণী সরকারি চাকরি করেন। কর্মসূত্রে থাকেন ধুপগুড়িতে। সম্প্রতি মহিলার পরিবারের পক্ষ থেকে মহিলার জন্য পাত্র দেখার কাজ চলছে জোরকদমে। আর তাই বিজ্ঞাপন দেওয়া। কিন্তু বিজ্ঞপনের বয়ান অবাক করেছে সকলকেই। এমন বিজ্ঞপন ভাইরাল হতেই নেটিজেনদের মধ্যে ফের স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে আলোচনা উঠে এসেছে।

আরও পড়ুন: [দুস্থ গোবিন্দর জন্মদিনে দেহদানের অঙ্গীকার ‘স্টেশনের অন্নপূর্ণা’ পাপিয়া করের]

যদিও পাত্রীর কেন এমন দাবি তা জানা যায়নি। তবে নেটিজেনরা এই বিজ্ঞাপন নিয়ে মজা করতে ছাড়েন নি। কেউ কেউ লিখেছেন ‘স্কুল শিক্ষকদের ক্রেজ বিয়েতে কমতে শুরু করেছে’। অন্য একজন লিখেছেন ‘এখন এসএসসি দুর্নীতি স্কুল শিক্ষক দের মান-সম্মান মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছে’।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Dhupguri women wedding advertisement goes viral