scorecardresearch

বড় খবর

অভিষেকের সভার আগের রাতে বিস্ফোরণে উড়ল তৃণমূল নেতার বাড়ি, ঝলসে মৃত নেতা-সহ ৩

বোমা বাঁধতে গিয়েই বিপত্তি, দাবি বিজেপির।

অভিষেকের সভার আগের রাতে বিস্ফোরণে উড়ল তৃণমূল নেতার বাড়ি, ঝলসে মৃত নেতা-সহ ৩
বিস্ফোরণে কার্যত উড়ে গিয়েছে তৃণমূল নেতার বাড়ি। ছবি: কৌশিক দাস।

কাঁথিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভার আগের রাতে ভূপতিনগরে বিস্ফোরণে উড়ল তৃণমূল নেতার বাড়ী। ভয়াবহ ওই বিস্ফোরণে তৃণমূল নেতা-সহ তিনজনের মৃত্যুর আশঙ্কা। বিস্ফোরণে আরও ২ জন গুরুতর জখম হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। বোমা বাঁধতে গিয়েই এই বিস্ফোরণ, দাবি বিজেপির।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০ টা নাগাদ পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরের অর্জুন নগরের নাড়য়াবিলা গ্রামে তৃণমূল নেতা রাজকুমার মান্নার বাড়িতে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। সেই বিস্ফোরণে রাজকুমার-সহ তাঁর ভাই দেবকুমার মান্না ও বিশ্বজিৎ গায়েন নামে মোট তিনজন নিহত হয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। রাজকুমার মান্না এলাকার তৃণমূল কংগ্রেসের বুথ সভাপতি। বিস্ফোরণে জখম আরও ২ জনকে উদ্ধার করে পশ্চিম মেদিনীপুরের একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গোটা এলাকা থমথমে রয়েছে। রাতভর গ্রামে পুলিশ টহলদারি চলেছে।

বোমা বাঁধতে গিয়েই এই বিস্ফোরণ বলে অভিযোগ বিজেপির। নাড়ুয়াবিলা গ্রামের তৃণমূল কংগ্রেসের বুথ সভাপতি রাজকুমার মান্নার বাড়ীতে বোমা বাঁধার কাজই চলছিল বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের। অতর্কিতে বিস্ফোরণে পরপর কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি বিজেপি নেতাদের। গতকাল রাতে ওই বিস্ফোরণের জেরে বাড়িটি কার্যত লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে। বিস্ফোরণে তিনজনের মৃত্যুর পাশাপাশি আরও ২ জন জখম হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। নিহত-আহতরা প্রত্যেকেই তৃণমূলের সঙ্গে ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত বলে দাবি বিজেপির।

কাঁথি সাংগঠনিক জেলার বিজেপি সাধারণ সম্পাদক তাপস কুমার দোলুই বলেন ” তৃণমূল নেতার বাড়ীতে বোমা বাঁধতে গিয়ে এই বিপত্তি। তৃণমূল নেতা সহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি আরও আমরা খোঁজখবর নিয়ে দেখছি।”

ভগবানপুরের বিধায়ক তথা বিজেপি নেতা রবীন্দ্রনাথ মাইতি বলেন, “রাতের অন্ধকারে বোমা বাঁধতে এই ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের উপস্থিতিতে মৃতদেহ গায়েব করার চক্রান্ত চলছে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি না করে পশ্চিম মেদিনীপুরে নিয়ে যাচ্ছে। দু’জনের মৃত্যু নয় মৃতের সংখ্যা আরও বেশি বলে মনে করছি। পুলিশ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে।”

যদিও এ বিষয়ে ভূপতিনগর থানার পুলিশ ও জেলা পুলিশের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। একাধিকবার তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব থেকে জেলা নেতৃত্বকে ফোন করা হলেও তাঁরা ফোন ধরেননি। উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকেই কার্যত উত্তপ্ত ছিল ভূপতিনগরের বিস্তীর্ণ এলাকা। রাতের অন্ধকারে বোমাবাজি ও গুলির শব্দ প্রায় দিনই শোনা যায়। কয়েকদিন আগে তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি মিহির ভৌমিককে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠেছিল বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। রাতের অন্ধকারে এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি ও গুলি চালানোরও অভিযোগ ওঠে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশি টহলও চলেছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bomb blast at east midnapur bhupatinagar 3 are died519906