scorecardresearch

বড় খবর

‘ওসি-আইসিদের মাথা ফাটিয়ে থানা জ্বালিয়ে দিন’, বিজেপি বিধায়কের নজিরবিহীন নিদানে তোলপাড়

কেন এমন বললেন? তাতে অকপট গেরুয়া বিধায়ক।

‘ওসি-আইসিদের মাথা ফাটিয়ে থানা জ্বালিয়ে দিন’, বিজেপি বিধায়কের নজিরবিহীন নিদানে তোলপাড়
বিজেপি বিধায়ক স্বপণ মজুমদার। ছবি- গৌতম মণ্ডল

বছরের শেষ দিনে নজিরবিহীন নিদান এবার বিজেপি বিধায়কের মুখে। থানার ওসি এবং আইসিদের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার নির্দেশেই খান্ত থাকলেন না। পাশাপাশি দিলেন থানায় আগুন লাগিয়ে দেওয়ার নিদানও। বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি বিধায়ক স্বপন মজুমদারের মন্তব্য ঘিরেই আপাতত জোর চর্চা।

কী বলেছেন স্বপণ মজুমদার?

আবাস যোজনার তালিকা ঘিরে বাংলায় তুলকালাম। তালিকা থেকে নাম বাদ যাওয়ার প্রতিবাদে সরব বিজেপি। তালিকায় কেলেঙ্কারির জেরে গত মঙ্গলবার অশোকনগরের পঞ্চায়েত দফতর ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন গ্রামবাসীরা। মূলত বিজেপির নেতৃত্বেই ছিল সেই বিক্ষোভ। অভিযোগ, ওই কর্মসূচি চলাকালীনই ভুরকুন্ডা পঞ্চায়েতের বিজেপি মণ্ডল সভাপতি দিলীপ বৈদ্যকে নিগ্রহ করা হয়। যা নিয়ে তোলপাড় হয় অশোকনগর।

বিজেপি মণ্ডল সভাপতি দিলীপ বৈদ্যকে মারধরের প্রতিবাদেই শনিবার বিকেলে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে অশোকনগর থানার কাছে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপির। সেখানেই বক্তব্য পেশের সময় পুলিশকে নিশানা করে হুঁশিয়ারি দেন বিজেপি বিধায়ক স্বপণ মজুমদার।

গরমাগরম ভাষণে স্বপণবাবু বলেন, ‘আপনাদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। যে এই কাজ করেছে, তাকে গ্রেফতার করা হোক। নইলে ওই থানায় আগুন লাগিয়ে দিন। নিচুতলারগুলো এই কাজ করেন না। ওসি এবং আইসিদের মাথা ফাটিয়ে দিন। ওদের মদতেই গরিব মানুষগুলোকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।’

বিজেপি বিধায়কের এহেন মন্তব্য নিয়ে সোচ্চার তৃণমূল। তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনার নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেছেন, ‘ওটাই বিজেপির সংস্কৃতি। ওরা গণতন্ত্র, আইন কিছুই মানে না। বিধানসভায় গোহারা হেরেছে, পঞ্চায়েতে বিজেপিকে কোথাও খুঁজে পায়া যাবে না।’

বিজেপির রাজ্য মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য অবশ্য দলীয় বিধায়ক স্বপণের মন্তব্য নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি। তাঁর যুক্তি, ‘বিধায়ক কী বলেছেন আমি শুনিনি। ফলে মন্তব্য করব না। আর ঠিক বলেছেন নাকি ভুল তার বড় বিচারক মানুষ।’

কিন্তু একজন বিধায়ক কী এ ধরণের হুঁশিয়ারি দিতে পারে? জবাবে বিজেপি দিধায়ক স্বপণ মজুমদার সাফ বলেছেন, ‘দলের একাধিক কার্যকর্তাকে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। ২০১৯ সালের পর থেকে দুশোর বেশি কার্যকর্তার দেহ আমাদের শ্মশানে নিয়ে যেতে হয়েছে। তার কারণ এই সব নপুংসক পুলিশ। তাই এদের আমরা পুজো করব না, পুলিশ কর্তৃব্য পালন না করলে মানুষ অস্ত্র তুলে নেবে। গণতন্ত্রকে হত্যায় এই দলদাস পুলিশ মদত দেয়। বিজেপি মার খেলে কোনও পুলিশি পদক্ষেপ হয় না। ফলে যা বলার বলেছি। এ জন্য আমার বিরুদ্ধে মামলা হলে হোক।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp mla bonga south swapan majumdar warns police