বড় খবর

উদ্ধার চার শ্রমিকের ঝলসানো দেহ, নিউ ব্যারাকপুরের অগ্নিদগ্ধ গেঞ্জি কারখানা থেকে

গত বুধবার রাতে কারখানায় আগুন লাগার পর থেকেই খোঁজ মিলছিল না চার শ্রমিকের।

new barrackpore factory fire 4 workers deadbody recovered
কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও পুরোপুরি নিভে যায়নি বলে জানিয়েছে দমকল।

আটকে পড়া ৪ শ্রমিকের অগ্নিদগ্ধ দেহ উদ্ধার হল নিউ ব্যারাকপুরের গেঞ্জি কারখানার ভিতর থেকে। বুধবার রাতের পর এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি নিউ বারাকপুরের বিলকান্দার গেঞ্জি কারখানার আগুন। তবে, শনিবার সকালে আগুন আয়ত্তে আসার পর ভিতরে ঢোকে দমকল ও পুলিশ। দেখা যায় ঝলসানো অবস্থায় অগ্নিদগ্ধ কারখানার দোতলায় চারটি মৃতদেহ একসঙ্গে রয়েছে। এরপরই শনাক্তকরণের জন্য খবর দেওয়া হয় ওই শ্রমিকদের পরিবারকে। ময়নাতদন্তের পর দেহ তুলে দেওয়া হবে পরিবারের হাতে।

গত বুধবার রাতে কারখানায় আগুন লাগার পর থেকেই খোঁজ মিলছিল না চার শ্রমিক সুব্রত ঘোষ, তন্ময় ঘোষ, অঙ্কিত সেন এবং স্বরূপ ঘোষের। আশঙ্কা করা হচ্ছিল যে তাঁরা অগ্নিদগ্ধ কারখানার ভিতরে আটকে পড়েছিলেন। সেই আশঙ্কাই সত্যি হল। দমকলবাহিনী জানিয়েছেন, কার্যত লকডাউনের মধ্যেও কীভাবে ওই কারখানা খোলা রইল তা দেখার বিষয়। এছাড়া সেখানে কোনও অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা ছিল না।

তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও পুরোপুরি নিভে যায়নি বলে জানিয়েছে দমকল। ওই কারখানার বিভিন্ন জায়গায় পকেট ফায়ার রয়েছে। দমকল সূত্রে খবর, কারখানার মধ্যে এখনও বিভিন্ন জায়গায় আগুনের ফুলকি দেখা যাচ্ছে।

নিউ ব্যারাকপুরের তালবান্দার ওই গেঞ্জির কারখানায় বুধবার রাতে আগুন লাগে। গেঞ্জির সঙ্গেই ওই কারখানায় ওই বাড়িতেই একটি ওষুধের গুদাম এবং রঙের কারখানাও রয়েছে। কারখানার ভিতর গ্যাস সিলিন্ডার এবং ওষুধের গুদামেমজুত ছিল প্রচুর পরিমাণে স্যানিটাইজার। ছিল ডিজেলও। যার জেরে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Deadbody of 4 workers of new barrackpore factory recovered

Next Story
Bengal Coronavirus update: বাংলায় কমছে দৈনিক সংক্রমণের হার, আশা বাড়িয়ে বাড়ছে করোনাজয়ীর সংখ্যাBengal Coronavirus update 28 may 2021
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com