বয়স মাত্র ৯, এই বয়সেই রয়েছে নিজস্ব প্রাসাদ, সুপারকার, চিনে নিন সেই ছোট্ট ছেলেটিকে

‘বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ বিলিয়নিয়ার’ হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে।

মাত্র ৯ বছর বয়সেই ১০০ কোটির মালিক, সঙ্গে রয়েছে ডজন খানেক সুপার কার

এ কোন সিনেমার গল্পকথা নয়। ঘোর বাস্তব! মাত্র ৯ বছর বয়সেই প্রাসাদ, প্রাইভেট জেট, সুপারকারের মালিক! হ্যাঁ আপনার মতই অনেকেই এমন খবরে ভিরমি খাচ্ছেন। চিনে নিন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী শিশুকে। একশো কোটি মার্কিন ডলারে কতগুলি শুন্য বসবে তা হয়তো আজও অনেকেই ঠিক একবারে মনে আনতে পারবেন না। আর ৯ বছর বয়সে সে তো মনে আসার কথাও নয়। এই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখালো, মহম্মদ আউয়াল মুস্তাফা। চরম বিলাসবহুল জীবনযাত্রার কারণে, মাত্র ৯ বছর বয়সেই সে ‘বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ বিলিয়নিয়ার’ হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে।

প্রাসাদ, প্রাইভেট জেট, বিলাসবহুল সুপারকার – কী নেই তার! যদিও বয়স অনেকের কাছেই একটি সংখ্যা মাত্র তাও ভাবুন, মাত্র ৬ বছর বয়সেই মুস্তাফা বিলাস বহুল প্রাসাদের মালিক হয়েছেন। জুনিয়র বিশ্ব ভ্রমণ করে একটি প্রাইভেট জেটে চড়ে। আর তার গ্যারাজে, ফেরারি, বেন্টলি ফ্লাইং স্পার, রোলস-রয়েস ওয়েথের মতো সুপারকারের ছড়াছড়ি। ৬ বছর বয়সে পাওয়া প্রাসাদটি ছাড়াও, তার আরও বেশ কয়েকটি প্রাসাদ রয়েছে। তাকে প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায়, তাকে তার সুপারকারগুলির পাশে, ভার্সেস বা গুচির মতো আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের স্টাইলিশ এবং ডিজাইনার পোশাক পরে ছবি দিতে দেখা যায়। সব দেখে শুনে অনেকেই এই খবরে ভিরমি খাচ্ছেন।

কে এই মোমফা জুনিয়র? সে নাইজেরিয়ার শহরের বাসিন্দা। মাল্টিমিলিয়নেয়ার নাইজেরিয়ান ইন্টারনেট সেলিব্রিটি ইসমাইলিয়া মুস্তাফা মহম্মদ আউয়াল মুস্তাফার ছেলে। প্রায়শই বাবার ইনস্টাগ্রাম পেজে মোমফা জুনিয়র এবং তার ছোট বোনকে দেখা যায়। মোণফা জুনিয়রের এই বিলাসবহুল জীবনের উৎস যে তার বাবার খ্য়াতি, তা বোঝাই যায়। তবে, সেও তার বাবার মতোই সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার হওয়ার পথেই এগোচ্ছে। এখনই তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ফলোয়ার্সের সংখ্যা প্রায় ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে। এই অ্যাকাউন্টেই এই খুদে বিলিয়নেয়ারের বিলাস বহুল জীবনধারার ছবি দেখা যায়।

কোনও ছবিতে দেখা যায় সে একটি প্রাইভেট জেটের ভেতরে বসে খাবার খাচ্ছে। কোনও ছবিতে দেখা যায় তার গাড়ির সংগ্রহ। ছবিগুলোর ক্যাপশনে কোথাও লেখা থাকে ‘হ্যাপি বার্থডে টু মি’, অর্থাৎ সে নিজেই নিজের নিজেকে জন্মদিনে উপহার দিয়েছে। কোথাও বলা থাকে ‘থ্যাঙ্কস ড্যাডি’, অর্থাৎ সেই উপহার সে তার বাবার কাছ থেকে পেয়েছে। তবে, একাধীক প্রাসাদ এবং সুপারকারের মালিক হওয়া সত্ত্বেও, মোমফা জুনিয়রের সবথেকে পছন্দের হল, তার প্রথম প্রাসাদটি। ২০১৮ সালে তার ষষ্ঠ জন্মদিনের দিন, মোমফা জুনিয়রকে এই ম্যানশন কিনে দিয়েছিলেন তার বাবা, মোমফা সিনিয়র।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: The 9 year old dubbed africas weathiest already owns a mansionand fleet of suparcar

Next Story
শখের দাম লাখ টাকা, মেয়েকে হেলিকপ্টারে চাপিয়ে শ্বশুরবাড়ি পাঠালেন বাবা