scorecardresearch

বড় খবর

অভিষেকের মন্তব্যের পাল্টা, পুলিশের শরীর গুলিতে ঝাঁঝরা করার চরম হুঁশিয়ারি

অনুব্রতর জেলায় গিয়ে পুলিশকে চরম হুঁশিয়ারি কংগ্রেস নেত্রীর।

অভিষেকের মন্তব্যের পাল্টা, পুলিশের শরীর গুলিতে ঝাঁঝরা করার চরম হুঁশিয়ারি
পুলিশকে এবার চরম হুঁশিয়ারি কংগ্রেস নেত্রীর।

অনুব্রত মণ্ডলের জেলা বীরভূমে পঞ্চায়েত ভোটের প্রচারে গিয়ে এবার পুলিশকে চরম হুঁশিয়ারি প্রদেশ কংগ্রেস নেত্রীর! পুলিশের শরীর গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে তীব্র বিতর্ক জড়িয়েছেন কংগ্রেসের রাজ্য সভানেত্রী সুব্রতা দত্ত।

বীরভূমের হাসন বিধানসভা কেন্দ্রে পঞ্চায়েত ভোটের প্রচারে গিয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভানেত্রী সুব্রতা দত্ত। সেখানেই তাঁর এই হুঁশিয়ারি রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দিয়েছে। অবিলম্বে কংগ্রেসের এই রাজ্যনেত্রীর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপের আর্জি জানিয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম। ‘আবেগপ্রবণ’ হয়েই এই মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর, সাফাই দিতে গিয়ে এমনই বলেছেন বীরভূমের কংগ্রেস সভাপতি।

পঞ্চায়েত ভোট যত এগোচ্ছে রাজ্য রাজনীতির আঙিনা ততই উত্তপ্ত হচ্ছে। একদিকে জেলায়-জেলায় বাড়ছে হিংসা, অন্যদিকে কু-কথার বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের একাংশ। এবার সেই তালিকায় নবতম সংযোজন প্রদেশ কংগ্রেসের রাজ্য সভানেত্রী সুব্রতা দত্ত। বীরভূমের হাসন বিধানসভা কেন্দ্রে পঞ্চায়েত ভোটের প্রচারে গিয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের রাজ্য নেত্রী সুব্রতা দত্ত। দলীয় সভায় ভাষণ দিতে গিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি মন্তব্যকে ঢাল করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন- ‘অনেকে কালীঘাটে প্রণাম করেন, উনি ওখানে করেছেন’, শুভেন্দুকে নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য দিলীপের

এর আগে কলকাতায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে কপালে গুলি করার নিদান দিয়ে তীব্র বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। এবার দলের সভায় অভিষেকের সেই মন্তব্যকে ঢাল করে কংগ্রেস নেত্রী পুলিশকে দিলেন চরম হুঁশিয়ারি। তিনি বলেন, ”পুলিশকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাবেন। দরকার পড়লে বোমা মারতে হবে। পুলিশকে গুলি করে শরীর ঝাঁঝরা করে দিতে হবে। যদি ভাইপো বলতে পারেন মাথার এইখানে গুলি করবে, তাহলে আমরা কংগ্রেস বলছি পুলিশকে সারা বডিতে ঝাঁঝরা করে দেব। খালি এখানে গুলি করব না। পুলিশকে একদম ভয় পাবেন না।”

কংগ্রেস নেত্রীর এহেন মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতায় তৃণমূল। রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এপ্রসঙ্গে বলেন, ”এটা অপরাধীদের কথা। এই কথাটা কখনই একজন রাজনৈতিক নেত্রী বলতে পারেন না। রাস্তার অপরাধীরা এই কথাটা বলবে। গুলি করার কথাটা (অভিষেকের মন্তব্য) ছিল একটা পরিপ্রেক্ষিত। এটাকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করছে। উসকানি দিচ্ছে। এক্ষুনি ওঁর বিরুদ্ধে কেস দিয়ে পুলিশের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।”

এদিকে, দলের নেত্রীর এই মন্তব্যে বেজায় বেকায়দায় কংগ্রেসও। বীরভূমের কংগ্রেস সভাপতি অবশ্য দলের নেত্রী সুব্রতা দত্তের এই মন্তব্যের পিছনে ‘আবেগ’ দেখছেন। তাঁর কথায়, ”এটা হুমকি নয়। ইমোশনানলি এটা বলেছেন। আমরা জাতীয় কংগ্রেস করি। তাঁর এই মন্তব্য ঠিক বলে মনে করি না। আমরা গুলির রাজনীতি করি না।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cong leader subrata dutta threats police at panchayat election campaign