scorecardresearch

বড় খবর

সংক্রমণ এড়াতে পদক্ষেপ, অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ বেলুড় মঠ

পুনরায় না জানানো পর্যন্ত আপাত বেলুড় মঠে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

Belur Math will remain closed for the devotees and visitors due to corona
আপাতত বন্ধ বেলুড় মঠ।

রাজ্যজুড়ে বাড়ছে করোনার দাপট। প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে ফের একবার সাবধানী পদক্ষেপ বেলুড় মঠের। রাজ্যের সাম্প্রতিক করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় আপাতত অনির্দিষ্টকালের জন্য বেলুড় মঠ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মঠ কর্তৃপক্ষের তরফে বিবিৃতি জারি করে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বড়দিনের পর থেকে রাজ্যে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। মাত্রাছাড়া সংক্রমণে ত্রস্ত বাংলা। ফি দিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছেন। গতকালও রাজ্যজুড়ে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৬১৫৩ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার কমে বর্তমানে কমে ৯৭.৭%। প্রায় ৩ হাজার ৮০০ বেড়ে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা গতকাল পর্যন্ত ছিল ১৭,০৩৮। আজ সেই সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা।

সংক্রমণ এড়াতে এবার সাবধানী পদক্ষেপ বেলুড় মঠ কর্তৃপক্ষের। বিজ্ঞপ্তি জারি করে বেলুড় মঠ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ”সবার অবগতির জন্য জানানো হচ্ছে যে আপাতত পুনরায় না জানানো পর্যন্ত ভক্ত ও দর্শনার্থীদের জন্য বেলুড় মঠে প্রবেশ বন্ধ রাখা হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ২.১.২০২-এর করোনা সংক্রান্ত নির্দেশিকা অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

আরও পড়ুন- রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণ ৬ হাজার পার! প্রায় ৫০% আক্রান্ত কলকাতার

উল্লেখ্য, রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক জায়গায় পৌঁছেছে। এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণে লাগাম টানতে গতকালই একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য সরকার। আপাতত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যে জারি বিধি-নিষেধ। আজ থেকেই বন্ধ হয়েছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়। সরকারি-বেসরকারি অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ করার কথা বলা হয়েছে। এছাড়াও লোকাল ট্রেন, মেট্রোতেও ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলাচলে ছাড় দেওয়া হয়েছে। সন্দে সাতটার পর লোকাল ট্রেন চলাচল সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ থাকছে। করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে পর্যটন কেন্দ্রগুলিও।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Belur math will remain closed for the devotees and visitors due to corona