scorecardresearch

বড় খবর

দেউচায় অনুব্রত-র অভাব অনুভূতি ফিরহাদের, আক্ষেপ- ‘মিথ্যেভাবে বেশি দিন আটকে রাখা যায় না’

লালা মাটির জেলায় গেলেই শাসক দলের শীর্ষ নেতারা অনুব্রতকে মিস করছেন।

দেউচায় অনুব্রত-র অভাব অনুভূতি ফিরহাদের, আক্ষেপ- ‘মিথ্যেভাবে বেশি দিন আটকে রাখা যায় না’
অনুব্রত মণ্ডল, ফিরহাদ হাকিম

রাজ্য রাজনীতিতে গত কয়েক বছরে বীরভূম আর অনুব্রত মণ্ডল যেন সমার্থক। কিন্তু, গরু পাচার মামলায় সেই কেষ্টই এখন গারদে। তাঁর অভাব অনুভূত হচ্ছে তৃণমূলে। বিশেষ করে লালা মাটির জেলায় গেলেই শাসক দলের শীর্ষ নেতারা অনুব্রতকে মিস করছেন। শনিবার মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিের কথায় তা স্পষ্ট হল।

এ দিন দেউচা পাঁচামিতে প্রস্তাবিত খনি এলাকার পরিবারগুলিকে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। ওই মঞ্চেই অনুব্রত মণ্ডলের জন্য আক্ষেপ ঝড়ে পড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ এই নেতার মুখে।

কী বলেছেন ফিরহাদ হাকিম?

দেউচায় নিয়োগদানের মঞ্চে মন্ত্রী ফিরিহাদ হাকিম বলেন, ‘মানুষের পেটে ভাত দেওয়া শুভ কাজ। এর চেয়ে ভাল আর কিছু হয় না। গত সপ্তাহে মমতাদি বললেন, তোমায় যেতে হবে। আমি বললাম নিশ্চয়ই যাব।’

এরপরেই অপসোসের সুরে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘আরও আনন্দ পেতাম যদি এই স্টেজে অনুব্রত মণ্ডল থাকতেন।’ কিছুটা হুঁশিয়ারির ঢঙেই বলেন, ‘আজ নয় কাল, বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদবে না। যে অন্যায় করেছে সে আলাদা। করেনি তাকে মিথ্যেভাবে বেশি দিন আটকে রাখা যায় না।’

কেষ্টর গ্রেফতারির পর গত ১৪ অগাস্ট দক্ষিণ কলকাতায় প্রকাশ্যেই প্রথম প্রিয় নেতার পাশে থাকার বার্তা দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বীরের সম্মান দিয়ে বীরভূমের জেলা সভাপতিকে জেল থেকে বের করে আনার ডাক দিয়েছিলেন। নেত্রী পাশে থাকায় খোদ কেষ্টও স্বস্তির কথা জানিয়েছিলেন। এরপর থেকেই সাফ যে জোড়-ফুল রয়েছে অনুব্রত মণ্ডলের পাশে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Deucha panchami firhad hakim anubrata mondal