বড় খবর

পেনের বদলে হাতে বন্দুক, প্রধান শিক্ষককে দেখেই ভ্যাবাচ্যাকা পড়ুয়ারা

বিতর্ক মাথাচাড় দিতেই গোটা ঘটনার তদন্তে কমিটি গড়েছে জেলা প্রশাসন।

Head master picture with gun in hand is viral
বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল স্কুলের প্রাথমিক বিভাগের প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ পাল।

ছেলে বেলায় কমবেশি সকলেই স্কুলে শিক্ষককে স্কেল বা লাঠি হাতে দেখেছি। কিন্তু ভাবুন তো যদি দেখা যায় কোন একজন শিক্ষক ‘ইনসাস রাইফেল’ হাতে কোনকিছুর দিকে তাক করে দাঁড়িয়ে আছেন! কি বিশ্বাস হচ্ছে না? তাহলে ছবিটি ভালো করে দেখুন। যে ব্যক্তি ইনসাস রাইফেল হাতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তিনি আর কেউ নন তিনি হলেন বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল স্কুলের প্রাথমিক বিভাগের প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ পাল।

সম্প্রতি তিনি রাইফেল হাতে ছবি তুলে তা স্কুলের হোয়াটস অ্যাপ গ্রূপে দেন। ছবি দেখে সকলে হাঁ। কোনভাবে ছবিটি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর তা ঘিরেই বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক শম্ভুনাথ চক্রবর্তী বলেন ‘বিশ্বজিৎ বাবুর ব্যক্তিগত রাইফেল থাকতেই পারেন কিন্তু সেই রাইফেল হাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি খুবই বেমানান’। বিষয়টি নিয়ে বিশ্বজিৎ বাবু নিজে অবশ্য কোনরকম মন্তব্য করতে চাননি।
এদিকে স্কুলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হওয়ায় প্রাক্তনীরাও মুখ খুলেছেন বিষয়টি নিয়ে। স্কুলের এক প্রাক্তন ছাত্র তথা বর্তমানে এলাকার এক ব্যবসায়ী বলেন ‘শিক্ষক হয়ে কি করে ইনসাস রাইফেল হাতে ছবি পোস্ট করেলেন বিশ্বজিৎ বাবু’! বিষয়টি ইতিমধ্যেই জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ সভাপতি অচিন্ত্য চক্রবর্তীর নজরে পড়েছে। তিনি বলেন এই বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে তিন সদস্যের একটি কমিটি স্কুলে গিয়ে রিপোর্ট জমা দেবেন তার ওপর নির্ভর করে ভবিষ্যত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ছবিটিকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের তরফে।

এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই নেটিজনরা শিক্ষকের এহেন আচরণে নিন্দার ঝড় তুলেছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Viral news here. You can also read all the Viral news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Head master picture with gun in hand is viral

Next Story
‘শোবো কোথায়?’, নতুন বউয়ের প্রশ্নে ভ্যাবাচাকা বর, ভাইরাল ভিডিও
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com