scorecardresearch

বড় খবর

স্টেশনের ‘অন্নপূর্ণা’ পাপিয়া’র ছোঁয়ায় ধন্য হল প্রবীণ দম্পতির জীবন

অনুষ্ঠানের মুল দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন, অন্নপূর্ণা সরাইঘরের কর্ণধার পাপিয়া কর।

Papaya kar celebrates jamai sasthi of Subrata aprana goes viral in internet
অনুষ্ঠানের মুল দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন, অন্নপূর্ণা সরাইঘরের কর্ণধার পাপিয়া কর।

বৃদ্ধাশ্রমে প্রথম দেখা! তার পর প্রেম। অবশেষে সেই সম্পর্ক পরিণতি পায় বিয়ের পিড়িতে। পাত্রী বছর ৬৫-এর অপর্ণা। আর পাত্র ৭০ ঊর্ধ্ব সুব্রত। দুজনের সেই পরিণতি ব্যাপক ভাইরাল হয়েছিল নেটিদুনিয়ায়। আর এবার নেটদুনিয়ায় তোলপাড় ফেলেছে তাদের প্রথম জামাই ষষ্ঠীর কাহিনী। রানাঘাটের এই প্রবীণ নববিবাহিত দম্পতি মাতলেন জীবনের প্রথম জামাই ষষ্ঠীতে।

অনুষ্ঠানের মুল দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন, অন্নপূর্ণা সরাইঘরের কর্ণধার পাপিয়া কর। আর পাপিয়ার এই কাহিনী বিপুল ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। জামাই ষষ্ঠীর দুপুরে পাত পেড়ে প্রবীণ এই দম্পতিকে খাওয়ালেন পাপিয়া। সুব্রত বাবুর পরনে ধুতি-পাঞ্জাবি, আর অপর্ণার পরনে লাল টুকটুকে শাড়ি। পাপিয়ার সৌজন্যে জমে উঠলো সেদিনের দুপুরের সেই অনুষ্ঠান। যার পুরোটাই এখন ভাইরাল নেটদুনিয়ায়।

আরও পড়ুন: হুইল চেয়ারেই যুদ্ধ জয়! কার্তিকের জীবন কাহিনী চমকে ওঠার মতোই

জামাই ষষ্ঠীর সেদিনের সেই অনুষ্ঠানের কোন ত্রুটি রাখেননি পাপিয়া। আর জীবনের প্রথম জামাই ষষ্ঠী দারুণ ভাবে উপযোগ করলেন সুব্রত-অপর্ণা।  ছিল মুড়ির ঘন্ট থেকে শুরু করে কাতলা মাছের কালিয়া, আমের চাটনি, লাল দই। সব মিলিয়ে কব্জি ডুবিয়ে ভূরিভোজের এলাহি আয়োজন। আর সেদিনের সেই ছবি পোস্ট করে পাপিয়া সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, “আমি প্রতিযোগিতাতে বিশ্বাসী নই, আমি ভালোবাসা তে বিশ্বাসী। জীবন বড়ই ছোট তাই ভালোবাসো, ভালোবেসে সব জয় করা সম্ভব । তোমরা আমায় ঘৃণা করলেও , আমি তোমাদের ভালোবাসবো। কারণ আমি শুধু এইটুকুই পারি”।  বৃদ্ধ বয়সে বিয়ে হলেও জামাই ষষ্ঠীর একটা আক্ষেপ মনে থেকেই গিয়েছিল সুব্রত’র। এবার পাপিয়ার উদ্যোগে সেই আক্ষেপ মিটল সুব্রত-অপর্ণার।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Papaya kar celebrates jamai sasthi of subrata aprana goes viral in internet