টক জল থেকে ফুচকা সবই দেবে রোবট! অভিনব আবিষ্কার ইঞ্জিনিয়ারের, দেখুন ভিডিও

টক জল থেকে ফুচকা সবই দেবে এই যন্ত্র!

করোনা কালে ফুচকা খেতে ভয়! মুশকিল আসানে হাজির রোবট, টক জল থেকে ফুচকা সবই দেবে এই যন্ত্রমানব

এবার টক জল থেকে শুরু করে ফুচকা সবই হাতে তুলে দেবে এক রোবট। এমন খবরে ভিরমি খাচ্ছেন সকলেই। দিল্লির এক ফুচকা বিক্রেতা সঠিক স্বাস্থ্যবিধি এবং নিরাপত্তা সহ সমস্ত স্ট্রিট ফুড প্রেমীদের জন্য গোলগাপ্পা বা ফুচকার পরিবেশনের একটি নতুন এবং উন্নত উপায় নিয়ে এসেছেন। একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গেছে একজন ব্যক্তি তার সাম্প্রতিক আবিষ্কারটি প্রদর্শন করেছেন। যা রাস্তার বিক্রেতাকে একটি রোবট দিয়ে প্রতিস্থাপন করে দিয়েছে। অর্থাৎ, ফুচকা আপনি খাবেন ঠিকই কিন্তু তা কোনও মানুষ দেবে না আপনাকে। সেটি আপনাকে হাতে তুলে দেবে রোবট।

করোনা পরিস্থিতি সব কিছুকেই নতুন করে ভাবতে শিখিয়েছে। ফুচকা উত্তর ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্ট্রিট ফুডগুলির মধ্যে একটি। কিন্তু মহামারীর পর থেকে, লোকেরা রাস্তার পাশে রাস্তার বিক্রেতাদের থেকে স্ন্যাক্স উপভোগ করতে দ্বিধা বোধ করছেন। কিন্তু, এই নতুন চিন্তা ভাবনা আপনার যাবতীয় ভাবনা বদলে দিতে পারে।

রোবটের আবিষ্কর্তা গোবিন্দ একজন রোবোটিক্স ইঞ্জিনিয়ার। তাঁর সৃষ্টি অভিনব এই ফুচকা রোবট ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় তরজা তুঙ্গে। গোবিন্দ বলেন, মেশিনটি সম্পূর্ণরূপে ভারতে তৈরি করা হয়েছে ক্লাউড প্রযুক্তি ব্যবহার করে। তিনি জানিয়েছেন যে, গ্রাহককে কেবল QR কোড স্ক্যান করতে হবে এবং ২০ টাকা পেমেন্ট করতে হবে। তারপরে মেশিনটি স্যানিটাইজার এবং মুখরোচক ফুচকার একটা বাক্স বিতরণ করে। যন্ত্রটি ফুচকার জলের চারটি সুস্বাদু স্বাদও দিতে সক্ষম।

YouTube Poster

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই তোলপাড় শুরু হয়। ফুচকা খেতে রোবটের দেখা মিলবে এমন খবর শুনে তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। অনেকেই এই অভিনব ভাবনার প্রশংসা করেছেন। অনেকে আবার বলেছেন, এর ফলে মানুষ আবার আগের মতো নির্ভয়ে ফুচকা খেতে পারবেন। ভিডিও নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হতেই তাতে প্রায় ৯ লক্ষের কাছাকাছি ভিউ হয়েছে। অন্য একজন কমেন্টে লিখেছেন, ‘আমি এমন অভিনব উদ্ভাবনী দেখে সত্যিই হতবাক’।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Viral news here. You can also read all the Viral news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Viral delhi man designs contactless golgappa machine goes viral in internet

Next Story
গুটখা নয় মুখে সুপারি ছিল, দাবি কানপুরের সেই ভাইরাল ‘গুটখা ম্যানের’
Show comments