মমতার সর্বদল বৈঠক: মন খুলে কথা বলেছেন দিলীপ, বামেদের ‘কথা মানতে বাধ্য হয়েছে সরকার’

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিরোধীদের মতামত যেমন শুনলেন মমতা, তেমনই আমফানে ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করে কড়া বার্তাও দিলেন মুখ্য়মন্ত্রী।

all party meeting, সর্বদল বৈঠক, মমতা
মমতা, দিলীপ, সূর্যকান্ত।

আলোচনার টেবিলে মুখোমুখি মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায় ও দিলীপ ঘোষ। সঙ্গে যোগ দিলেন সিপিএমের সূর্যকান্ত মিশ্র, সুজন চক্রবর্তী, কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্যরা। করোনা ও আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে বুধবার নবান্ন সভাঘরে সর্বদল বৈঠকে এমন ছবিই ধরা পড়ল। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিরোধীদের মতামত যেমন শুনলেন মমতা, তেমনই আমফানে ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করে কড়া বার্তাও দিলেন মুখ্য়মন্ত্রী। কঠিন পরিস্থিতিতে মমতা সরকারকে ‘সাজেশনস’ দিলেন এই মুহূর্তে বঙ্গ রাজনীতির অন্য়তম প্রধান বিরোধী মুখ দিলীপ।

এদিনের সর্বদল বৈঠকে আমফান মোকাবিলায় সব দলের সদস্য়দের নিয়ে বিশেষ কমিটি গঠন করার কথা জানিয়েছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। এই কমিটিতে রয়েছেন তৃণমূলের পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়, সিপিএমের সুজন চক্রবর্তী, কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্য। অন্য়দিকে, আমফানে ত্রাণ দুর্নীতি প্রসঙ্গে মমতার কড়া বার্তা, ”আমফানে ত্রাণ নিয়ে বঞ্চনা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না”।

আরও পড়ুন: বাংলায় ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন, ঘোষণা মমতার

সর্বদল বৈঠক শেষে মমতা যা জানালেন, একনজরে জেনে নিন…

* আমফানে একাধিক দলের সদস্য় নিয়ে কমিটি গঠন করা হবে।

*কমিটিতে তৃণমূলের পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়, সিপিএমের সুজন চক্রবর্তী, কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্য, স্বপন বন্দ্য়োপাধ্য়ায়রা রয়েছেন। সর্বদলীয় রেজিলিউশনের খসড়া বানাবে এই কমিটি। খসড়ার একটা কপি কেন্দ্রকে পাঠানো হবে।

* গরিব কল্য়াণ রোজকার যোজনা নিয়েও কথা হয়েছে এদিনের বৈঠকে।

* মমতা বলেছেন, ”সুন্দরবন নিয়ে সমস্য়া হচ্ছে। মাস্টার প্ল্য়ান তৈরি করা হবে। নীতি আয়োগকে চিঠি লিখব, যাতে টিম পাঠিয়ে মাস্টার প্ল্য়ান তৈরি করে। বাঁধ নিয়ে স্থায়ী সমাধান করার চেষ্টা করা হবে”।

*অসংগঠিত ক্ষেত্রে সাহায্য় করা উচিত, এ নিয়ে সকলে ঐক্য়মত হয়েছেন।

*আমফানের ব্য়াপারে আরও টাকার প্রয়োজন বলে মতপ্রকাশ করেছেন সকলে, জানিয়েছেন মমতা।

* নন কোভিড রোগীদেরও যত্ন নেওয়ার কথা বলা হয়েছে বৈঠকে।

* মমতা বলেছেন, ”করোনা নিয়ে আরও যত্ন নেওয়ার কথা বলা হয়েছে”। বেসরকারি হাসপাতালের উদ্দেশে মমতা বলেছেন, ”এই সময় ব্য়বসা করার সময় নয়, মানবিকতার সময়”।

*যেখানে টেস্টিং ল্য়াব (করোনা পরীক্ষাগার) নেই, সেখানে তা করার জন্য় কেন্দ্রের কাছে অনুরোধ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন মমতা।

* মাস্ক নিয়ে কথা হয়েছে, ৩ কোটি মাস্কের বরাত দেওয়া হয়েছে বলে জানালেন মমতা।

* আমফানে অনেকে বঞ্চিত হয়েছেন ত্রাণ নিয়ে তাই কোনওরকম বঞ্চনা সরকার বরদাস্ত করবে না। দলবাজি প্রশ্রয় দেওয়ার জায়গা নেই। যাঁরা বঞ্চিত হয়েছেন, তাঁরা আবেদন জনাতে পারেন, ২১০০ আবেদনপত্র এসেছে আমার কাছে। কোনও গরিব মানুষকে বঞ্চনা করবেন না।

