scorecardresearch

বড় খবর

নিয়োগ দুর্নীতির শিকড়ের খোঁজে ED, ফের তলব মানিক ঘনিষ্ঠ তাপসকে

এর আগেও তাপস মণ্ডলকে ডেকে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

নিয়োগ দুর্নীতির শিকড়ের খোঁজে ED, ফের তলব মানিক ঘনিষ্ঠ তাপসকে
শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তাপস মণ্ডলকে ফের তলব ইডির।

রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ফের মানিক ভট্টাচার্য ঘনিষ্ঠ তাপস মণ্ডলকে ডেকে পাঠাল ইডি। ইডি সূত্রে জনা গিয়েছে, ডিএলএডের অইফলাইন রেজিস্ট্রেশনের নথি-সহ অন্যান্য নথি ও কাগজপত্র নিয়ে আগামী ২ নভেম্বর তাপস মণ্ডলকে তলব করা হয়েছে। এর আগেও তাপস মণ্ডলকে ডেকে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

অপসারিত প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ এই তাপস মণ্ডল। এর আগে তাপস মণ্ডলের বাড়ি, অফিসে তল্লাশি চালিয়ে বহু নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। মনিকের সঙ্গেই নিয়োগ দুর্নীতিতে ‘কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ’ সেরেছেন তাপস, এমনই দাবি ইডি সূত্রের। একাধিক পলিটেকনিক ও আইটিআই কলেজের মালিক এই তাপস মণ্ডল।

ইডি সূত্রের আরও দাবি, রাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা কয়েকশো বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগ রয়েছে এই তাপস মণ্ডলের। মোটা টাকার বিনিময়ে ওই বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি থেকেও সরকারি চাকরিতে নিয়োগ করা হত বলেও অভিযোগ মিলেছে। বেআইনি এই কারবারে কোটি-কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে বলে দাবি ইডির। তাপস মণ্ডলের হাত ধরেই বিপুল পরিমাণ এই টাকা মানিক ভট্টাচার্যের কাছে পৌঁছে যেত বলেও ইডি সূত্র দাবি করেছে। তদন্তে নেমে তাপস মণ্ডলের মিনার্ভা এডুকেশনাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির খোঁজ পায় ইডি। এই সংস্থার অধীনে বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালাতেন তাপস।

আরও পড়ুন- ‘NCC করলে মা-মাটি-মানুষের ঝাণ্ডা ধরবে না, তাই ফান্ড বন্ধ’, তোপ দিলীপের

ইডি সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, রাজ্যজুড়ে সাড়ে ছ’শোরও বেশি ডিএলড কলেজের সঙ্গে যোগ ছিল তাপস মণ্ডলের। ডিএলএডে অফলাইন রেজিস্ট্রেশন করিয়ে বহু ভুয়ো নিয়োগ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এবার তাপস মণ্ডলকে ডিএলএডের অফলাইন রেজিস্ট্রিশনের যাবতীয় নথি নিয়ে দেখা করতে বলেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

নিয়োগ দুর্নীতি মামলয় মানিক ভট্টাচার্যের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠদের মধ্যে অন্যতম এই তাপস মণ্ডল। নিউটাউনে তাপসের টিচার্স ট্রেনিং সেন্টারেও মানিক ভট্টাচার্য প্রায়ই আসতেন বলে জানতে পেরেছে ইডি। ওই টিচার্স ট্রেনিং সেন্টার থেকেও সরকারি চাকরিতে টাকার বিনিময়ে বহু নিয়োগ হয়েছে বলে সন্দেহ তদন্তকারীদের। এছাড়াও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তাপস মণ্ডলের ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতেও সরকারি চাকরি ‘বিক্রি’র কারবার একসময় রমরমা আকার নিয়েছিল বলে দবি ইডি সূত্রের।

আরও পড়ুন- CBI-এর পর এবার ED হাজিরাও এড়ালেন সুকন্যা, কেষ্ট-কন্যার বিরুদ্ধে এবার কড়া পদক্ষেপ?

মানিক ভট্টাচার্যকে জেরা করে ইতিমধ্যেই রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বেশ কিছু তথ্য পেয়েছেন ইডি আধিকারিকরা। মানিককে জেরা করে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই এবার ফের তলব করা হয়েছে তাপস মণ্ডলকে। মানিকের থেকে পাওয়া তথ্য তাপসের বয়ানের সঙ্গে মিলিয়ে দেখতে পারেন ইডির আধিকারিকরা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Westbengal news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ed summoned tapas mandal in primary tet scam case