বুনো দাঁতালের হামলায় চুরমার বাসের উইন্ডশিল্ড, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন যাত্রীরা

এই ভিডিও দেখে শিহরিত হয়ে উঠেছেন নেটপাড়ার বাসিন্দারা।

বাসের ঠিক সামনে দাঁড়িয়ে এক বুনো হাতি

বাস চালকের বুদ্ধিমত্তার জেরে প্রাণে বাঁচল এক বুনো দাঁতাল এবং বাসের ভিতরে থাকা যাত্রীরা। এই ভয়াবহ ঘটনা ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। চোখের সামনে বুনো দাঁতালের এই ভিডিও দেখে শিহরিত হয়ে উঠেছেন নেটপাড়ার বাসিন্দারা।

চোখের সামনে বুনো দাঁতালের আক্রমণ দেখেও নিজেকে শান্ত রাখার জন্য প্রশংসাও কুড়িয়েছেন বাস চালক। তামিলনাড়ুর নীলগিরি জেলায় চলন্ত বাসের সামনে হঠাৎ করেই ছুটে আসে এক বন্য দাঁতাল। চালক বাসটিকে দাঁড় করিয়ে পিছনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন, কিন্তু হঠাৎ করেই হাতিটি বাসের দিকে তেড়ে আসে। চালক কিছু বুঝে ওঠার আগেই হাতি তার দাঁত দিয়ে আঘাত করে বাসের উইন্ডশিল্ডে। একের পর এক আঘাতের জেরে উইন্ডশিল্ডে ফাটল ধরে যায়।

এরপর কিছুক্ষণ বাসের চালক তার সিটে বসে থাকেন, কিন্তু বিপদ বুঝে তিনি তখন তারঁ সিট ছেড়ে উঠে এসে বাসের পিছনের দিকে চলে আসেন। এবং বাসে থাকা অন্যান্য যাত্রীদের শান্ত থাকার আবেদন জানান। বাসের ভিতরে থাকা যাত্রীরা আতঙ্কে চিৎকার জুড়ে দেন। কিন্তু বাস চালক ক্রমাগত তাঁদের শান্ত থাকার আবেদন জানান। তিনি সমস্ত যাত্রীদের বাসের পিছনের প্রান্তের দিকে যেতে নির্দেশ দেন। তাঁরা শান্ত থাকার চেষ্টা করলেও, হাতিটি বারবার উইন্ডশিল্ডে আঘাত করতে থাকে।

তামিলনাড়ুর সচিব (পরিবেশ ও বন) সুপ্রিয়া সাহু ভিডিওটি তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায় হ্যান্ডেলে শেয়ার করেন। এবং তা শেয়ার করার পরই দ্রুত ভাইরাল হয়। তিনি এই ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, “বাস চালকের কথা শুনে বাসের যাত্রীরা শান্ত থেকে বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিয়েছেন” । একই সঙ্গে তিনি বাস চালকের উপস্থিত বুদ্ধিরও তারিফ করেছেন। বাস চালকের প্রশংসা করার সঙ্গে মাথা ঠান্ডা রেখে তিনি সকল যাত্রীদের যেভাবে বিপদ থেকে উদ্ধার করে আনেন তার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

স্থানীয় সুত্রে পাওয়া রিপোর্ট অনুসারে জানা গেছে, শনিবার ঘটনাটি ঘটে যখন কোটগিরি থেকে মেট্টুপালয়ামের দিকে রাজ্য পরিবহনের বাসটি যাচ্ছিল। হঠাৎ করেই বাসের চালক হাতিটিকে পাহাড়ি এলাকা অতিক্রম করতে দেখেন। এবং তারপরই হাতিটি বাসের একদম কাছাকাছি চলে আসে। ভাগ্যক্রমে, হাতিটি গাড়ির খুব বেশি ক্ষতি না করে শেষ পর্যন্ত চলে যায়।

এদিকে এই ভিডিও ভাইরাল হতেই মুহূর্তেই তাতে অজস্র ভিউ হয়। এবং বিভিন্ন পশুপ্রেমী সংগঠন পশুদের নিরাপত্তার প্রশ্নে সরব হয়েছেন। এর আগেও একাধিক দুর্ঘটনায় একাধিকবার একের পর হাতি মারা গেলেও প্রশাসনের তৎপরতা সেভাবে চোখে পড়েনি। এনিয়েও সরব হন তারা। পাশাপাশি পশুপ্রাণীদের জন্য আলাদা ‘গ্রিন করিডরের’ প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে একাধিক প্রতিক্রিয়া নজরে এসেছে।  

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Viral news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Viral agitated elephant charges towards tamilnadu bus goes viral in internet

Next Story
বিয়ের দিন নাচতে গিয়ে এ কী কাণ্ড করলেন নবদম্পতি, দেখে চোখ কপালে নেটিজেনদের