আলিপুর সংশোধনাগার সরছে বারুইপুরে, প্রস্তুতি তুঙ্গে

কারা দফতর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যে বারুইপুরে নির্মীয়মাণ সংশোধনাগার তৈরির প্রথম দফার কাজ প্রায় শেষ। সূত্রের খবর, সংশোধনাগারের ভিতরে ও বাইরের অংশে এখন পাইপলাইনের কাজ চলছে।

By: Firoz Ahamed Kolkata  Updated: September 8, 2018, 12:35:51 PM

শতাব্দী প্রাচীন আলিপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার বারুইপুরে স্থানান্তরিত করতে যুদ্ধকালীন তত্‍পরতায় দিনরাত ধরে কাজ চলছে । একেবারে বিদেশি ধাঁচে তৈরি হচ্ছে বারুইপুরের সংশোধনাগার। আলিপুরের থেকে উন্নত হচ্ছে নতুন সংশোধনাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও। আর কয়েক মাসের মধ্যে এই সংশোধনাগারের উদ্বোধন হবে। মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে সাদা রংয়ের বিশাল বিশাল বাড়ি। ১৭ একর জমির ওপর এরকম ৮ থেকে ১০ টা ভবন তৈরি হচ্ছে। এই ভবনগুলিতে মোট ২৪ টা সেল তৈরি হচ্ছে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্তদের জন্য। আর বিচারাধীন বন্দী ও সাজাপ্রাপ্ত বন্দীদের জন্য তৈরি হচ্ছে ১৮ টি সেল। মহিলাদের জন্য আলাদা সেলও থাকছে।

বারুইপুর–আমতলা রুটের এই রাস্তা ধরে কিছুটা যেতেই কল্যাণপুর গ্রাম পঞ্চায়েত। আর এই পঞ্চায়েতের টংতলা তৈরি হচ্ছে নতুন সংশোধনাগার। চাকারবেড়িয়া গ্রামের গা ঘেঁষে বিশাল পাঁচিল উঠছে। সেই পাঁচিলই সংশোধনাগারের পাঁচিল। আর সংশোধনাগারের মধ্যে থাকছে বন্দীদের থাকার ব্যবস্থা। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সংশোধনাগারের একতলা থেকে তিনতলা জুড়ে আধুনিক ঘর বানানো হয়েছে। আর সেই ঘরের সামনের দিকে লোহার দরজা দেওয়া হয়েছে। বাইরে থেকে ঘরের ভিতরের সব কিছু যাতে দেখা যায় তারই ব্যবস্থা করা হয়েছে। পর পর এই ঘরগুলিতে বন্দীদের রাখার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। যেমনটা দেখা যায় বিদেশী সংশোধনাগারে। এই সংশোধনাগারের বন্দীদের জন্য নানা রকমের আধুনিক ব্যবস্থায়ও করা হচ্ছে। সংশোধনাগারের মধ্যেই তৈরি করা হচ্ছে বন্দীদের খেলার মাঠ। তাদের শরীর চর্চার জন্য আধুনিক জিমেরও ব্যবস্থা থাকছে। যোগ ব্যায়াম চর্চা কেন্দ্র তৈরি করা হচ্ছে। কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থাকছে। এমন কি সংস্কৃতি চর্চার জন্য অডিটোরিয়ামও তৈরি করা হয়েছে। থাকছে আধুনিক হাসপাতাল, রান্নার ঘর ও ডাইনিং রুম।

বারুইপুর সংশোধনাগারে কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন (ফোটো- ফিরোজ আহমেদ)

শুধু পুরুষদেরই নয়। এখানে মহিলা বন্দীদের রাখার ব্যবস্থাও থাকছে। তাদের জন্য আলাদা সেল তৈরি করা হয়েছে। সংশোধনাগারের সুরক্ষাতে আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য নেওয়া হচ্ছে বলে খবর। সংশোধনাগার ঘিরে সুউচ্চ ২৫ ফুটের পাঁচিল থাকছে। আর আগে থাকছে ১৫ ফুটের পাঁচিল। থাকছে ওয়াচ টাওয়ারের নজরদারি। সি সি টিভি ক্যামেরাতেও নজরদারির ব্যবস্থা হচ্ছে। এছাড়াও লেসার সেন্সার টেকনোলজির মতো আধুনিক প্রযুক্তিও ব্যবহার করা হবে বলে জানা গেছে। মূলত বন্দি পালানো রুখতে এ বার জেলের পাঁচিলে ‘সেন্সর’ বসাচ্ছে কারা দফতর। বারুইপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে প্রথম এই প্রযুক্তি ব্যবহার হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রশাসন সূত্রের খবর, ওই ‘সেন্সর’ বসানোর ফলে পাঁচিলে হাত দিলেই ঘণ্টি বেজে উঠবে। তাতে কারারক্ষীরা সজাগ হয়ে যাবেন।

কারা দফতর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যে বারুইপুরে নির্মীয়মাণ সংশোধনাগার তৈরির প্রথম দফার কাজ প্রায় শেষ। সূত্রের খবর, সংশোধনাগারের ভিতরে ও বাইরের অংশে এখন পাইপলাইনের কাজ চলছে। বর্ষার জেরে কাজে বেশ কিছু সমস্যা হয় বলেও জানা গিয়েছে। আলিপুর জেলে এখন ১,৯৭১ জন বন্দি আছে। প্রথম ধাপে ২০০ জন সাজাপ্রাপ্ত ও ৫০০ জন বিচারাধীন বন্দিকে সরানো হবে। প্রথম ধাপেই যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত বন্দিদের সরানো হচ্ছে না।

শুক্রবার বারুইপুরে নব নির্মিত সংশোধনাগার ঘুরে দেখেন কারা দফতরের মুখ্য সচিব সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় ও ডিজি অরুণ কুমার গুপ্ত এবং ডিআইজি (প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ) বিপ্লব দাস।

এদিন সংশোধনাগার এর কাজ ক্ষতিয়ে দেখে কারা দফতরের মুখ্য সচিব সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় বলেন, দ্রুততার সঙ্গে কাজ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি, আবার আরও এক বার সংশোধনাগার পরিদর্শন করার পর উদ্বোধন এর দিনক্ষণ ঠিক হবে তার পর বন্দিদের নিয়ে আসা হবে

প্রশাসন সূত্রের খবর, আলিপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার স্থানান্তর এর পর প্রেসিডেন্সি জেলও সরানোর পরিকল্পনা আছে রাজ্য সরকারের। বারুইপুরের এই নয়া সংশোধনাগারের পাশেই তৈরি হবে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার। ইতিমধ্যে সে জমি চিহ্নিতও করা হয়ে গিয়েছে।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Alipore central jail moving baruipur

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
করোনা আপডেট
X