scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

‘টাটা বিদায় নিয়ে মন্তব্য মমতার সেরা জোকস, এতে প্রায়শ্চিত্ত হবে না’, আক্রমণ দিলীপের

সিঙ্গুর থেকে টাটাদের বিদায়ের দায় সিপিএমের ঘাড়েই চাপিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

‘টাটা বিদায় নিয়ে মন্তব্য মমতার সেরা জোকস, এতে প্রায়শ্চিত্ত হবে না’, আক্রমণ দিলীপের
আবারও দিলীপের নিশানায় মমতা।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘সিঙ্গুর-দায়’ ঝেড়ে ফেলার চেষ্টাকে তুলোধনা দিলীপ ঘোষের। বুধবারই মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, সিঙ্গুর থেকে টাটাদের তিনি নয়, তাড়িয়েছে সিপিএম। মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পাল্টা এবার দিলীপ ঘোষের। ‘এর চেয়ে ভাল জোকস আর হয় না, মমতা ব্যানার্জি জীবনে যত জোকস বলেছেন সবচেয়ে ভালো এটাই।’ বৃহস্পতিবার প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে ফের একবার দিলীপ ঘোষের ঝাঁঝালো আক্রমণের মুখে মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার শিলিগুড়িতে বিজয়া সম্মলনীর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুষ্ঠান মঞ্চে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সিঙ্গুর থেকে টাটাদের বিদায়-পর্ব নিয়ে মুখ খুলতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। তাঁকে বলতে শোনা যায়, ”কেউ কেউ মিথ্যে কথা বলে বেড়াচ্ছে। বলছে, আমি টাটাকে তাড়িয়েছি। আমি টাটাকে তাড়াইনি। সিপিএম তাড়িয়েছে। আপনারা লোকের জমি জোর করে দখল করতে গিয়েছিলেন। আমরা জমি ফেরত দিয়েছি। কারও জমি জোর করে নেওয়া হয়নি।”

আরও পড়ুন- ফের শিরোনামে সিঙ্গুর বিতর্ক, ‘আমি নই, টাটাকে তাড়িয়েছে CPIM’- দাবি মমতার, সরব বিরোধীরা

মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পাল্টা কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে সিপিএম। বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী তীব্র ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমোকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ্যমন্ত্রীর টাটাদের বিদায়-পর্ব নিয়ে করা মন্তব্যে ঘিরে কটাক্ষ ঘুরছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া এবার বিজেপিরও। সিঙ্গুর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যই টাটারা চলে যেতে বাধ্য হয়েছে, এমনই মনে করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য এরাজ্য থেকে বহু শিল্প চলে গিয়েছে বলেও দাবি করেছেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ।

সিঙ্গুর থেকে টাটাদের বিদায়-পর্ব নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ‘আমি তাড়াইনি’ মন্তব্যকে ধুয়ে দিয়েছেন দিলীপ। তিনি বলেন, ”এর চেয়ে ভাল জোকস আর হয় না, মমতা ব্যানার্জি জীবনে যত জোকস বলেছেন সবচেয়ে ভালো এটাই। লোকে দেখেছে ওখানে ধর্না মঞ্চে বসে ওনারা কি করছিলেন। বিরিয়ানি খেয়ে ধর্না দিচ্ছিলেন অনশন করছিলেন, সেই নাটক সবাই জানে।এখন এসব বলে প্রায়শ্চিত্ত হবে না। বাংলাকে শিল্পমুক্ত করেছেন উনি, এই কৃতিত্ব ওনার , ইতিহাসে নাম থেকে যাবে।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Dilip ghosh slams mamata banerjee