scorecardresearch

বড় খবর

মমতার পরামর্শ মানলেন বিজেপি বিধায়করা, বিধানসভায় বেচলেন চা-ঘুগনি-ঝালমুড়ি!

বিজেপি বিধায়কদের গলায় ঝোলানো ছিল কালো প্ল্যাকার্ড। সেখানে লেখা ছিল, ‘‌আমার খোকা লুটবে বঙ্গ, করবে দেদার চুরি/‌ তোমার খোকা বেচবে পুজোয় ঘুগনি–ঝালমুড়ি।’‌

মমতার পরামর্শ মানলেন বিজেপি বিধায়করা, বিধানসভায় বেচলেন চা-ঘুগনি-ঝালমুড়ি!
চা, মুড়ি, ঘুঘনি বেচছেন বিজেপি বিধায়করা।

দিন কয়েক আগেই চা, চপ, ঘুগনি, মুড়ি বিক্রির কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। যা নিয়ে জোর চর্চা। বেকারত্ব কমাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শকে কটাক্ষ করেছে বিরোধী দল বিজেপি। আর শুধু মুখে সমালোচনা নয়, এবার প্রতীকী প্রতিবাদ হিসেবে বিধানসভার সামনে হেঁকেডেকে চা, ঘুগনি ও ঝালমুড়ি বিক্রি করলেন বিজেপি বিধায়করা।

এদিনের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বিজেপি বিধায়কদের গলায় ঝোলানো ছিল কালো প্ল্যাকার্ড। সেখানে লেখা ছিল, ‘‌আমার খোকা লুটবে বঙ্গ, করবে দেদার চুরি/‌ তোমার খোকা বেচবে পুজোয় ঘুগনি–ঝালমুড়ি।’‌

চা, মুড়ি, ঘুঘনি নিয়ে বৃহস্পতিবারের প্রতিবাদে দেখা যায় চাকদহের বিধায়ক বঙ্কিম ঘোষ, বিরোধী দলের হুইপ মনোজ টিগ্গা–সহ একাধিক বিজেপি বিধায়ককে। কেন এই প্রতিবাদ? জবাবে বঙ্কিম ঘোষ বলেন, ‘‌চা, চপ, মুড়ি বিক্রি করে কোটিপতি হওয়া যায়, একথা বলেছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। শুধু রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সবাই কোটিপতি হবেন তা হয় না। আমাদেরও ইচ্ছে হয় কোটিপতি হতে। তাই আমরা ওঁর পরামর্শ মেনে এসব বিক্রি করছি। রাজ্যের যুব সমাজকেও বলছি চা, ঘুগনি বিক্রি করে কোটিপতি হতে।’

আরও পড়ুন- ‘সুজিতবাবু রাস্তা যেন বন্ধ না হয়, হলেই ঘ্যাচাং ফু’, ভিড় নিয়ে হুঁশিয়ারি মমতার

খড়্গপুরের দলীয় কর্মসূচিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যুব সমাজকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘এক হাজার টাকা জোগাড় করে একটা কেটলি কিনুন আর মাটির ভাঁড় নিন। চা বিক্রি করুন। এরপর প্রথম সপ্তাহে সঙ্গে কিছু বিস্কুট নিন। তার পরের সপ্তাহে মাকে বললেন একটু ঘুগনি তৈরি করে দাও। তার পরের সপ্তাহে একটু তেলেভাজা করলেন। একটা টুল আর একটা টেবিল নিয়ে বসলেন। আস্তে আস্তে বাড়বে। এই তো পুজো আসছে সামনে। দেখবেন লোককে দিয়ে কুলোতে পারবেন না।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp mla s sell tea muri ghugni in assembly to mocking mamata