বড় খবর

আজব কাণ্ড! রাতের আঁধারে পুড়ছে বাইক-গাড়ি, আতঙ্কে প্রহর গুনছে দুর্গাপুর

কে বা কারা এই ঘটনার পিছনে সে ব্যাপারে এখনও অন্ধকারেই ইস্পাতনগরী

durgapur
পুড়ে চাই বাইক, দুষ্কৃতীদের তান্ডবে ত্রস্ত দুর্গাপুরবাসী। ছবি- অনির্বান কর্মকার

একবছর আগের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ইস্পাত নগরীতে। গভীর রাতে হঠাৎ করেই পুড়ছে বাইক, গাড়ি! আচমকা এই ঘটনায় কার্যত স্তম্ভিত দুর্গাপুর। পুলিশি তদন্তের মাঝেই বৃহস্পতিবার ফের গভীর রাতে শহরের বুকে পুড়লো তিনটি বাইক এবং একটি চার চাকা গাড়ী। কে বা কারা এই ঘটনার পিছনে সে ব্যাপারে এখনও অন্ধকারেই ইস্পাতনগরী

ঠিক কী ঘটেছে?

এক বছর আগে নিশাচর দুষ্কৃতীদের দাপটে গাড়ি, বাইক পোড়ার ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে উঠেছিল দুর্গাপুরবাসী। ফের সেই স্মৃতিকে সামনে আনল বৃহস্পতিবার রাতের ঘটনা। ইস্পাতনগরীর এডিসন এলাকায় পরপর দুটি বাড়ীতে দুষ্কৃতীরা রাতের অন্ধকারে ঢুকে তিনটি বাইক এবং একটি গাড়ি পুড়িয়ে দেয়। আতঙ্কিত বাড়ির মালিকেরা জানায় যে রাত দুটো থেকে আড়াইটা নাগাদ ঘরের বাইরে থেকে কিছু আওয়াজ পেয়ে তাঁরা বাইরে বেড়িয়ে দেখেন, দাউদাউ করে জ্বলছে গাড়ি। কিন্তু, কেন বাড়িতে ঢুকেই গ্যারেজে থাকা বাইক কিংবা গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিল দুষ্কৃতীরা? কীভাবে অগ্নিসংযোগ করা হল, এসব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারছেন না কেউই।

দুর্গাপুরের সব খবর পড়ুন এখানে

জানা যাচ্ছে, বৃহস্পতিবার আগুন লাগার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের একটি ইঞ্জিন। প্রায় আধ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। ততক্ষণে অবশ্য আগুনে পুড়ে ঝামা হয়ে গিয়েছে শখের বাহনগুলি। উল্লেখ্য, এর আগেও ইস্পাত নগরীর বি-জোনের মারকুনি, কৃত্তিবাস, নিউটন ও এ-জোনের আকবর রোড-সহ বেশ কিছু জায়গায় এই নিশাচর গাড়ি পোড়ানো বাহিনী দাপিয়ে বেড়িয়েছে। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, এক বছর কেটে গেলেও পুলিশ এই ঘটনার কোনও কিনারা করতে পারেনি। যদিও পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে,তদন্ত চলছে এবং তাঁদের অনুমান কোনও একটি দল পরিকল্পনা মাফিক বিশেষ উদ্দেশ্যে এই ঘটনা ঘটাচ্ছে।

আরও পড়ুন- মুকুলের বড় পরাজয়! হাসছেন অভিষেক

তবে পুলিশ যে কথাই বলুক, আর আস্থা রাখতে পারছে না দুর্গাপুর শহরের মানুষ। শহরবাসীর অভিযোগ, শুধু ইস্পাতনগরীই নয় দুর্গাপুর বিধাননগরের সপ্তর্ষি পার্ক, কোকওভেন থানার অন্তর্গত সগরভাঙ্গা-সহ বেশ কিছু জায়গায় রাতের অন্ধকারে অবাধে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এই দুষ্কৃতীরা। কিন্তু দুষ্কৃতীদের টিঁকিটিও ধরতে পারেনি পুলিশ। জানা যাচ্ছে, এখনও পর্যন্ত কমবেশি আট থেকে নয়টি বাইক এবং গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে পালায় দুষ্কৃতীরা।

তবে বছর খানেক পরে বৃহস্পতিবার ফের এমন ঘটনায় সন্ত্রস্ত দুর্গাপুর। দুষ্কৃতীরা ধরা না পড়ায় আতঙ্ক চেপে বসেছে এলাকাবাসীর মনে। যদিও পুলিশ জানিয়েছে, দুষ্কৃতীদের ধরার জন্য সব রকম প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। তবে কবে ধরা পড়বে এই নিশাচর দুষ্কৃতীরা, কবে কাটবে রাতের আতঙ্ক, আশা-আশঙ্কায় প্রহর গুনছে ইস্পাত নগরবাসী

Get the latest Bengali news and Westbengal news here. You can also read all the Westbengal news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Durgapur city antisocial fire up bikes and cars at midnight

Next Story
মাকে ‘মারধর’ করায় বাবাকে ‘পিটিয়ে খুন’ ছেলেরhowrah, হাওড়া
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com