* বিডিও অফিস ভাঙচুর করবেন না, ঠিক জায়গায় অভিযোগ জানান।

* পরিবহণ নিয়ে সমস্য়ার কথা সকলে বলেছেন, পরিবহণে যাঁরা আছেন, তাঁদের আর্জি জানাচ্ছি, ভাড়া বাড়াব না বলে বাস নামাব না, এটা করবেন না প্লিজ।

* লকডাউন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সবাই যে এ নিয়ে একমত তা নন। কেউ বলেছেন ১৫ দিন বাড়ান, কেউ বলেছেন আলাদা মতামত রয়েছে। লকডাউন আরও একটু বাড়াই। করোনা সংক্রমণ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সে ব্য়াপারে সতর্ক থাকতে হবে। কিছু ছাড় দিয়ে ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানো হল।

আরও পড়ুন: আজ বাংলার বড় খবর: লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত মমতার-আমফানে বিরোধীদের নিয়ে কমিটি গঠন-করোনায় মৃত তৃণমূল বিধায়ক-উত্তরে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

বৈঠক শেষে বিরোধীরা কী জানালেন?

*বিজেপি রাজ্য় সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ”৪ ঘণ্টার বৈঠক হয়েছে। সবাই মনখুলে বলেছেন। মুখ্য়মন্ত্রীকে যে দুটি চিঠি লিখেছিলাম, সেটা নিয়ে বলেছি। আমাদের উপর পুলিশি অত্য়াচার নিয়ে কথা বলেছি। আমাদের সাজেশন জানিয়েছি”।

*সিপিএমের রাজ্য় সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, ”লকডাউন বাড়ানো হোক চেয়েছেন মমতা, লকডাউন বাড়ানো নিয়ে ভিন্নমত রয়েছে। প্রস্তুতি না নিয়ে ৪ ঘণ্টার মধ্য়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল। আমাদের সঙ্গে কথা না বলেই নেওয়া হয়েছিল”।

*বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, ” বিপর্যস্ত মানুষের ত্রাণ আদায় করতে হবে, আমরা এটা চেয়েছিলাম। এদিকে বলছে লকডাউন, এদিকে বলছে উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষা হবে, সরকারকে বলতে হল, দেখা যাক কী করা যায়”। উল্লেখ্য়, এদিন মমতা বলেছেন, ”কিছু ছাড় দিয়ে লকডাউন বাড়াচ্ছি। উচ্চমাধ্য়মিকের ৩টে পরীক্ষা বাকি আছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কীভাবে করা হবে, সেটা দেখে নেওয়া হবে”।

তিনি আরও বলেছেন, ”সুন্দরবন নিয়ে সমস্য়ার কথা বলেছি। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রকাশ করা হোক। অবাস যোজনা নিয়ে কথা হয়েছে। পরিবহণ সমস্য়া, কর্মসংস্থান নিয়ে কথা হয়েছে। কিছু কথা গ্রহণ করেছেন, কিছু কথা গ্রহণ করতে বাধ্য় হয়েছেন। লকডাউন আচমকা বাড়ানো হল, পরিকল্পনাহীন। সরকার বলেছে লকডাউন করবে। সকলে বলেছে আমফান নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে। সরকার বলেছে ব্য়বস্থা নিয়েছে। আমরা বলেছি ব্য়বস্থা নেওয়া হয়নি”।

* কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেছেন, ”আরও কোভিড হাসপাতালের দরকার। টেস্টিং ল্য়াবের দরকার। বারবার দাবি করেছি। করোনা পরীক্ষা আরও করার কথা বলেছি। নন কোভিড রোগীদের কথা ভাবতে বলেছি”।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: All party meeting updates mamata banerjee dilip ghosh suryakanta mishra pradin banerjee corona amphan

Next Story
বাংলায় কনটেনমেন্ট জোনে ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন, ঘোষণা মমতারmamata banerjee,মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়, মমতা, মমতা ব্য়ানার্জী, মমতা ব্য়ানার্জি, coronavirus, করোনা, করোনাভাইরাস, mamata, mamata latest news, corona, safe home centre, সেফ হোম সেন্টার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com