scorecardresearch

বড় খবর

এদেশে কোন ট্রেন কখনোই দেরি করে না, দেরি হলে যাত্রীদের কাছে ক্ষমা চান রেলের আধিকারিকরা

এমন এক দেশের কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যেখানে ট্রেন এক ঘণ্টা বা এক মিনিট অথবা এক সেকেন্ডও দেরিতে চলে না।

এদেশে কোন ট্রেন কখনোই দেরি করে না, দেরি হলে যাত্রীদের কাছে ক্ষমা চান রেলের আধিকারিকরা

গত কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড ঠান্ডা কাবু করেছে সাধারণ মানুষকে। সেই সঙ্গে কুয়াশা মানুষের সমস্যাকে আরও বাড়িয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাস ও ট্রেন চলাচলেও প্রভাব পড়েছে। প্রতিদিন অনেক ট্রেন বাতিল হচ্ছে,পাশাপাশি দূরপাল্লার একাধিক ট্রেন কুয়াশার কারণে দেরিতে চলছে। একই সঙ্গে বেহাল লোকাল ট্রেন পরিষেবাও। শুধু তাই নয়, আমাদের দেশে ট্রেন দেরিতে চলা যেন এক রোজকারের রুটিনে পরিণত হয়েছে।

তবে এখন এমন এক দেশের কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যেখানে ট্রেন এক ঘণ্টা বা এক মিনিট বা এক সেকেন্ডও দেরিতে চলে না। শুধু তাই নয়, কোনো ট্রেন দেরিতে গন্তব্যে পৌঁছালে রেলের কর্মচারীরা এর জন্য যাত্রীদের কাছে ক্ষমাও চান। জাপানে ট্রেনের টাইমের সঙ্গে যাত্রীরা তাদের ঘড়ি মিলিয়ে নেন।

জাপানে, ট্রেন কখনই দেরিতে চলে না। জাপানে যদি কখনও কোন ট্রেন দেরি করে, তা মাত্র কয়েক সেকেন্ডের জন্য। জাপানের বুলেট ট্রেন কখনও ৩৬ সেকেন্ডের বেশি দেরি করে চলেনি। জাপানে সময়মতো ট্রেন চালানোর পেছনে রয়েছে সেখানকার রেলওয়ের কারিগরি প্রযুক্তি ও কর্মীদের কাজের প্রতি দায়বদ্ধতা।

জাপানের লোকেরা সব সময় সময়মতো সব কাজ করেন। সরকারি দফতর হোক বা বেসরকারি দফতর সব জায়গাতেই সব কাজ হয় সময় মেনেই। যদি কোন ট্রেন কয়েক সেকেন্ড দেরি করে, জাপানের রেল কর্মকর্তারা প্রকাশ্যে যাত্রীদের কাছে ক্ষমা চান। ২০২০ সালের নভেম্বরে, টোকিও এবং রাজধানীর উত্তর অংশের সঙ্গে সংযোগকারী সুকুবা এক্সপ্রেস লাইনের একটি ট্রেন ২০ সেকেণ্ড দেরিতে গন্তব্যে পৌঁছায়। বেশ কিছু যাত্রী ট্রেন মিসও করেন। কিছু যাত্রী পরের স্টেশনে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন রেলের কর্মকর্তারা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Japan railways no train is ever late in this country officials have to apologize for being late