scorecardresearch

বড় খবর

‘সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারেন না, উনি কী দাওয়াই দেবেন?’, মদনকে ধুয়ে দিলেন দিলীপ

মদন মিত্রকে এবার পাল্টা দিলীপ ঘোষের।

‘সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারেন না, উনি কী দাওয়াই দেবেন?’, মদনকে ধুয়ে দিলেন দিলীপ
এবার দিলীপের নিশানায় মদন।

এবার মদন মিত্রকে পাল্টা দিলেন দিলীপ। নাম না করে বিরোধী দলনেতাকে বোমা-হুমকি দিয়েছিলেন মদন। একইসঙ্গে বিজেপিকে ঘটি-বাটি নিয়ে অন্যত্র পাঠানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক। এবার তারই পাল্টা দিলীপের। প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে দিলীপ উবাচ, ”সোজা হয়ে দাঁড়াতেই পারেন না। উনি আবার কী দাওয়াই দেবেন?”

সম্প্রতি নাম না করে নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ককে বোমা-হুমকি দেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। তিনি বলেন, ”দলের নির্দেশ এলে ১০ মিনিটও সময় লাগবে না। ঘটি-বাটি মুড়িয়ে অন্য জায়গায় ফেরত পাঠাব। তবে দল বলেছে হিংসা নয়, সৃষ্টি চাই। গুণ্ডামিতো করাই যায়। এখনই একটা ছেলেকে বাইক নিয়ে পাঠিয়ে চারটে বোমা মারলেই সব ফাঁকা। তবে তাতে তো কৃতিত্বের কিছু নেই।”

আরও পড়ুন- ‘সরকারি দলের বিধায়কের কথায় পুলিশ চলবে, এটা হয় না’, ফের বিস্ফোরক তাপস রায়

এদিন মদন মিত্রের সেই মন্তব্যের পাল্টা দিলীপ ঘোষ বলেন, ”ওসব ডায়লগ আমরা অনেক শুনেছি। উনি তো সোজা হয়ে দাঁড়াতেই পারেন না। উনি আবার কী দাওয়াই দেবেন। জিতে গায়ের জোর দেখাচ্ছিলেন। ১৩ তারিখ ওঁরা সব বুঝে গিয়েছেন। বাংলার মুড পাল্টে গিয়েছে। মানুষ যা দায়িত্ব দিয়েছে তা পালন করুন। না হলে মানুষই কান ধরে নামিয়ে দেবে।”

এরই পাশাপাশি এদিন ফের একবার টিটাগড়ে স্কুলে বোমা ছোঁড়া নিয়েও মুখ খুলেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এপ্রসঙ্গেও রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেছেন বিজেপি নেতা। এদিন তিনি বলেন, ”এর আগেও ওই এলাকায় ১৮ থেকে ২২ বছরের ছেলেরা এই ধরনের কাজ করে ধরা পড়েছিল। যৌবনে পা দিয়েই অপরাধী হয়ে যাচ্ছে। আয়-উপায় নেই, তাই টাকা-হাতিয়ার হাতে দিলেই নেমে পড়ছে রাস্তায়। এই যে অবক্ষয় হচ্ছে সমাজের, সরকারের কোনও দায় নেই? যতদিন চালাকি করে ভোট নেওয়ার চেষ্টা হবে ততদিন এই সমস্যা চলবে।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Dilip ghosh criticise tmc mla madan mitra