scorecardresearch

বড় খবর

দেগঙ্গায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ তৃণমূলনেত্রীর বাড়িতে, জখম ২, NIA তদন্ত দাবি বিজেপির

রবিবার সকালে তৃণমূলর ওই পঞ্চায়েত সদস্যার নির্মীয়মাণ বাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটে।

দেগঙ্গায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ তৃণমূলনেত্রীর বাড়িতে, জখম ২, NIA তদন্ত দাবি বিজেপির
প্রতীকী ছবি।

সাতসকালে উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গার বেড়াচঁপায় তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যার নির্মীয়মাণ বাড়িতে বিস্ফোরণ। বোমা ফেটে জখম ২ শ্রমিক। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। বাড়িতে মাটির নীচে মজুত বোমা ফেটেই বিস্ফোরণ, প্রাথমিক তদন্তের পর এমনই দাবি পুলিশের। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার ৩টি তাজা বোমা। পঞ্চায়েত ভোটের আগে গত কয়েকদিনে উত্তর ২৪ পরগনা-সহ একাধিক জেলা থেকে বোমা-গুলি উদ্ধারের ঘটনা ঘটছে। যা নিয়ে শাসকদলকেই নিশানা করছে বিরোধীরা।

দেগঙ্গারা বেড়াচাঁপার উত্তর চাঁদপুর গ্রামে সাতসকালে হুলস্থূল-কাণ্ড। স্থানীয় তৃণমূলনেত্রীর নির্মীয়মাণ বাড়িতে হঠাৎ বিস্ফোরণ। বিস্ফোরণের শব্দ পেয়ই ওই বাড়িতে ছুটে যান এলাকাবাসী। ততক্ষণে বোমা ফেটে জখম হয়ে কাতরাচ্ছিলেন ২ শ্রমিক। তড়িঘড়ি তাঁদের সেখান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে দুজনের আঘাত গুরুতর নয় বলেই জানা গিয়েছে।

এদিকে, এই বিস্ফোরণের খবর পেয়েই এলাকায় যায় পুলিশ। নির্মীয়মাণ ওই বাড়িতে মাটির নীচে বোমা মজুত ছিল। কোনওভাবে তা ফেটে গিয়েই বিস্ফোরণ ঘটে বলে অনুমান পুলিশের। ওই বাড়ি থেকে ৩টি তাজা বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এলাকার আশেপাশে আরও বোমা মজুত রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন- শরীর কেমন জানতে চাইলে বলছেন ‘ভালো নেই’, লটারি কার..প্রশ্নে মুখে কুলুপ কেষ্টর

পঞ্চায়েত ভোটের আগে উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকা থেকে বোমা-বন্দুক উদ্ধারের ঘটনা বেড়েই চলেছে। গোটা জেলার আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। গত সপ্তাহেই এসটিএফ শাসনের এক তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করে। গ্রেফতার করা হয় ওই তৃণমূল নেতাকে। এর মাত্র কয়েকদিনের মাথায় ওই শাসন থেকেই আগ্নেয়াস্ত্র-সহ গ্রেফতার করা হয় এক আইএসএফ নেতাকে। তারই কয়েকদিনের মাথায় এবার বেড়াচাঁপায় তৃণমূলনেত্রীর বাড়িতে বিস্ফোরণ।

পঞ্চায়েত ভোটের মুখে তৃণমূল নেতাদের বড়ি থেকে কখনও অস্ত্র উদ্ধার কখনও বিস্ফোরণের ঘটনা নিয়ে শাসকদলকেই নিশানা করেছে বিরোধীরা। বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা বলেন, ”যেভাবে চারিদিকে বোমা পাওয়া যাচ্ছে, খাগড়াগড়ের স্মৃতি মনে পড়ে যাচ্ছে। সর্বত্র বোমা-অস্ত্র মজুত আছে। পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বড় শিল্প হল বোমা শিল্প। ঘরে ঘরে এখন কুটির শিল্প হয়েছে। এই ঘটনার এনআইএ তদন্ত দাবি করছি। তৃণমূলের সঙ্গে বাইরের উগ্রপন্থীদের যোগ আছে, এটা প্রমাণ হবে।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bomb blast at tmc leaders house at deganga probe going on510161