ফের ‘বিজেপি কর্মী’ খুন নদীয়ায়, অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে

শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ তিনি দোকান বন্ধ করার তোড়জোড় করছিলেন। তখনই দুই যুবক আচমকা তাঁকে পিছন থেকে খুব অল্প দূরত্বে গুলি ছোড়ে। গুলির শব্দ শুনে দোকানের ভিতর থেকে ছুটে আসেন তাঁর স্ত্রী।

By: Kolkata  October 12, 2019, 4:58:45 PM

রাজ্যে আইন-শৃঙ্খলার অবনতির প্রতিবাদে কলকাতায় গান্ধী মূর্তির পাদদেশে অবস্থান-বিক্ষোভে করছে রাজ্য বিজেপি। এদিকে রানাঘাটে ফের এক বিজেপি কর্মীকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা খুন করেছে বলেই অভিযোগ করেছে বিজেপির জেলা সভাপতি মানবেন্দ্র রায়। যদিও তৃণমূল কংগ্রেস এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

জানা যাচ্ছে, রানাঘাট থানার কলাইঘাটা গ্রামের বাসিন্দা হরলাল দেবনাথ বাড়ির কাছেই একটি মুদিখানা দোকান চালাতেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ তিনি দোকান বন্ধ করার তোড়জোড় করছিলেন। তখনই দুই যুবক আচমকা তাঁকে পিছন থেকে খুব অল্প দূরত্বে গুলি ছোড়ে। গুলির শব্দ শুনে দোকানের ভিতর থেকে ছুটে আসেন তাঁর স্ত্রী। এরপর স্ত্রীর চিৎকারে ছুটে আসে এলাকার লোকজন। ততক্ষণে দুই যুবক সেখান থেকে পিঠটান দেয়। স্থানীয়রা তাঁকে কল্যাণীর জওহরলাল নেহরু মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিতিকসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। বিজেপির দাবি, হরলাল দেবনাথ দলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। এর আগে নদীয়ায় আর এক বিজেপি কর্মী সুপ্রীয় বন্দ্যোপাধ্যায়কেও খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছিল বিজেপি।

জেলা বিজেপির সভাপতি মানবেন্দ্র রায় বলেন, “তিন দিন ধরে হরলাল দেবনাথকে হুমকি দিচ্ছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তিনি ১৯৯৫ সাল থেকে বিজেপি করছেন। পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলের হয়ে প্রচুর কাজ করেছিলেন। ওই এলাকায় বিজেপির উত্থান তৃণমূল সহ্য করতে পারছে না। তাদের চাপের কাছে নতি স্বীকার করছিল না হরলালবাবু। এরই পরিণতিতে এই খুন। এই খুনের প্রতিবাদে জেলায় জোরদার আন্দোলনে নামবে বিজেপি।” সকালে কল্যাণী হাসপাতালে যান রাজ্য সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার।

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the West-bengal News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Bjp worker murder at ranaghat in west bengal

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
BIG NEWS
X