দুই জেলায় পুলিশের অভিযান, গ্রেফতার ৪ বেআইনি অস্ত্র কারবারী

জীবনতলায় অস্ত্র কারখানার সন্ধান পায় পুলিশ। উদ্ধার হয় বেশ কিছু অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম। মুর্শিদাবাদের ফারাক্কায় বেআইনি অস্ত্রের সঙ্গেই উদ্ধার হয় ভারতীয় জাল নোট।

By: Kolkata  Published: September 17, 2019, 9:59:52 AM

রাজ্যের মিলল অস্ত্র কারখানার হদিশ। দুই জেলায় পুলিশের জালে ৪ অস্ত্র কারবারী। রবিবার গভীর রাতে হানা দিয়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলায় অস্ত্র কারখানার সন্ধান পায় পুলিশ। উদ্ধার হয় বেশ কিছু অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম। মুর্শিদাবাদের ফারাক্কায় বেআইনি অস্ত্রের সঙ্গেই উদ্ধার হয় ভারতীয় জাল নোট।

আরও পড়ুন: কর্তারপুর করিডর খুলছে ৯ নভেম্বর, জানাল পাকিস্তান

জীবনতলা থানার পুলিশ ও বারুইপুর জেলা পুলিশ যৌথ অভিযান চালায়। তাতেই মেলে সাফল্য। খুনখালি খাগড়া গ্রামের আকুবর সর্দারের বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। সেখানেই চলছিল বেআইনি অস্ত্র তৈরির কাজ। বাড়ি থেকেই গ্রেফতার করা হয় বেআইনি অস্ত্র কারবারী আকুবর সর্দার ও তার সঙ্গী আমিন সানফুইকে। বারুইপুর পুলিশ জেলা সুপার রশিদ খান বলেন, ‘ওই কারখানা থেকে তিনটি প্রায় ৫০ ইঞ্চির সিঙ্গেল ব্যারেল বন্দুক, তিনটি দেশী ছোট ছোট আগ্নেয়াস্ত্র, একটি ছয় চেম্বারযুক্ত ছোট পিস্তল, একটি ৭.৫ মিমি পিস্তল, দুটি সতেজ কার্তুজ এবং ছয়টি অসম্পূর্ণ লোহার পিস্তল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।’ এছাড়াও উদ্ধার হয়েছে অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম ও ড্রিল মেশিন। বেআইনি এই অস্ত্র কারবারের সহ্গে যুক্ত বাসন্তীর ওয়াহব মোল্লা পলাতক। তবে, তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বন্দুক ও কার্তুজের মশলা উদ্ধার করা হয়েছে। বেআইনি অস্ত্র আইনে স্বতপ্রণোদিত মামলা রুজু করেছে জীবনতলা থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: ফের সিবিআই বনাম মমতার পুলিশ? রাজ্য পুলিশের ‘নজরবন্দি’ সিজিও কমপ্লেক্স

এদিকে, মুৎ্শিদাবাদের ফারাক্কা পুলিশও অভিযান চালিয়ে শহ্করপুর মোড় থেকে দুই বেআইনি অস্ত্র কারবারীকে গ্রেফতার করেছে। ধৃত আলি হোসেন আমির শেখের বাড়ি বাংলা ঝাড়খণ্ড সীমানার পাকুড়ে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে, ১৪টি পিস্তল, ৬৭টি কার্তুজ সহ ৬০ হাজার জাল ভারতীয় নোট।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Arms unit busted four held in two districts of bengal

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং